ঢাকা, বুধবার 22 February 2017, ১০ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তীতে গানে গানে মাতালেন সৈয়দ আঃ হাদী

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: “এমনি তো প্রেম হয়, চোখের জলে কথা কয়” “যেও না সাথী, চলেছো একেলা কোথা, পথ খুঁজে পাবে নাকো শুধু একা” “চলে যায় যদি কেউ বাঁধন ছিঁড়ে, কাঁদিস কেন মন, ভাঙা গড়া এ জীবনের আছে সর্বক্ষণ” “একবার যদি কেউ ভালোবাসতো, আমার নয়ন দু’টি জলে ভাসতো আর ভালোবাসতো, এজীবন তবু কিছু না কিছু পেতো” এমনই আবেগময়ী গান গেয়ে শ্রোতাদের মন জয় করলেন আধুনিক গানের জীবন্ত কিংবদন্তি ও স্বাধীন বাংলা বেতার শিল্পী সৈয়দ আব্দুল হাদী। ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তি উৎসব উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশনের জন্য প্রধান অতিথি ছিলেন সৈয়দ আব্দুল হাদী। সন্ধ্যার পর থেকেই সবাই তার সঙ্গীত উপভোগের জন্য শিল্পকলা একাডেমী হলরুমে অপেক্ষা করতে থাকেন। রাত ৮ টা বেজে কিছুটা সামনে পেরিয়েছে। ইতিমধ্যে সংবাদ অডিয়েন্সে সংবাদ চলে আসে প্রধান অতিথি “হাদী ভাই” এসেছেন। সবাই উৎফুল্ল হয়ে তাকাচ্ছে তাকে এক নজর দেখার জন্য। ইতিমধ্যে তিনি এসে সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে গানের আসরে বসলেন। প্রথমেই “যে মাটির বুকে ঘুমিয়ে আছে লক্ষ মুক্তি সেনা, দে না তোরা দে না এ মাটি আমার অঙ্গে মাখিয়ে দে না” গানটি দিয়ে তিনি সঙ্গিতানুষ্ঠান শুরু করেন। ৭৬ বছর বয়সী এ শিল্পী তার দারাজ কণ্ঠে একে একে ১০ টিরও বেশি গান পরিবেশন করেন। তার সুললিত কণ্ঠে প্রত্যেকটি গানই ছিলো মনোমুগ্ধকর। সবাই আবেগময়ী হয়ে তার গান উপভোগ করেন। শ্রোতারা তখন একে অপরকে বলছিলেন সেই ছোট বেলা থেকে যে কণ্ঠে এখনও তো সেই কণ্ঠেই গান শুনছি। বয়স হয়েছে কিন্তু তার কণ্ঠের সামান্যটুকু পরিবর্তন হয়নি। সর্বশেষ তিনি “সূর্যোদয় তুমি সূর্যাস্তেও তুমি ও আমার বাংলাদেশ প্রিয় জন্ম ভূমি।” গানটি পরিবেশন করে সঙ্গিতানুষ্ঠানের সমাপ্তি করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ