ঢাকা, বুধবার 22 February 2017, ১০ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খুলনায় ফেন্সিডিলসহ দুই কাস্টম কর্মকর্তা আটক অতঃপর দুই লাখ টাকায় রফাদফা করলো পুলিশ

খুলনা অফিস : খুলনায় ফেন্সিডিলসহ দুইজন কাস্টমস কর্মকর্তাকে আটক করে দুই লাখ টাকার উৎকোচের বিনিময় ছেড়ে দিয়েছে কেএমপির আড়ংঘাটা থানা পুলিশ। এ ঘটনা জানাজানি হয়ে গেলে খুলনার পুলিশ প্রশাসনের মাঝে তোড়পাড় সৃষ্টি হয়েছে।

নির্ভরযোগ্য সুত্র জানায়, শনিবার সকাল ৯টার দিকে আড়ংঘাটা বাইপাস সড়কে দায়িত্ব পালনকালে আড়ংঘাটা থানার এসআই হাফিজুর রহমান একটি প্রাইভেটকারকে (খুলনা মেট্রো-গ-১১-০২৬৬) চ্যালেঞ্জ করে ছয় বোতল ফেন্সিডিলসহ কাস্টমস বিভাগের দুই কর্মকর্তাকে আটক করে। পরবর্তীতে এসআই হাফিজুর রহমান খবর দেয় এসআই মিজানুর রহমানকে। দু’জনে মিলে রাস্তায় বসেই দেনদরবার শুরু করে। এসআই হাফিজ ও মিজান মিলে ওই কাস্টমস কর্মকর্তাদের কাছে পাঁচ লাখ টাকা উৎকোচ দাবি করে। কিন্তু ওই কর্মকর্তারা পুলিশের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাদেরকে আড়ংঘাটা থানায় নিয়ে যায়। থানায় নিয়ে মামলা দেয়ার ভয় দেখালে ওই দুই কর্মকর্তা দুই লাখ টাকার বিনিময় ছাড়া পায়। 

এ ব্যাপারে কাস্টমস কর্মকর্তার মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, রেন্ট এ কারের ওই গাড়িতে ফেন্সিডিল ছিলো। যেটা আমাদের জানার কথা না। পুলিশ আমাদের থানায় নিয়ে যাওয়ার পরে ওসি পরিচিত হওয়ায় আমাদের ছেড়ে দেন। তিনি বলেন, তার সাথে তার অধিনস্ত একজন কর্মকর্তা ছিলেন। পুলিশ টাকা নেয়নি বলে তিনি দাবি করেন। 

এদিকে এসআই হাফিজুরের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, এমন কোন ঘটনাই ঘটেনি। কাস্টমস কর্মকর্তা স্বীকার করলেও আপনি কেন এড়িয়ে যাচ্ছেন প্রশ্ন করলে এসআই হাফিজ বলেন, ওসি টাকা নিয়েছে কিনা আমি জানি না। তার সাথে যোগাযোগ করেন।

 

এ ব্যাপারে আড়ংঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাছিম খান বলেন, দুই কাস্টমস কর্মকর্তা বহনকারী গাড়ী আটক করে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে তবে তাদের টাকার বিনিময় ছেড়ে দেয়া হয়েছে তা ঠিক নয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ