ঢাকা, রোববার 29 January 2017, ১৬ মাঘ ১৪২৩, ৩০ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অস্ট্রিয়ায় অর্ধেক অভিবাসী আইনের চেয়ে ধর্মকে গুরুত্ব দেয় বেশি

২৮ জানুয়ারি, দি লোকাল : অস্ট্রিয়ায় অন্তত ৪০ ভাগ অভিবাসী আইনের চেয়ে ধর্মীয় আইনকে গুরুত্ব দেয় বেশি। প্রায় অর্ধেক অভিবাসী মনে করে আইনের চেয়ে ধর্মের গুরুত্ব অনেক।
তারা ধর্মনিরপেক্ষ আইনের চেয়ে ধর্মীয় আইনকে প্রাধান্য দেয়। জরিপে আরো দেখা যায় পশ্চিমা সমাজের মানুষ অনেক বেশি উদার এবং স্বাধীনতা প্রিয়। পাঁচ জন অভিবাসীর একজন বলেছে তারা মনে করেন নারীদের কাজের সুযোগ দেওয়া উচিত নয়। তবে বাকি চারজন নারী ও পুরুষের সাম্যে বিশ্বাসী। আবার তারা চান অস্ট্রিয়ায় মুসলিম মেয়েরা স্কার্ফ পড়ুক।
অভিবাসীদের ৩৭ ভাগ চান ছেলে ও মেয়েরা জিমন্যাস্টিক ও সুইমিংপুলের ক্লাসে আলাদা অংশ নিক। ৬১ ভাগ অভিবাসী নিজেদের ধার্মিক মনে করেন, ৩০ ভাগ দিনে ৫ বার বা তারও অধিক প্রার্থনা করেন। ৮৩ ভাগ মনে করেন অন্যান্য ধর্মের অনুসারীদের সঙ্গে মিলেমিশে থাকাতে কোনো সমস্যা হচ্ছে না এবং এতে তারা খুশি। ৪৫ ভাগ মনে করেন অন্য ধর্ম ইসলামের সমান নয়।
জরিপে দেখা গেছে দেশটির নাগরিকদের জন্যে উপযুক্ত মনে করলেও তাদের সঙ্গে কোনটি যায় না বলেও মত প্রকাশ করেন।
জরিপে ৯০০ আফগান, সিরিয়া ও ইরাকি অভিবাসীর কাছে প্রশ্ন করা হয়। অস্ট্রিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেবাস্টিয়ান কুর্জ অভিবাসীদের জন্যে ইন্ট্রিগ্রেশন কোর্স চালু করার কথা বলেছেন।
অস্ট্রিয়ার প্রশাসন মনে করছে, যদি দেশটির আইন সম্পর্কে অভিবাসীদের মনে কোনো নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া থেকে থাকে তাহলে তা ভবিষ্যতে সমস্যা তৈরি করতে পারে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী কুর্জ বলেন, মূল্যবোধ ভিন্ন হলেও অস্ট্রিয়ার আইনের ব্যাপারে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ