ঢাকা, শুক্রবার 3 February 2017, ২১ মাঘ ১৪২৩, ৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

শরণার্থী নিয়ে ট্রাম্প টার্নবুল তীব্র বাকবিতণ্ডা

২  ফেব্রুয়ারি, সিএনএন/স্কাই নিউজ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর স্থানীয় সময় শনিবার অস্ট্রেলিয়ার  প্রেসিডেন্ট ম্যালকম টার্নবুলের সঙ্গে ফোনালাপ করেছেন  ডোনাল্ড ট্রাম্প। একই দিন ট্রাম্প আরো চারজন বিশ্বনেতার সঙ্গে কথা বলেন। তবে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ২৫ মিনিটের ফোনালাপকে দিনটিকে  সবচেয়ে ‘বাজে কল’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল।

ট্রাম্প ‘যুক্তরাষ্ট্র-অস্ট্রেলিয়া শরণার্থী গ্রহণ চুক্তি’ প্রত্যাখান করার কথা জানানোর পরপরই দুই নেতার এই কথোপকথনে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন, এই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করা হবে। অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্প-টার্নবুল ফোনালাপ অসমাপ্ত রেখেই শেষ হয়েছিল।

এই কথোপকথন সম্পর্কে ওয়াশিংটন এবং অস্ট্রেলিয়ার থেকে ভিন্ন ভিন্ন প্রতিক্রিয়া এসেছে। অস্ট্রেলিয়ান কর্তৃপক্ষ জানায়, ফোনালাপে ট্রাম্প এই চুক্তিকে ‘সবচেয়ে বাজে চুক্তি’ বলে অভিহিত করে বলেছেন, ‘আমার এই সব নাগরিকদের কোন প্রয়োজন নেই।’

অন্যদিকে টার্নবুল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘দুই নেতার মধ্যে অন্তরঙ্গ ও ব্যক্তিগত আলোচনা হয়েছে। ট্রাম্প জানিয়েছেন তিনি এই চুক্তিকে সম্মান করেন।’ এর আগে, বৃহস্পতিবার রাতে ট্রাম্প টুইটারে বলেন, ‘ওবামা প্রশাসন অস্ট্রেলিয়ার হাজারো শরণার্থীকে গ্রহণ করার অনুমতি দিয়েছিল। কেন?। এটি একটি মূক চুক্তি।’ তবে কথোপকথনের পর টার্নবুল বলেন, ট্রাম্প তাকে এই বিষয়ে আশ্বস্ত করেছেন।

এর আগে, ওবামা প্রশাসনে যুক্তরাষ্ট্র অস্ট্রেলিয়ান দ্বীপে আটক শরণার্থীদের মধ্যে দুই হাজার শরণার্থী গ্রহণ করার বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষর করেন। কিন্ত ট্রাম্প ক্ষমতা গ্রহণের পরপরই গত ১২০ দিনে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করা সিরিয়ানসহ সব শরণার্থীদের বরখাস্ত করেন।

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ঘনিষ্ঠ মিত্র। হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব শন স্পাইসার বলেন, ‘ট্রাম্প প্রশাসন এই চুক্তিকে সম্মান করে। তবে এটি ব্যাপক পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যাবে। প্রেসিডেন্ট এটি বিবেচনা করছেন।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ