ঢাকা, শুক্রবার 3 February 2017, ২১ মাঘ ১৪২৩, ৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ফেনী সংবাদ

ফেনী সংবাদদাতা: দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলীতে ফেনীর সালাউদ্দিন আহম্মদ শাকিল (২৭) নামের এক যুবক খুন হয়েছে। রবিবার স্থানীয় সময় রাত ৮টার দিকে বেলকন শহরে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শাকিল দাগনভূঞা উপজেলার পূর্বচন্দ্রপুর ইউপি’র চন্দ্রদ্বীপ গ্রামের বাসিন্দা ও দাগনভূঞা বাজারের জামিল ফার্মেসির মালিক মোহাম্মদ বেলালের ছেলে।
নিহতের পরিবার জানিয়েছে, গত দুই বছর আগে শাকিল জীবিকার তাগিদে আফ্রিকায় পাড়ি জমায়। সে বেলকন শহরে রকমারি পণ্যের দোকান করত। ঘটনার দিন স্থানীয় সন্ত্রাসীরা তার দোকানের মালামাল লুট করার সময় বাধা দিলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে গুলী ছোঁড়ে। এতে ঘটনাস্থলে শাকিল মারা যায়। তার মৃত্যুর খবরে পরিবারে শোকের ছায়া নেমে আসে।
নৈশ প্রহরী গ্রেফতার
ফেনীর সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের ছাড়াইতকান্দি হোসাইনিয়া দাখিল মাদরাসার পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে রবিবার রাতে নৈশ প্রহরী ফকির আহাম্মদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে মাদরাসার নৈশপ্রহরী ফকির আহাম্মদ পার্শ্ববর্তী আকবর হোসেনের পঞ্চম শ্রেণির মাদ্রাসা পড়–য়া মেয়েকে আসা-যাওয়ার পথে চকলেট ও টাকা দিয়ে প্রলোভন দেখিয়ে কাছে টেনে নেয়। গত রবিবার মাদরাসার ছুটির পর জনৈক ছাত্রীটিকে চকলেট ও বিস্কুট কিনে দিয়ে চতুর্থ শ্রেণির একটি কক্ষে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় মেয়েটি চিৎকার দিয়ে দৌড়ে বাড়ি চলে যায়।
বাড়ি গিয়ে ঘটনা সম্পর্কে মেয়েটি তার পিতা-মাতাকে জানালে তারা বিষয়টি নিয়ে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করেও কোন বিচার না পাওয়ায় রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ছাড়াইতকান্দি হোসাইনিয়া দাখিল মাদরাসায় নৈশ প্রহরী ফকির আহাম্মদ (৫০) কে মাদরাসার সামনে থেকে গ্রেফতার করে। এ ব্যাপারে ছাত্রীর পিতা আকবর হোসেন বাদী হয়ে ফকির আহাম্মদকে আসামী করে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করে। পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে নৈশ প্রহরী ফকির আহাম্মদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ইতোপূর্বেও অনেক মাদরাসা ছাত্রীর সাথে আপত্তিকর বিভিন্ন বিষয়ের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করে। নৈশ প্রহরী ফকির আহাম্মদ সদর ইউনিয়নের ছাড়াইতকান্দি গ্রামের কালা মিয়ার ছেলে।
লাশ উদ্ধার
ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার দক্ষিণ আলিপুর গ্রামে সোমবার রাতে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত গৃহবধূ বিবি কুলসুম ঝর্ণা (৩২) ওই গ্রামের ওমান প্রবাসী ওলি উল্যাহর স্ত্রী। এ ঘটনায় নিহতের বাবা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
পুলিশ ও নিহত গৃহবধূর ছেলে জানিয়েছে, উপজেলার দক্ষিণ আলীপুর গ্রামের ছমির মুন্সীরহাট সংলগ্ন নেজাম উদ্দিন মালির বাড়িতে মধ্যরাতে সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকে দুর্বৃত্তরা গৃহবধূকে জবাই করে হত্যা করে। ওই সময় ঝর্ণার বড় ছেলে আবিদ চিৎকার করলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। সে ৩ সন্তানের জননী। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহম্মদ শামসুল আলম সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
সকালে নিহতের বাবা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
দাগনভূঞা থানার ওসি মো. আসলাম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, হত্যাকা-ে ধারালো অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে, পুলিশ হত্যার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ