ঢাকা, বৃহস্পতিবার 26 January 2017, ১৩ মাঘ ১৪২৩, ২৭ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাষ্ট্রপতির কাছে নিরপেক্ষ সার্চ কমিটি চায় জনগণ

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন প্রধান, আমীরে শরীয়ত মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হুজুর বলেছেন, দেশের জনগণ ও রাজনৈতিক দলগুলো এখন নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য নিরপেক্ষ সার্চ কমিটির অপেক্ষায়। নিরপেক্ষ সার্চ কমিটি গঠন আমাদের রাষ্ট্রপতির জন্য একটি চ্যালেঞ্জ। তিনি যদি নিরপেক্ষ একটি সার্চ কমিটি জাতিকে উপহার দিতে পারেন তাহলে জনগণের মনে আগামীতে সুষ্ঠু নির্বাচনের আশার সঞ্চার হবে অন্যথায় দেশে সুষ্ঠু নির্বাচনের আশা করা যায় না। 

গতকাল বুধবার বিকাল ৩টায় লালবাগ কিল্লার মোড়ে খেলাফত মিলনায়োতনে বাংলাদেশ খেলাফত ছাত্র আন্দোলন কর্তৃক আয়োজিত খেলাফত আন্দোলনের নবগঠিত কমিটির পুনঃনির্বাচিত আমীরে শরীয়ত মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হুজুরকে ও নবনির্বাচিত মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজীকে সংবর্ধনা দান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ খেলাফত ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি হাফেজ আল-আমিন। বক্তব্য রাখেন, খেলাফত আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লা মিয়াজী, নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, যুগ্ম মহাসচিব রোকনুজ্জামান রোকন, হাফেজ মাওলানা আবু তাহের, প্রচার সম্পাদক মাওলানা সুলতান মহিউদ্দীন, ছাত্রনেতা হাফেজ ইহসান, ইসহাক মাহমুদ, আরাফাত হোসাঈন, নাজিবুল্লাহ আশ্রাফ, আশিক যোবায়ের, বেলাল হোসাঈন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

মাওলানা আতাউল্লাহ আরো বলেন, দ্বিতীয় বৃহত্তর মুসলিম দেশে সুপ্রীম কোর্টের সামনে গ্রীক দেবীর মূর্তি স্থাপন করে এদেশের মুসলমানদের সাথে তামাশা করা হচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং দ্রুত তা অপসারণের দাবি করছি। ছাত্র সমাজকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আপনারা সর্বদা দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করে যাবেন। আপনাদের দিকে জাতি তাকিয়ে আছে। এদেশে খেলাফত প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আপনাদেরকেই সঠিক ভূমিকা রাখতে হবে। তিনি আরো বলেন, একদিন এদেশের আকাশে ইসলামের বিজয়ী পতাকা উড়বেই। আর আমরা আশাবাদী সে বিজয় হাফেজ্জী হুজুরের সৈনিকদের হাত ধরেই আসবে ইনশাআল্লাহ।

নবনির্বাচিত মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী বলেন, হাফেজ্জী হুজুর রহ: আমাদেরকে আদর্শ ও তাওবার রাজনীতি শিখিয়েছেন। তাই আমাদের একটাই উদ্দেশ্য আল্লাহর জমিনে আল্লাহর দ্বীন প্রতিষ্ঠিত করা। চাই যত বাধাই আমাদের সামনে আসুক। 

সভাপতির বক্তব্যে হাফেজ আল-আমিন বলেন, এদেশে ইসলামী রাজনীতির কর্ণধার হযরত হাফেজ্জী হুজুর রহঃ। তাই এদেশে শান্তি আনতে হলে হাফেজ্জী হুজুরের নীতিআদর্শ মেনে চলতে হবে। ছাত্র রাজনীতির নামে নোংরা খেলা বন্ধ করতে হবে। চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস বন্ধ করতে হবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ