ঢাকা, বৃহস্পতিবার 26 January 2017, ১৩ মাঘ ১৪২৩, ২৭ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সালিশ বৈঠকে গৃহবধূর জীবনের মূল্য এক লাখ টাকা

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতা : বরিশালের আ গৈলঝাড়ায় পুলিশকে না জানিয়ে গৃহবধূর লাশ পোড়ানোর পর সালিশ বৈঠকে জীবনের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে এক লাখ টাকা।
সালিশ বৈঠকে উপস্থিত ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাকাল ইউনিয়নের বাহাদুরপুর-বাকাল সড়কের আমবাড়ি নামক স্থানে গত ৫ জানুয়ারি দুপুরে নারায়ণ  বৈষ্ণবের স্ত্রী মোনতারা বৈষ্ণবকে আহুতিবাটরা গ্রামের নেছারউদ্দিন খন্দকারের ছেলে ইমরান খন্দকার মোটরসাইকেল চাপা দিয়ে গুরুতর আহত করে।
মোনতারা ঢাকায় চিকিৎসারত অবস্থায় ৭ জানুয়ারি সকালে মারা যায়। এ ঘটনা থানা পুলিশকে না জানিয়ে গ্রামের মাতুব্বররা লাশ তড়িঘড়ি করে পুড়ে ফেলে। ওই রাতেই মোনতারার বাড়িতে সাবেক ইউপি সদস্য ভোলা নাথ বৈষ্ণব, ব্যবসায়ী শাহানুর ইসলাম ধলা, স্থানীয় পংকজ  বৈষ্ণবের নেতৃত্বে এক শালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শালিস-বৈঠকে মোনতারা বৈষ্ণবের জীবনের মূল্য নির্ধারণ করা হয় এক লাখ টাকা।
পরে অভিযুক্ত ইমরান খন্দকারের পক্ষ থেকে রায়ের বিরুদ্ধে আপত্তি জানালে শালিসবর্গ ১০ হাজার টাকা কমিয়ে ৯০ হাজার টাকা নির্ধারণ করে।
জীবনের মূল্য ১লাখ টাকায় নির্ধারণ করায় ওই এলাকার সাধারণ লোকজনের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এ ব্যাপারে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, এরকম একটি দুর্ঘটনায় কথা শুনেছি। সালিশ বৈঠকে টাকা নির্ধারণের কথাও শুনেছেন। কোন লোক অভিযোগ না দিলে তাদের কিছু করার থাকে না বলে জানান ওসি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ