ঢাকা, রোববার 26 February 2017, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রড-কনক্রিট ছাড়াই কাঠের ১৪তলা ভবন

২৫ ফেব্রুয়ারি, ইন্টারনেট : বহুতল ভবন মানেই রড আর কনক্রিটের  সংমিশ্রণ। বিস্ময়কর হলেও সত্য, নরওয়ে এবার রড কনক্রিট ছাড়াই শুধু কাঠ দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে ১৪ তলা বহুতল ভবন। ট্টি হাউজ নামের এমন ভবনে আধুনিক প্রযুক্তির নির্মাণ কৌশলের কোনো ঘাটতি নেই। বাড়ি তৈরির আদিম উপাদান কাঠ। এতো দিন ছোট খাটো স্থাপনা নির্মাণেই এর ব্যবহার দেখা যেতো। তবে কাঠের যে বহুতল ভবনও নির্মাণ করা যায় তা হাতে কলমে দেখিয়ে দিয়েছেন নরওয়ের প্রকৌশলীরা। এমনকি ১৭৩ ফুট উঁচু ভবনের পিলারও নির্মাণ করা হয়েছে কাঠ দিয়ে।
সব কিছু কাঠের নির্মাণ হলেও নেই আধুনিক কোন সুযোগ সুবিধার অভাব। প্রকৌশলীরা জানান, এই ঘরে ঘুমানো খুবই আরাম দায়ক, বুঝাই যাবে না যে এটি কাঠের তৈরি। তাদের দাবি, কনক্রিটের তৈরি স্থাপনার চেয়ে অনেক বেশি টেকসই এই ভবন।
কাঠের বৈশিষ্ট্যের কারণে আগুন লাগার ভয় ছিল অনেকের, সে শঙ্কাও দূর করেছেন প্রকৌশলীরা। ট্রি হাউজের প্রধান প্রকল্প ব্যবস্থাপক ওলে হারম্যান ক্লেপ্লি জানান, কাঠের তৈরি ভবনের কলামগুলো আগুনে পুড়বে না। কারণ এগুলো যথেষ্ট পুরু। ভবনের প্রতিটি কাঠেই অগ্নি প্রতিরোধক রঙের প্রলেপ দেওয়া আছে। ফলে অগ্নিকাণ্ডের বিচারে নরওয়ের সব চেয়ে নিরাপদ ভবন এটি। ওলে হারম্যান ক্লেপ্লি আরও জানান, কনক্রিটের তৈরি ভবনের চেয়ে এর নির্মাণ প্রক্রিয়াও সহজ। নরওয়ের সাফল্যে অনুপ্রাণিত হয়ে বহুতল কাঠের ভবন নির্মাণ হচ্ছে যুক্তরাজ্য, অস্ট্রিয়া, কানাডাসহ অনেক দেশে।
অবশ্য কাঠের বহুতল ভবন কতটা পরিবেশ বান্ধব, আছে তা নিয়েও প্রশ্ন। অনেকেই বলছেন, কাঠের যোগান দিতে গিয়ে উজাড় হবে বন। পরিবেশের ক্ষতি হবে আরও বেশি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ