ঢাকা, রোববার 29 January 2017, ১৬ মাঘ ১৪২৩, ৩০ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

দাকোপ অঞ্চলের কৃষকের দোরগোড়ায় আবহাওয়া সেবা

খুলনা অফিস : জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাবের ফলে বাংলাদেশের কৃষিতে এসেছে নেতিবাচক পরিবর্তন। সঠিক সময়ে আবহাওয়ার তথ্য না থাকার কারণে প্রতিবছরই নষ্ট হয় কৃষকের অনেক টাকার ফসল। আবহাওয়ার এ সমস্যা থাকবেই; আর তার সাথে খাপ খাইয়ে কৃষি চর্চাকে আরো একধাপ এগিয়ে নিতে উলাসী সৃজনী সংঘ ও প্র্যাকটিক্যাল একশন বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে এবং ইংল্যান্ডের দাতা সংস্থা ঈঅঋঙউ-টক এবং উঋওউ এর অর্থায়নে পরিচালিত জলবায়ু সহিষ্ণু কৃষি প্রকল্পের মাধ্যমে সম্প্রতি দাকোপ উপজেলার কামারখোলা ও দাকোপ ইউনিয়নে দুটি পৃথক অনুষ্ঠানে ডিজিটাল আবহাওয়া তথ্যবোর্ড হস্তান্তর করা হয়। ডিজিটাল আবহাওয়া তথ্যবোর্ড উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্ব স্ব ইউনিয়নের চেয়ারম্যানবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে প্রকল্পটির সমন্বয়কারী মো. লোকমান হোসেন অবহিত করেন যে, এই আবহাওয়া তথ্য বোর্ডটি প্রতি এক সপ্তাহের আগাম আবহাওয়ার বার্তা ও এসময় কৃষকের করণীয় বিষয়ে কণ্ঠস¦রসহ অডিও  ও ভিডিও আকারে প্রচার করবে।
কামারখোলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পঞ্চানন কুমার মন্ডল বলেন, দাকোপের মত এমন উপকূলীয় ও বিপদাপন্ন এলাকার কৃষি ও কৃষকের জন্য এটি অত্যন্ত আনন্দের; উলাসী সৃজনী সংঘের এই উদ্যোগ প্রতি বছর কমিয়ে দেবে দুঃস্থ কৃষকদের ক্ষতি। এই বোর্ডের প্রচারিত তথ্য কৃষকরা অনুসরণ করলে তারা আগাম ব্যবস্থা নেয়ার মাধ্যমে তাদের বিপন্ন কৃষিকে রক্ষা করতে পারবেন। 
দাকোপ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিনয় কৃষ্ণ রায় বলেন, এটি একটি যুগান্তকারী উদ্যোগ-এর মাধ্যমে বিপন্ন কৃষি ও কৃষক সমাজের উন্নয়ন ঘটবে। আবহাওয়ার সেবা পৌঁছে যাবে প্রতিটি কৃষকের ঘরে ঘরে।
স্থানীয় কৃষকরা বলেন, এই বোর্ডের মাধ্যমে আমরা এক সপ্তাহের আগাম তথ্য ও এ সময় কী করতে হবে তা জনতে পারব। এতে আমাদের ফসল কম নষ্ট হবে কারণ আমরা আগাম ব্যবস্থা নিতে পারব। তাছাড়া এই বোর্ডে জৈব বালাইনাশক কীভাবে তৈরি করতে হয় তাও শেখানে হবে; এত করে আমরা আবহাওয়ার তথ্যের পাশাপাশি বিষমুক্ত নিরাপদ কৃষি চর্চা করতে পারব। মানুষের কাছে পৌঁছে দেব নিরাপদ ফসল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ