ঢাকা, সোমবার 6 February 2017, ২৪ মাঘ ১৪২৩, ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থ দিচ্ছে না দাতারা

স্টাফ রিপোর্টার : দেশের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডে নিয়োজিত বেসরকারি সংস্থা বা এনজিওগুলোকে আগের মতো এখন আর অর্থ দিচ্ছে না দাতাগোষ্ঠী। ফলে অনেক এনজিও তাদের উন্নয়ন কর্মকা- নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। সম্প্রতি অন্যতম এনজিও ব্র্যাক এমন অভিযোগ তুলে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পগুলোতে নিজস্ব অর্থায়ন বাড়ানোর বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছে। ব্র্যাক  মনে করছে এখন থেকে তারা নিজেদের প্রকল্পে নিজস্ব অর্থায়ন বাড়াবে।
বৃহৎ এই সংস্থাটি মনে করছে এনজিওগুলোতে দাতাদের সহায়তা কমায় নতুন পরিকল্পনা নিয়ে সামাজিক কর্মকা- পরিচালনা করবে ব্র্যাক। আর তাদের এই  পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ২০২০ সাল নাগাদ ৯০ শতাংশ নিজস্ব অর্থায়নে দারিদ্র্য বিমোচনসহ অন্যান্য সামাজিক উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করবে বেসরকারি এই সংস্থাটি।
সস্প্রতি সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ব্র্যাকের স্ট্রাটেজি, কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড এমপাওয়ারমেন্ট কর্মসূচির ঊর্ধ্বতন পরিচালক আসিফ সালেহ এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশের এনজিওগুলো এখন আর আগের মতো দাতাদের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা পায় না। সে কারণে এখনকার এনজিওগুলোর অবস্থা খুব একটা ভালো না। কিন্তু আমরা শুরু থেকেই দাতাদের সহায়তার পাশপাশি নিজস্ব অর্থে আমাদের কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছি।
ব্র্যাকের এই কর্মকর্তা আরো জানান জাতিসংঘের সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এমডিজি) অর্জনের ক্ষেত্রে দাতারা যে মাত্রায় অর্থায়ন করেছেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের জন্য তাদের কাছ থেকে সেভাবে আর্থিক সহায়তা পাওয়া যাবে না।
আর এটা আমাদের জন্য একটা বড় চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ব্র্যাক আগামী দিনে নতুন কর্মকৌশল হিসেবে নিজস্ব অর্থায়নের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে। সে হিসেবে আমরা বর্তমানে ৭০ শতাংশ নিজস্ব অর্থায়নে কর্মকা- পরিচালিত করলেও এটাকে বাড়িয়ে ২০২০ সাল নাগাদ ৯০ শতাংশে উন্নীত করতে চাই।
এদিকে ব্র্যাকের গবেষণায় উঠে এসেছে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রায় ১৭টি লক্ষ্য অর্জনের কথা উল্লেখ থাকলেও এরমধ্যে বাংলাদেশের বাস্তবতা বিবেচনায় কয়েকটি বিষয় বিশেষভাবে অগ্রাধিকার দিতে হবে। সেগুলো হল- অর্থনৈতিক বৈষম্য কমিয়ে আনা, খাদ্য নিরাপত্তা, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত প্রভাব, পুষ্টিহীনতা, গুণগত শিক্ষা নিশ্চিত করা, নগরায়ণ ইত্যাদি।
একই সাথে সরকারের সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায়ও এই বিষয়গুলোকে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। সে আঙ্গিকে ব্র্যাক নতুন কর্মপরিকল্পনা ঠিক করেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ