ঢাকা, সোমবার 6 February 2017, ২৪ মাঘ ১৪২৩, ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ট্রাম্প-মেলানিয়ার মধ্যে ঘনিষ্ঠতা এখন প্রকাশ্যে নয় আড়ালের বিষয়

৫ ফেব্রুয়ারি, ডেইলি মেইল : জনসম্মুখে স্ত্রী মেলানিয়ার হাত ধরছেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কারণ তিনি এখন প্রেসিডেন্টের প্রোটোকল অনুযায়ী নিজেকে পুরোপুরি উপস্থাপন করছেন। একজন বডিল্যাংগুয়েজ বিশেষজ্ঞ প্যাটি উড বলেছেন, ট্রাম্প চান নিজেকে ‘প্রেসিডেন্সিয়াল আলফা’ হিসেবে উপস্থাপন করতে। এজন্যে পুরোনো অভ্যাসবশত মেলানিয়া ট্রাম্পের হাত ধরলেও তিনি তা ছাড়িয়ে নিচ্ছেন। গত শুক্রবার ফ্লোরিডায় তাদের দুজনকেই দুজনার হাত ধরে থাকতে দেখা গেছে। প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরুর পর প্রতিমূহুর্তে ট্রাম্প বিভিন্ন প্রোটোকল মেনে চলছেন এবং এরই প্রভাবে তিনি আর এখন প্রকাশ্যে স্ত্রী মেলানিয়ার হাত ধরতে চাইছেন না। অবশ্য ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে যখন যুক্তরাষ্ট্র সফরে আসেন তখন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার হাত ধরে পাশাপাশি হেঁটে যান। সেটাও প্রেসিডেন্সিয়াল প্রোটোকলের মধ্যে এক অন্তরঙ্গ মূহুর্ত। কিন্তু এখন আর স্ত্রী মেলানিয়ার হাত যখন তখন তিনি ধরছেন না। এরপর পাম বিচ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে এসে যখন প্রেডিডেন্ট ট্রাম্প সস্ত্রীক নামেন, তখন দুজনেই হাত ধরে ছিলেন। একটু পর ট্রাম্পকে করতালি দিতে হয়। এরপর মেলানিয়া তার হাত দু’বার ধরতে চাইলেও ট্রাম্প তা ছাড়িয়ে নেন।
নির্বাচনী প্রচারণা থেকে শুরু করে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর ট্রাম্প ও মেলানিয়ার মধ্যে আবেগঘন দম্পতির হাবভাব ক্রমশ উধাও হয়ে যাচ্ছে। এবং সেটাই স্বাভাবিক। জনসম্মুখে এলে এই দম্পতি নিজেদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা প্রকাশ করতে দ্বিধাবোধ করতেন না। কিন্তু প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর প্রোটোকলের মধ্যে দিয়েই দুজনকে চলতে হচ্ছে এবং তারা তা ক্রমশ মানিয়ে নিচ্ছেন। প্যাটি উড আরো বলেন, ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হিসেবে যথেষ্ট শক্ত সামর্থ, এটা দেখাতেই তিনি সহসা বা সবসময় স্ত্রী মেলানিয়ার হাত আর ধরতে চাইবেন না। এটাই স্বাভাবিক। এখন তিনি প্রেসিডেন্ট। স্ত্রী বা কারো হাত ধরবেন কি না এটা তার এখতিয়ার। তিনি যে নিজেকে যথেষ্ট শক্তিশালী হিসেবে উপস্থাপন করতে চাইছেন, তার শরীরি ভাষায় সেটাই প্রকাশ পাচ্ছে। পাম বিচ এয়ারপোর্টে এসে নামার পর স্ত্রী মেলানিয়া তাকে স্বাগত জানান ও আবেগঘন এক চুম্বনও করেন। কিন্তু এরপর মেলানিয়া ট্রাম্পের হাত দু’বার ধরতে গেলে প্রেসিডেন্ট তা ছাড়িয়ে নেন। এতে স্পষ্ট হয়ে ওঠে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এখন প্রোটোকলের বাইরে নন। দুই সপ্তাহ আগে ওয়াশিংটনে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের পর স্ত্রী মেলানিয়ার সঙ্গে তার ফের দেখা হল। এয়ারফোর্স ওয়ান বিমানে করে এসে তিনি বিমান বন্দরে নামার পর স্ত্রী মেলানিয়া তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে দুজনেই হাত ধরে টারমার্কের দিকে এগিয়ে আসছিলেন। এসময় বিমানবন্দরে উপস্থিত অন্যান্যের করতালির জবাবে ট্রাম্প মেলানিয়ার হাত ছেড়ে করতালি দিতে দিতে এগিয়ে আসেন। এরপর মেলানিয়া তার হাত ধরতে গেলে তিনি সাড়া দেননি। ট্রাম্প তার মার-এ-লাগো রিসোর্ট পরিদর্শন করতে এসেছেন। বডি ল্যাংগুয়েজ নিয়ে প্যাটি উড বই লিখেছেন। তিনি বলেন, হাত ধরে কেউ হাঁটলে তার অর্থ দাঁড়ায় আপনি কিছুটা হলেও অন্যের ওপর নির্ভর করছেন। এতে আপনার যে অবস্থান তারও নির্ভরশীলতা প্রকাশ পায়। প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্প এখন স্বয়ংসম্পূর্ণ ও শক্তিশালী। সম্ভবত তিনি আর সহজে প্রকাশে মেলানিয়ার হাত ধরতে চাইবেন না। তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা এখন প্রকাশ্যে নয় আড়ালের বিষয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ