ঢাকা, বুধবার 22 February 2017, ১০ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

প্রত্যেক নবীকে তার মাতৃভাষায় প্রেরণ করা হয়েছে

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন প্রধান, আমীরে শরীয়ত মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হুজুর  বলেছেন, প্রত্যেক নবীকে তার মাতৃভাষায় প্রেরণ করা হয়েছে এবং আল্লাহ প্রদত্ত আসমানি কিতাবও নবীগণের স্বীয় মাতৃভাষায়ই নাযিল করা হয়েছে, যাতে তারা সহজে বুঝতে পারেন এবং জাতিকে বুঝাতে পারেন। এ ধারাবাহিকতায় আমাদের নবী মুহাম্মাদ সা. এর উপরও আরবিতেই কুরআন নাযিল করা হয়েছে, যেন তিনি তার কওমকে সহজে কুরআন বুঝাতে পারেন। এতে মাতৃভাষার গুরুত্ব বুঝা যায়। মানুষ যদি তার মাতৃভাষায় পারদর্শী না হয় সে কুরআন নিজে বুঝলেও আল-কুরআনের আলো দ্বারা নিজ জাতিকে আলোকিত করতে পারবে না। তাই যারা আমাদের মাতৃভাষা বাংলাভাষাকে প্রতিষ্ঠিত করতে জীবন উৎসর্গ করেছেন তাদের অবদান চির স্বরণীয় হয়ে থাকবে। তাদের শাহাদাতের বদৌলতেই আজ আমাদের মাতৃভাষা বাংলাভাষা রাষ্ট্রিয়ভাবে প্রতিষ্ঠিত। কিন্তু আমরা এতই উদাসীন যে এ দিবসটিকেও বিজাতীয় ভাষায় পালন করি।
গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টায় রাজধানী ঢাকার কামরাঙ্গীরচর জামিয়া নুরিয়া মাদরাসায় ভাষা শহীদদের স্মরণে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের উদ্যোগে আলোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মাওলানা সোলায়মান নোমানী, মাওলানা ফারুক আহমাদ, মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, মাওলানা সাজেদুর রহমান ফয়েজী, মাওলানা সুলতান মহিউদ্দিন, মাওলানা সানাউল্লাহ,  মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী, মাওলানা ইলয়াছ মাদারিপুরী ও মাওলানা আকরাম হুসাইন প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ