ঢাকা, শুক্রবার 3 February 2017, ২১ মাঘ ১৪২৩, ৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বাংলাদেশে প্রথম অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ওয়াটার এটিএম বুথ দাকোপে

খুলনা অফিস: একজন পানির গ্রাহক ওয়াটার এটিএম-এর মাধ্যমে স্মার্ট কার্ড স্পর্শ করেই কাঙ্খিত পরিমাণ সুপেয় পানি গ্রহণ করতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা পরিশোধ করে স্মার্ট কার্ড সক্রিয় করতে হবে। পানি গ্রহণ করতে করতে একটি সময়ে যখন কার্ডের টাকা শেষ হয়ে যাবে তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ওই কার্ড অকার্যকর হয়ে পরবে। তখন আবার টাকা রিচার্জ পূর্বক কার্ডটি সক্রিয় করে পানি গ্রহণ করা যাবে। এমন একটি অত্যাধুনিক সুপেয় পানির ডিজিটাল প্লান্টের উদ্বোধন করা হয়েছে খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার চালনা পৌরভবন চত্বরে। রিভার্স অসমোসিস প্রযুক্তির এ প্লান্টের সাথে যুক্ত হয়েছে ওয়াটার এটিএম বুথ।
২৫ লাখ টাকারও বেশী ব্যয়ের অষ্ট্রেলীয় প্রযুক্তির অত্যাধুনিক এ প্লান্টের মাধ্যমে প্রাপ্ত শতভাগ সুপেয় পানি গ্রাহককে কিনতে হবে প্রতি লিটার মাত্র ৪০ পয়সা হিসেবে। সুপেয় পানির তীব্র অভাবের জায়গায় এ ধরণের অত্যাধুনিক পানির প্রাপ্তির প্রযুক্তি বাংলাদেশেই প্রথম বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।
আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ওয়াটার এইডের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় রূপান্তর এ প্লান্টটি বাস্তবায়ন করেছে। সোমবার আনুষ্ঠিকভাবে এ প্লান্টের উদ্বোধন শেষে রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন গুহ  প্লান্টটি  চালনা পৌরসভার মেয়রের কাছে  হস্তান্তর করেন। এখন থেকে এ প্লান্টটি চালনা পৌরসভার ব্যবস্থাপনায় তালিকাভুক্ত পৌরবাসীর সুপেয় পানির অভাব মিটাকে পরিচালিত হবে।
গত সোমবার এ প্লান্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন খুলনা-১ আসনের এমপি পঞ্চানন বিশ্বাস। প্রধান অতিথি এ সময় চালনা পৌরসভার নবনির্মিত ভবনেরও উদ্বোধন করেন।
রূপান্তরের ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে পঞ্চানন বিশ্বাস এমপি বলেন,  চালনা পৌরবাসীর সুপেয় পানির দীর্ঘকালের অভাব অনেকাংশেই পূরণ হবে। তিনি স্থায়ীত্বশীল এ ধরনের ডিজিটাল প্রযুক্তির রক্ষাবেক্ষণসহ তা সচল রাখার জন্য গ্রহকদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, সরকার উপকূলীয় জনগোষ্ঠীর সুপেয় পানির সংস্থানে বেসকারী উদ্যোগকে স্বাগত জানায়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভায় সভাপতিত্ব করেন চালনা পৌরসভার মেয়র সনত কুমার বিশ্বাস। পৌরভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব শেখ আবুল হোসেন, ইউএনও মো. মারুফুল আলম, রূপান্তরের  নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট সুভদ্রা সরকার, ইউপি চেয়ারম্যান পঞ্চানন মন্ডল, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ শফিকুল ইসলাম আক্কেল, পৌর প্যানেল মেয়র আব্দুল গফুর সানা, রূপান্তরের  সিসিএ-এল প্রজেক্ট প্রধান জাহিদুর রহমান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ