ঢাকা, রোববার 19 February 2017, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৩, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

যশোর-ঝিকরগাছা-নাভারণ সড়কের সংস্কার নেই ॥ জনদুর্ভোগ

চৌগাছা (যশোর), সংবাদদাতা: যশোরের চৌগাছার সঙ্গে সংযুক্ত যশোর  ঝিকরগাছা ও নাভারণ সড়ক ৩টি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন যাবৎ সংস্কার না হওয়ায় এ সড়ক তিনটি বেহালদশায় পরিণত হয়েছে। দক্ষিণ বঙ্গের অন্যতম ব্যস্ততম জনপদ নীল বিদ্রোহের সুতিকাগার স্বাধীনতার প্রবেশদ্বার যশোরের চৌগাছা উপজেলা। এ উপজেলাটির যশোর জেলা শহর থেকে ২৬  কিলোমিটার পশ্চিমে ও ঝিকরগাছা শহর থেকে ২২ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থান। গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য এ উপজেলা থেকে ঝিকরগাছা, নাভারণ এবং যশোর শহরে প্রতিদিন শত-শত যানবাহন ও হাজার-হাজার মানুষ চলাচল করে থাকেন। এছাড়া এখান থেকে প্রতিদিন রাজধানী ঢাকাসহ দেশের গুরুত্বপূর্ণ সব ছোট বড় শহরে যোগাযোগ রক্ষার জন্য এ রুটে প্রায় ৭/৮শ’ যানবাহন চলাচল করে। এই ৩টি রুটের রাস্তাগুলোতে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এই রাস্তাগুলোতে গত ৪ বছর কোন সংস্কার হয়নি। ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধের উপক্রম হয়েছে। চৌগাছা থেকে চুড়ামনকাটি পর্যন্ত ১৮ কিলোমিটার, নাভারণ, ২৮ কিলোমিটার, ঝিকরগাছা ২২ কিলোমিটার রাস্তার মাঝে-মাঝে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহনে চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে ইটভাটার ট্রাক বেপরোয়াভাবে চলাচলের কারণে ছোট গর্তগুলো বড় হয়ে গেছে। যে কারণে সকল যানবাহন যান্ত্রিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। অপরদিকে, হরহামেশায় দুর্ঘটনা ঘটছে। বাড়ছে মৃত্যু আর পঙ্গুত্বের সংখ্যা। রাস্তাগুলো চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ায় বাইরের অন্য স্থান থেকে বড় ব্যবসায়ীরা চৌগাছায় কাঁচামাল বা অন্যান্য পণ্য ক্রয় করতে আসতে অনীহা প্রকাশ করছেন। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এলাকার কৃষক, ব্যবসায়ী ও পেশাজীবী মানুষ। এছাড়া চৌগাছা কোন মুমূর্ষু রোগী, গর্ভবতী মা, শিশুকে জরুরিভাবে যশোর বা দেশের অন্য কোথাও উন্নত চিকিৎসার জন্য নিতে গিয়ে রীতিমত নাজেহাল হতে হয়। এ ছাড়া অকালে জীবন হারাচ্ছেন বহু প্রসূীত মা ও শিশু।
এমন বেহাল দশা যে, যানবাহনে উঠলে জীবন নিয়ে যাত্রীরা থাকে শঙ্কিত। বর্তমান দিনবদলের কর্মীদের ভাগ্যের উন্নয়ন ঘটলেও চৌগাছার এই ৩টি রাস্তার কোন উন্নয়ন হয়নি।
এলাকার মা, শিশু, মুমূর্ষু রোগীর কথা চিন্তা করে এলাকাবাসী রাস্তাগুলো পুনঃসংস্কারের দাবী জানিয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ