ঢাকা, শুক্রবার 17 February 2017, ০৫ ফাল্গুন ১৪২৩, ১৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানোর কোনো ইচ্ছা সরকারের নেই -কাদের

স্টাফ রিপোর্টার: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানোর কোনো ইচ্ছা সরকারের নেই। তিনি বলেন, কাউকে দোষী সাব্যস্ত করে জেলে পাঠানো হবে বা মাফ করা হবে কিনা সে বিষয়ে আদালত সিদ্ধান্ত নেবেন। তবে নির্বাচন হবে যথাসময়ে। কারো জন্য নির্বাচন বন্ধ করা যাবে না।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর কুর্মিটোলায় হোটেল র‌্যাডিসনের পাশে এয়ারপোর্ট থেকে বনানী পর্যন্ত সৌন্দর্য বর্ধণ ডিজিটালাইজেশন ও আধুনিকায়ন ও রক্ষণাবেক্ষণ প্রকল্পের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন। ভিনাইল ওয়ার্ল্ড গ্রুপ নামক একটি প্রতিষ্ঠান এ প্রকল্পে কাজ করছে।
নির্বাচন এবং সংবিধান কারো জন্য বসে থাকে না উল্লেখ করে কাদের বলেন, তামিলনাড়ুর শশীকলা ক্ষমতা গ্রহণের প্রাক্কালে তাকে দুর্নীতির দায়ে জেলে যেতে হয়েছে। তাই বলে কী তামিলনাড়ুতে সরকার গঠিত হবে না? শশীকলার জন্য তো নির্বাচন বসে থাকবে না। তেমনি খালেদা জিয়ার জন্য নির্বাচন এবং সংবিধান বসে থাকবে না।
প্রসঙ্গত, গত বুধবার এক আলোচনাসভায় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলা দিয়ে যদি জেলে পাঠানো হয়, তাহলে এদেশে কোনো নির্বাচন হবে না। জনগণ এ নির্বাচন মেনে নেবে না এবং দেশপ্রেমিক কোনো দল এ নির্বাচনে অংশ নেবে না।
খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানো হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের এই নীতি নির্ধারক বলেন, খালেদাকে জেলে পাঠানোর ইচ্ছা সরকারের নেই। আদালতে দোষী সাব্যস্ত হলে সে কারাগারে যাবে কি যাবে না, মাফ পাবে কিনা, সেটা আদালত নির্ধারণ করবে।
এ ব্যাপারে আমাদের কিছু করার নেই। কেউ যদি অপরাধ করে থাকেন তাহলে অবশ্য তাকে সাজা ভোগ করতে হবে। এক্ষেত্রে আদালতের ওপর কারো হস্তক্ষেপ করার সুযোগ নেই। আওয়ামী লীগ আইনের শাসনে বিশ^াস করে। আদালতের যেকোনো রায় আমরা মেনে নেব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ