ঢাকা, সোমবার 13 February 2017, ০১ ফাল্গুন ১৪২৩, ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

চিরিরবন্দরে উদ্ধার করা লাশ নিয়ে ধূম্রজাল

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) সংবাদদাতা : দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে আনছার আলী ওরফে অন্তর কালা (৫৫) নামে এক ব্যক্তির উদ্ধার করা লাশ নিয়ে ধূম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ১০ টায় উপজেলা রানীরবন্দর বাজারের গরুহাটির পাশ্ববর্তী এলাকা চান্দেরদহ নামক স্থানে নশরতপুর ইউনিয়নের রাতের টহল বাহিনী আনছার বিডিবির সদ্যস্যরা মো: আনছার আলীর লাশ পড়ে থাকতে দেখে। পরে তারা বাড়ির লোকজনকে খবর  দিলে বাড়ির লোকজনসহ টহলবাহীনিরা সবাই মিলে লাশটিকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে আসে।
পরে চিরিরবন্দর থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ লাশের বাড়িতে পৌছে সুরতহাল করে হত্যার কোন আলামত না পাওয়ায় পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করলে সকালেই লাশের দাফন সম্পন্ন করা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আনছার ভিডিপির সদস্য ও লাশ উদ্ধারকারীরা জানায়, উদ্ধারের সময় তার গলায় রশি দিয়ে হত্যা করার আলামত ছিল। প্রকৃত ঘটনাকে আড়াল করতে পুলিশ ও নশরতপুর ইউপি চেয়ারম্যান জোর তৎপরতা চালাচ্ছে।
প্রতিবেশীরা আরও জানায়, গত কয়েকদিন পূর্বে আনছার আলীর নিকট জমি বিক্রির মোটা অংকের টাকা ছিল। হয়তো এরই জের ধরে তাকে হত্যার  শিকার হতে হয়েছে। নিহত আনছার আলী উপজেলার নশরতপুর সর্দারপাড়া গ্রামের মৃত কসি মোহাম্মদের পুত্র বলে জানা গেছে।
এ ব্যাপারে নশরত ইউপি চেয়ারম্যান মো:নুর ইসলাম নুরুর  সাথে কথা হলে তিনি জানায়, আনছার আলীর শারীরিক হাট অ্যাটাকের কারনের তার মৃত্যু হয়েছে। চিরিরবন্দর  থানার অফিসার ইনচার্জ আনিছুর রহমান জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ মর্গে না পাঠিয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে গলায় সামান্য দাগ পাওয়া গিয়েছিল হয়তো দাগটি আগের হতে পারে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ