ঢাকা, মঙ্গলবার 21 February 2017, ০৯ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ভাষা আন্দোলনের কিংবদন্তী অধ্যাপক মোহাম্মদ আবদুল গফুর

সুদীর্ঘ বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী প্রখ্যাত ভাষা সৈনিক, প্রবীণ সাংবাদিক অধ্যাপক আবদুল গফুরের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বক্তাগণ বলেছেন, অধ্যাপক আবদুল গফুর কর্মচঞ্চলতার প্রতীক। তমদ্দুন মজলিসের সূচনা থেকেই তার কর্মতৎপরতা ছিল উল্লেখ করার মতো। ভাষা আন্দোলনের প্রত্যক্ষ এক সৈনিক আজীবন সংগ্রাম, ত্যাগ ও বিসর্জনের মধ্য দিয়ে জীবনাতিপাত করেছেন। কয়েকবার সরকারি চাকরি বিসর্জন দিয়ে দেশ ও দেশের মানুষের মুক্তির জন্য সংগ্রাম করেছেন।
বক্তারা আরো বলেন, অধ্যাপক আবদুল গফুরের মতো আরো অনেক দেশপ্রেমীদের হাত ধরেই দেশের রাজনীতি গড়ে উঠেছে। অথচ সেই রাজনীতিবিদরা তাদের মতো মহান মনীষীদের ভুলে গিয়ে নিজেদের আখের গোছানোয় ব্যস্ত যা আসলেই অত্যন্ত দুঃখজনক।
বক্তারা বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অথবা ঢাকা কলেজে তার নামে একটা চেয়ার অথবা ঢাকা শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে একটি সড়ক নামকরণের দাবি জানান। তার সাহচর্যে থেকে কাজ করার ও দিক নির্দেশনার কথা স্মৃতিচারণ করেন।
বক্তাগণ তার সুস্থতা কামনা করেন এবং দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে আরো অবদান রাখার জন্য একুশে পদকপ্রাপ্ত এ মহান কর্মবীরের দীর্ঘায়ু কামনা করেন।
গতকাল অধ্যাপক আবদুল গফুরের ৮৮তম জন্মদিন উপলক্ষে ঢাকার মালিবাগস্থ তমদ্দুন মজলিসের মহানগর অফিসে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান তমদ্দুন মজলিসের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যবৃন্দ। অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন অধ্যাপক এমএ সামাদ, ড. মুহাম্মদ সিদ্দিক, এমএ হান্নান, এরতাজ আলম, মাসুম আল বান্না তৌফিক, মোহাম্মদ তাওহিদ খান, ওয়াহিদ আল হাসান প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ