ঢাকা, শুক্রবার 24 February 2017, ১২ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

দুই ধাপে বাড়লো গ্যাসের দাম 

কামাল উদ্দিন সুমন: দুই বছরের মাথায় আবারো বাড়ল গ্যাসের দাম। ভোক্তা পর্যায়ে দুই ধাপে গ্যাসের বাড়তি দাম গতকাল বৃহস্পতিবার ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। এবার গ্যাসের দাম ২২ দশমিক ৭ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। গ্যাসের বাড়তি দাম দুই ধাপে কার্যকর হবে। সে অনুযায়ী, আগামী মার্চ থেকে আবাসিক খাতে দুই চুলার জন্য ৮০০ এবং এক চুলার জন্য ৭৫০ টাকা করা হয়েছে। দ্বিতীয় ধাপে জুন থেকে আবাসিক খাতে দুই চুলার জন্য ৯৫০ এবং এক চুলার জন্য ৯০০ টাকা করা হয়েছে। এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) সাংবাদিক সম্মেলনে এসব তথ্য জানায়।

হঠাৎ করেই সাংবাদিক সম্মেলনের ডাক দেয় বিইআরসি। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিতে সাংবাদিক সম্মেলন করে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। এসময় বিইআরসির চেয়ারম্যান মনোয়ার ইসলাম, সদস্য আবদুল আজিজ খান, রহমান মুরশেদ, মিজানুর রহমান ও মাহমুদুল হক ভূইয়া উপস্থিত ছিলেন।

 বিইআরসির চেয়ারম্যান মনোয়ার ইসলাম বলেন, মানুষের পকেটের উপর যাতে চাপ না পড়ে সেজন্য দুই দফায় বাড়ানো হয়েছে। কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে ৯৪.০৯ শতাংশ হারে বাড়ানোর আবেদন ছিল। আমরা পর্যালোচনা করে দুই দফায় ২২.০৭ শতাংশ হারে বাড়িয়েছি।

সূত্র জানায়, বর্তমানে আবাসিকে দুই চুলার জন্য ৬৫০ ও এক চুলার জন্য ৬০০ টাকা দিতে হয়। ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর সর্ব শেষ গ্যাসের দাম বাড়ায় বিইআরসি। দাম বৃদ্ধির জন্য পেট্রোবাংলার প্রস্তাবের ওপর গণশুনানি হয়। শুনানি শেষে বিইআরসি আবাসিক খাতে দুই চুলার জন্য ১ হাজার এবং এক চুলার জন্য ৮০০ টাকা প্রস্তাব করে। আর যানবাহনে ব্যবহৃত সিএনজির দাম প্রতি ঘনমিটার ৪০ টাকা প্রস্তাব করে। তবে সিএনজি প্রতিঘনমিটার প্রথম ধাপে ৩৮ টাকা এবং দ্বিতীয় ধাপে ৪০ টাকা করা হয়েছে।

বিদ্যুতে বর্তমানে প্রতি ঘনমিটার ছিল ২টাকা ৮২ পয়সা। এখন প্রথম ধাপে ২টাকা ৮২ পয়সা এবং দ্বিতীয় ধাপে ৩টাকা ১৬ পয়সা করা হয়েছে। ক্যাপটিভ পাওয়ারে ১ মার্চ থেকে ৮ টাকা ৯৮ পয়সা এবং ১ জুন থেকে ৯ টাকা ৬২ পয়সা। সার বর্তমানে ২টাকা ৫৮ পয়সা। পহেলা জুন থেকে প্রথম ধাপে ২টাকা ৬৪ পয়সা দ্বিতীয় ধাপে ২ টাকা ৭১ পয়সা করা হয়েছে। 

শিল্পে এখন আছে ৬টাকা ৭৪ পয়সা। বর্ধিত দামে প্রথম ধাপে ৭টাকা ২৪ পয়সা দ্বিতীয় ধাপে ৭ টাকা ৭৬ পয়সা। চা বাগানে এখন আছে ৬টাকা ৪৫পয়সা। বর্ধিত দামে প্রথম ধাপে ৬টাকা ৯৩ পয়সা দ্বিতীয় ধাপে ৭ টাকা ৪২ পয়সা। বাণিজিকে এখন আছে ১১ টাকা ৩৫পয়সা। বর্ধিত দামে প্রথম ধাপে ১৪ টাকা ২০ পয়সা দ্বিতীয় ধাপে ১৭ টাকা ০৪ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। 

সর্বশেষ ২০১৫ সালের ১ অগাস্ট গ্যাসের দাম গড়ে ২৬ দশমিক ২৯ শতাংশ বাড়িয়েছিল বিইআরসি। গ্যাসের দাম বাড়ানোর জন্য রাষ্ট্রায়ত্ত বিভিন্ন বিতরণ কোম্পানির প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ৭ থেকে ১৮ আগস্ট পর্যন্ত গণশুনানি হয়। এর ভিত্তিতেই নতুন দামের ঘোষণা এলো। দাম বাড়ানোর জন্য পেট্রোবাংলার প্রস্তাবের ওপর গণশুনানিতে বিইআরসি আবাসিক খাতে দুই চুলার জন্য ১ হাজার এবং এক চুলার জন্য ৮০০ টাকা প্রস্তাব করে। আর যানবাহনে ব্যবহৃত সিএনজির দাম প্রতি ঘনমিটার ৪০ টাকা প্রস্তাব করে। ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর থেকে বর্ধিত এই দাম কার্যকর করে বিইআরসি। আগে দুই চুলার জন্য ৪৫০ টাকা এক চুলার জন্য ৪০০ টাকা দেয়া হতো।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ