ঢাকা, শুক্রবার 24 February 2017, ১২ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

 রাস্তা থেকে হাফেজ্জী হুজুরের নাম মুছে দেয়ার পরিণাম শুভ হবে না -মুজিবুর রহমান হামিদী

 

তওবার রাজনীতির প্রবর্তক, যুগশ্রেষ্ঠ ও বিশ্ববরেণ্য বুজুর্গ, এদেশের কোটি কোটি মানুষের আস্থাভাজন ও শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব, রাজনৈতিক ও আধ্যাতিক নেতা, আলেমকুল শিরোমণি, আমীরে শরীয়ত মাওলানা মুহাম্মাদুল্লাহ হাফেজ্জী হুজুরের নাম রাস্তা থেকে মুছে দেয়ার সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর ও ঢাকা মহানগরীর আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী বলেছেন, হাফেজ্জী হুজুরের নাম রাস্তা থেকে মুছে দেয়া এবং হাইকোর্টের সামনে মূর্তি স্থাপন করা একই সূত্রে গাথা। একটি কুচক্রী মহল দেশকে নাস্তিকায়ন করার জন্যই বিভিন্ন রাস্তা থেকে আলেমদের নাম মুছে দেয়া এবং হাহাইকোর্ট ও জাতীয় ঈদগাহের মত গুরুত্বপূর্ণ স্থানে মূর্তি স্থাপন করা হচ্ছে। এটা মূলত ইসলাম ও ওলামায়ে কেরামের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও দূরভিসন্ধিমূলক ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত। তিনি অবিলম্বে হাফেজ্জী হুজুরের নামে রোডের নাম বহাল রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার শাখার এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। জেলা আহ্বায়ক হাফেজ মাওলানা আবুল কাসেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন মাওলানা আনোয়ার হোসাইন, মাওলানা কামাল উদ্দিন, মাওলানা আল আমিন খান, হাফেজ মাওলানা ওলিউল্লাহ, মুফতি জিয়াউদ্দিন ও মাওলানা হেলাল উদ্দিন প্রমুখ।

মাওলানা হামিদী আরো বলেন, হাফেজ্জী হুজুর ছিলেন সকল মানুষের শ্রদ্ধার পাত্র। স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, বিচারপতি আবু সাঈদ চৌধুরী, অধ্যাপক ডক্টর বদরুদ্দৌজা চৌধুরী, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুস সামাদ আজাদসহ সকল বরেণ্য ব্যক্তিরাই হযরত হাফেজ্জী হুজুরকে (রহ.) শ্রদ্ধা করতেন এবং তার সান্নিধ্যে আসতেন ও দোয়া নিতেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীও হাফেজ্জী হুজুরকে (রহ.) শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তার জীবদ্দশায় তার কাছে দোয়া নিয়েছেন এবং তিনি তাকে নানা বলে সম্বোধন করতেন, হাফেজ্জী হুজুরের ইন্তিকালের পর তিনি হুজুরের বাসবভনে আসেন এবং সমবেদনা জানান। আওয়ামী লীগ নেতা, ঢাকা সিটির সাবেক মেয়র মুহাম্মদ হানিফ বিশ্ববরেণ্য ব্যক্তিত্ব গণমানুষের ধর্মীয় রাহবার আমীরে শরীয়ত মাওলানা মুহাম্মদুল্লাহ হাফেজ্জী হুজুরের নাম চিরস্মরণীয় করে রাখার জন্য রাজধানীর গোলাপ শাহ মাজার থেকে রোডের নামকরণ করেছেন “মাওলানা মুহাম্মদুল্লাহ হাফেজ্জী হুজুর সড়ক”।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার ৪৫ বছর পর আজ যারা হযরত হাফেজ্জী হুজুরের (রহ.) নাম স্বাধীনতা বিরোধীদের তালিকায় দিয়ে হাইকোর্টে মামলা করেছে তারা অর্বাচিন, ইতিহাস সম্পর্কে অজ্ঞ এবং ইসলাম ও আলেম বিদ্বেষী। হাফেজ্জী হুজুরকে নিয়ে কোনো ধরনের চক্রান্ত দেশের ইসলামপ্রিয় জনতা সহ্য করবে না। ঘাদানিক নেতা শাহরিয়ার কবির, মুনতাসির মামুন গংরা ইসলাম ও আলেম সমাজের সুনাম ও গৌরবময় ইতিহাস সহ্য করতে না পেরে জাতিকে বিভক্ত ও বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে। দেশপ্রেমিক নামধারী একটি ইসলামবিদ্বেষী কুচক্রী মহল এদেশের গোটা আলেম সমাজকে ঢালাওভাবে স্বাধীনতাবিরোধী প্রমাণে মরিয়া হয়ে উঠেছে। এটা মূলত ইসলামপ্রিয় জনতার সাথে সরকারের বিরোধ বাধিয়ে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির সুক্ষ্ম ষড়যন্ত্র। এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সকলকে সোচ্চার হতে হবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ