ঢাকা, মঙ্গলবার 24 January 2017, ১১ মাঘ ১৪২৩, ২৫ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আতাইকুলা থানা গেটের সামনে দুর্ধর্ষ চুরি

সাঁথিয়া (পাবনা) সংবাদদাতা : সাঁথিয়া উপজেলার আতাইকুলা থানার প্রধান ফটকের সামনে স্বর্ণের দোকান ও কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে পুলিশ টহলরত অবস্থায় দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। সংঘবদ্ধ দুষ্কৃতকারীরা দোকানের সাটার কেটে স্বর্ণলঙ্কার, কম্পিউটার, পোশাক ও নগদ টাকাসহ প্রায় ১০ লক্ষ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে। জানা যায়, গতকাল শুক্রবার রাতে আতাইকুলা থানা পুলিশ টহলরত অবস্থায় দুষ্কৃতকারীরা আতাইকুলা বাজার বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন হাজ্বী নওয়াব আলী মার্কেটের ২য় তলায় পোস্ট-ই-সেন্টার কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সাটারের তালা ভেঙ্গে প্রায় দেড় লক্ষ টাকা  মূল্যের ৩টি ল্যাপটপ, ১টি কম্পিউটার চুরি করে নিয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার রাতে দুষ্কৃতকারীরা আতাইকুলা থানার প্রধান ফটকের সামনে পপি জুয়েলারী শিল্পালয়ের সাটারের লক ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে প্রায় সাড়ে ৫ লক্ষ টাকা মূল্যের ৮ ভরি স্বর্ণ ২৫০ ভরি রুপা ও ১টি লোহার সিন্ধুক নিয়ে যেতে সক্ষম হয়। স্বর্ণের মালিক প্রদীপ সাহা নন্দ জানান প্রতিদিনের ন্যায় রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে যায়। শুক্রবার সকালে দোকান খোলার সময় দেখি দোকানের সাটারের লক কাটা। ভিতরে ঢুকে দেখতে পাই সব এলোমেলো, আলমারি ভাংচুর। প্রদিপ আরো জানান সিন্ধুকের ভিতরে ব্যাংক ও বিমা কোম্পানীর কাগজ পত্র ছিল। আতাইকুলা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা স্বীকার বলেন লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলছে। এ ব্যাপারে আনছার আলী নামে ১ জন নাইট গার্ডকে আটক  করা হয়েছে বলে তিনি জানান। এছাড়াও অতি সম্প্রতি আতাইকুলা বাস স্ট্যান্ডে স্কয়ার মার্কেট কেনাকাটা-২ এর দুষ্কৃতকারীরা শুভ ফ্যাশান টার্চ ও ফরিদ ফ্যাশানের সাটারের তালা ভেঙ্গে নগদ ১ লক্ষ টাকা ও ৫০ হাজার টাকার মূল্যবান প্যান্ট, শার্ট নিয়ে যায়। বাজারে পুলিশ পাহারারত অবস্থায় কম্পিউটার দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি সংক্রান্ত ঘটনায় জানতে চাইলে আতাইকুলা থানার ওসি (তদন্ত) কামরুল ইসলাম এ প্রতিনিধিকে মোবাইল ফোনে বলেন বাজারে পুলিশ টহল ছিল বলে তিনি স্বীকার করেন। ইদানীং আতাইকুলা বাজারে চুরি সংক্রান্ত ঘটনাটি গাণিতিক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় ব্যবসায়ীরা আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। নাম প্রকাশ না করার স্বর্তে কয়েক জন ব্যবসায়ী বলেন বর্তমান যে অবস্থা বাজারের তাতে আমরা খুবই উৎকণ্ঠা এবং শঙ্কিত।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ