ঢাকা, বুধবার 01 March 2017, ১৭ ফাল্গুন ১৪২৩, ০১ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সরকার অযৌক্তিকভাবে গ্যাসের দাম বাড়িয়ে গণদুর্ভোগ সৃষ্টি করছে

স্টাফ রিপোর্টার: দফায় দফায় গ্যাসের মূল্য অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধির সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে এবং বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবিতে গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর দুই স্পটসহ দেশব্যাপী বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। রাজধানীতে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভে জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও  ঢাকা মহানগরী উত্তরের সেক্রেটারি ড. মুহা. রেজাউল করিম বলেছেন, জনমত ও বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ উপেক্ষা করে সম্পূর্ণ অযৌক্তিকভাবে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি প্রমাণ করে সরকার জনগণের কল্যাণের চেয়ে নিজেদের আখের গোছাতেই ব্যস্ত। মূলত এই গণবিরোধী সরকারের ক্ষমতায় থাকার কোনো অধিকার নেই। তাই গণবিচ্ছিন্ন সরকারের ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি গ্যাসের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার করতে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান। অন্যথায় সরকারকে গণরোষের মুখোমুখি হতে হবে।

গতকাল কেন্দ্র ঘোষিত শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচির অংশ হিসেবে জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তর আয়োজিত এক বিক্ষোভ পরবর্তী সমাবেশে তিনি একথা বলেন। বিক্ষোভ মিছিলটি ১০ নং গোলচত্বর থেকে শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ১১নং গিয়ে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহকারী সেক্রেটারি মাহফুজুর রহমান, ঢাকা মহানগরী উত্তরের কর্মপরিষদ সদস্য মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন, ঢাকা মহানগরী উত্তরের মজলিসে শূরা সদস্য মুস্তাফিজুর রহমান, অধ্যাপক আনোয়ারুর করিম, আবুল হাসান, আশরাফুল আলম, এডভোকেট ইব্রাহিম খলিল, আলাউদ্দীন মোল্লা,  নাসির উদ্দীন ও আব্দুস সাকী এবং ছাত্রনেতা আব্দুল আলীম প্রমুখ।

ড. রেজাউল করিম বলেন, সরকার দেশ পরিচালনায় সার্বিকভাবে ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের  ব্যর্থতার কারণেই গণদুর্ভোগ এখন চরমে ওঠেছে। সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধি না পেলেও দ্রব্যমূল্য পরিস্থিতি এখন লাগামহীন। উপর্যুপরি জনগণের ওপর একের পর এক করের বোঝা চাপিয়ে অনির্বাচিত সরকার নিজেদের রাজনৈতিক উচ্চাভিলাস ও কামনা-বাসনা চরিতার্থ করতে তৎপর। মূলত আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই গণদুর্ভোগ বৃদ্ধি পায় এবং দেশে দুর্ভিক্ষের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।  মূলত অনির্বাচিত ও গণবিরোধী সরকার যতদিন ক্ষমতায় থাকবে ততদিন গণদুর্ভোগ বাড়বে বৈ কমবে না। তাই দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে এই ফ্যাসিবাদী ও স্বৈরাচারী সরকারকে ক্ষমতা থেকে বিদায় করতে হবে। 

তিনি বলেন, দেশের গ্যাস খাত কোন লোকসানী বা অলাভজনক খাত নয়। বিগত অর্থবছরে পেট্রোবাংলা প্রভূত মুনাফা করলেও সরকার কোনো কারণ ছাড়াই গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি করেছে। এ বিষয়ে জনমত ও বিশেষজ্ঞ কমিটির মতামতও উপেক্ষিত হয়েছে। একদিকে সরকার রাষ্ট্রের লোকসানী খাতগুলোকে অযৌক্তিকভাবে ভর্তুকি দিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের লুটপাটের সুযোগ করে দিচ্ছে, অপরদিকে সম্পূর্ণ অনাকাক্সিক্ষতভাবে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি করে জনজীবনকে দুর্বিসহ করে তোলা হচ্ছে। এই মূল্য বৃদ্ধির ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের উৎপাদন খরচ বাড়বে। ফলে নি¤œমধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্তের মানুষের মধ্যে মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। তিনি প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে গণদুর্ভোগ থেকে রক্ষা করতে অবিলম্বে গ্যাসের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। 

ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ: গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ ও সরকারি সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে গতকাল সকালে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ। মহানগরী দক্ষিণের সহকারী সেক্রেটারি ড. এডভোকেট হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে মিছিলটি মৌচাক থেকে শুরু হয়ে মগবাজারে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। 

বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে এডভোকেট ড. মু. হেলাল উদ্দিন বলেন,  গ্যাসের দাম দফায় দফায় বৃদ্ধির ঘোষণা সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের জীবনযাত্রারমানকে আরো বিপর্যস্ত করে তুলবে। যা অগণতান্ত্রিক, অযৌক্তিক এবং গণবিরোধী। সরকারের ভুল নীতির ফলে জ্বালানি খাতে যে নৈরাজ্য সৃষ্টি হয়েছে, তার দায় জনগণের ওপর চাপানোর অপচেষ্টা হিসেবে গ্যাসের মূল্য অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি করা হয়েছে। জনগণ এই গণবিরোধী সিদ্ধান্ত কোনোভাবেই মেনে নেবে না।

তিনি আরো বলেন, এই মুহূর্তে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির যৌক্তিক কোনো কারণ নেই। কারণ যৌক্তিকভাবে বিচার করলে দেখা যাবে, আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমেছে। তেলের সাথে গ্যাসের সম্পর্ক নিবিড় হওয়ায় বরং গ্যাসের দাম কমানোই সময়ের দাবি। সেখানে সরকার দাম বৃদ্ধির যে অবান্তর সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা এদেশের মানুষ কখনই মেনে নেবে না। তিনি গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির এ অন্যায় ও অযৌক্তিক সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানান। 

বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন মহানগরী কর্মপরিষদ সদস্য শামছুর রহমান ও কামাল হোসাইন, মহানগরী শূরা সদস্য সগির বিন সাঈদ, আমিনুল ইসলাম, মতিউর রহমান, ইসলামী ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী পূর্ব সভাপতি সোহেল রানা মিঠু, মুগদা থানা জামায়াতের সেক্রেটারি বনি আমিন, সবুজবাগ থানা সেক্রেটারি আবদুল বারী ও পল্টন থানা সেক্রেটারি নূর মোহাম্মদ ম-ল প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

রাজশাহী অফিস : গ্যাসের দাম দফায় দফায় বৃদ্ধির সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে এবং অবিলম্বে তা প্রত্যাহারে দাবিতে গতকাল মঙ্গলবার জামায়াতে ইসলামী রাজশাহী মহানগরী শাখার উদ্যোগে সকালে নগরীর কোর্টবাজার এলাকায় এক বিক্ষোভ মিছিল করা হয়। 

এসময় এক সমাবেশে জামায়াতের রাজশাহী মহানগরী নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান সরকারের দফায় দফায় গ্যাসের  দাম বৃদ্ধিই প্রমাণ করে এই সরকার জনস্বার্থ ও দেশবিরোধী। দীর্ঘদিন ধরে সব ধরনের নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির ফলে সাধারণ মানুষ খুব দুর্ভোগের মধ্যে আছে। এ পর্যায়ে গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত সরকারের একটি হঠকারী ও জনবিরোধী পদক্ষেপ। এক বছরে দুই বার গ্যাসের দাম বাড়ানোর ফলে জনদুর্ভোগ আরও বাড়বে এবং দ্রব্যমূল্য আরেক দফা বৃদ্ধি পাবে। গ্যাসের দাম উল্লেখ করে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানান। জামায়াত নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, বর্তমান জোর করে ক্ষমতায় আসা সরকার গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির মাধ্যমে জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। অন্যদিকে গুপ্তহত্যা, হামলা ও মামলার মাধ্যমে বিরোধীদেরকে নিশ্চিহ্ন করতে চাচ্ছে। তাই বিরোধীদের গণতান্ত্রিক কর্মকা- পালনে পুলিশ বাহিনী দিয়ে বাধা দিচ্ছে এবং দমন-নিপীড়ন চালাচ্ছে। সরকার জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতাদের আটক করে ও সারা দেশব্যাপী গ্রেফতার অভিযানের মাধ্যমে জামায়াতকে রাজনৈতিকভাবে কোণঠাসা করে রাখতে চাচ্ছে। আর যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের অপবাদ দিয়ে জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষ নেতাদের একের পর এক ফাঁসির রায় কার্যকর করছে। সরকারের এসব অগণতান্ত্রিক কর্মকা-ের জন্য একদিন জবাবদিহি করতে হবে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির সরকারি সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার ও জামায়াত নেতৃবৃন্দের মুক্তির জোর দাবি করেন। 

খুলনা অফিস ঃ গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে গ্যাসের মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে খুলনা মহানগরী জামায়াতে ইসলামীর উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির মঙ্গলবার নগরীতে এ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।  

বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে নেতৃবৃন্দ গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, গ্যাসের দাম বাড়িয়ে সরকার জনগণের অর্থনৈতিক দুর্ভোগ বাড়িয়ে দিয়েছে। এ সিদ্ধান্ত দরিদ্র ও সাধারণ জনগণের জন্য মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা। সরকারের এ অন্যায় সিদ্ধান্তে দেশের গোটা অর্থনীতির ওপর বিরূপ প্রভাব পড়বে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, গ্যাসের দাম বৃদ্ধি দেশের অর্থনীতির ওপর বিরূপ প্রভাব পড়বে। সর্বস্তরের মানুষ ভয়ংকরভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। গ্যাসের দাম বাড়ানো প্রত্যেক মানুষের জীবনে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলবে। গ্যাসের দাম বাড়লে সার, বিদ্যুৎ ও শিল্পে উৎপাদনের ব্যয় বাড়বে। সিএনজির দাম বাড়লে পরিবহনের ভাড়াও বাড়বে। যার ভার শেষ পর্যন্ত পড়বে ভোক্তাদের ঘাড়েই। অবিলম্বে সিদ্ধান্ত স্থগিত করে গ্যাসের দাম কমানোর দাবি জানান বক্তারা। 

মহানগরী  নেতা আবু নাঈমের নেতৃত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন এম রহমান, আবু সাদাদ, আবু সুয়াইব, কামাল উদ্দীন প্রমুখ।

ছাত্রশিবিরের তিন নেতাকর্মী আটক : খুলনায় ছাত্রশিবিরের তিন নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে মহানগরীর টুটপাড়ার পুরনো পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন ইলাক্সের মোড় থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন- ইকবাল হোসেন (৩৩), তৈয়েবুর রহমান (২২) ও রহমত আলী (২৯)। খুলনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরীফ হোসেন জানান, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বাতিলের দাবিতে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির কর্মসূচির সমর্থনে মিছিলের প্রস্তুতি নেয়ার সময় তাদেরকে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে এ সংক্রান্ত একটি ব্যানারও জব্দ করা হয়েছে।

বরিশাল অফিস : গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বরিশাল মহানগর জামায়াত ইসলামী। গতকাল সকালে নগরীরর নথুল্লাবাদ এলাকায় এমিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে নেতৃত্বদেন জামায়াত নেতা মীর মহাবুররহমান ও মোঃ শাহজাহান। 

মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন, বর্তমান অবৈধ সরকার দফায় দফায় গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করে  জনগণের সম্পদ লুট করছে। রাষ্ট্রিয় অব্যবস্থাপনায় সরকার যখন দিশেহারা ঠিক তখনই দর্নীতির কলেবর বৃদ্ধি করতে বাবর বাবর জনগণের উপর চড়াও হচ্ছে এই অবৈধ সরকার। বিনা করণে গ্যাসের দামবৃদ্ধি করে জনগণের টাকা হাতিয়ে নিয়ে লুটপাট করাই হলো এর মূল উদ্দ্যেশ্য। জনগণের সম্পদ জনগণের কাজে ন্যাজ্য মূল্যে না দিয়ে বরং  এর মাধ্যমে জনগণকে শোষণ করা হচ্ছে। আমরা গ্যাসের এই অযৌক্তি মূল্য বৃদ্ধির তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ এবং জনবিরোধী এই অমূলক সিদ্ধান্ত অবিলম্বে বাতিলের আহবান জানাচ্ছি। সরকার যদি গ্যাসের এই অয়ৌক্তি মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণা বাতিল না করে তবে জনগণকে সাথে নিয়ে এর প্রতিবাদে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

এসময় তারা আরো বলেন, দেশ আজ নগ্ন সন্ত্রাসি ও জুলুমবাজের কবলে পড়ে মানুষের অধিকার বিপন্ন। দেশে গণতন্ত্র অবরুদ্ধ, মানুষের মৌলিক অধিকার বিঘিœত। মানুষ তাদের অধিকার ফিরে পেতে একটি পরিবর্তন চায়, আর সেই পরিবর্তনই হবে এই জালিম শাসকের পতন।

সিলেট ব্যুরো : সিলেট মহানগর জামায়াত নেতৃবৃন্দ বলেছেন- সরকার অন্যায় ও অযৌক্তিভাবে দফায় দফায় গ্যাসের মূল্য অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি জনজীবনকে দুর্বিষহ করে তুলেছে। এ অন্যায় সিদ্ধান্ত দেশের গোটা অর্থনীতির উপর বিরূপ প্রভাব ফেলবে। দরিদ্র ও সাধারণ জনগণের জীবন দুর্বিষহ হয়ে পড়বে। সরকারের এ সিদ্ধান্তে জনগণ বিক্ষুব্ধ। অবিলম্বে গণবিরোধী এই সিদ্ধান্ত বাতিল করতে হবে।

গতকাল মঙ্গলবার সিলেট মহানগর জামায়াত আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে নেতৃবৃন্দ উপরোক্ত কথা বলেন। মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- সিলেট মহানগর জামায়াতের নায়েবে আমীর মো: ফখরুল ইসলাম, সহকারী সেক্রেটারি মো: শাহজাহান আলী, জামায়াত নেতা  মোশাহিদ আহমদ, আনোয়ার হোসেন, চৌধুরী আব্দুল বাছিত নাহির ও ছাত্রনেতা নজরুল ইসলাম প্রমুখ। 

রংপুর : গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে জামায়াতে ইসলামী রংপুর মহানগরীর উদ্যোদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ সরকারের সমালোচনা করে বলেন, এই আওয়ামী অবৈধ সরকার জাতীর ঘাড়ে জগদ্দল পাথরের মতো চেপে বসে দেশে লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে। আর এই লুটপাটের অর্থ যোগান দিতেই পরিকল্পিতভাবে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির মাধ্যমে সাধারণ মেহনতী জনগণের জীবনে দুর্বিষহ সংকট সৃষ্টি করেছে। পরিবহন কৃষি উৎপাদন ও শিল্প উৎপাদন খাতকে চরমভাবে ধ্বংস করে পরিকল্পিত ভাবে পরনির্ভশীল অর্থনীতির মাধ্যমে বাংলাদেশকে ভারতের করদরাজ্যে পরিণত করার নীল নকশা বাস্তবায়নের পদক্ষেপ হিসাবেই গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির এই ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র। বাংলাদেশের মেহনতী জনতা সরকারের এই ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র মেনে নেবে না।

নেতৃবৃন্দ মেহনতী জনতার সংগে সরকারের এই তামাশা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে অবিলম্বে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত পরিহার করারদাবি জানান। বিজ্ঞপ্তি।

ফেনী সংবাদদাতা : গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার সকালে বিক্ষোভ মিছিল বের করে ফেনী শহর জামায়াতে ইসলামী। ফেনী শহরের ট্রাংক রোড থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিলে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

গাজীপুর সংবাদদাতা : গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে গাজীপুর মহানগর জামায়াতের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । মঙ্গলবার সকালে নগরীর ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ভাষা শহীদ কলেজের সামনে থেকে নগর জামায়াতের সেক্রেটারি খায়রুল হাসানের নেতৃত্বে শুরু হওয়া মিছিলটি জয়দেবপুর চৌরাস্তায় গিয়ে পথসভার মাধ্যমে শেষ হয়। পথসভায় বক্তব্য প্রদানকালে নগর সেক্রেটারি বলেন, বার বার গ্যাসের দাম বাড়িয়ে নাগরিকদের জীবন দুর্বিষহ করে তোলা হয়েছে। তিনি অযৌক্তিক মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান।মিছিলে অন্যান্যের মাঝে অংশ নেন নগর জামায়াতের সাংগঠনিক সেক্রেটারি আফজাল হোসাইন, প্রচার সেক্রেটারি 

ইরফানুল হক, মহানগর শিবির সেক্রেটারি মিজানুর রহমান, জামায়াত নেতা মোশারফ হোসেন, ছাদেকুজ্জামান খান, আশরাফ আলী কাজল, মহিউদ্দিন প্রমুখ।

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা : কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা। বন্দর থানা জামায়াতের আমীর সাঈদুর রহমানের নেতৃত্বে বিক্ষেভ মিছিলটিতে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন। এসময় উপস্থিত নেতাকর্মীরা জ¦ালানির মূল্য কমানোর দাবিতে বিভিন্ন শ্লোগান দেন এবং জ¦ালানির মূল্য বৃদ্ধিতে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন। মিছিলটি প্রায় দু’কিলোমিটার অতিক্রম করে নয়াবাড়ি এলাকায় এসে কিছুক্ষণ অবস্থান নেয় এবং নেতৃবৃন্দের সংক্ষিপ্ত বক্তব্যের মাধ্যমে কর্মসূচীর সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। 

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা : সরকার কতৃক দেশব্যাপী গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি ও তেলের মূল্য বৃদ্ধির চক্রান্তের প্রতিবাদে জামায়াতে ইসলামী চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার বিকালে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা জামায়াতের আমীর জনাব আনোয়ারুল হক মালিক,অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা সেক্রেটারি আলহাজ মোঃ রুহুল আমিন, জেলা সহকারী এ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান, পৌর আমীর এ্যাডভোকেট মাসুদ পারভেজ রাসেল প্রমুখ।

জামায়াতে ইসলামী জীবননগর উপজেলা শাখার উদ্যোগেও বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা আমীর অধ্যাপক খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা সেক্রেটারি মাওলানা ইসরাঈল হোসেন, সহকারী সেক্রেটারি মাওলানা সাজেদুর রহমান,পৌর আমীর মোঃ জিয়াউল হক,বাকা ইউনিয়ন আমীর মাওলানা হাফিজুর রহমান প্রমুখ।

এছাড়াও জামায়তের আলমডাঙ্গা উপজেলা শাখা ও দামুড়হুদা উপজেলা শাখার উদ্যোগে পৃথক পৃথক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।   

কক্সবাজার সংবাদদাতা : কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল মঙ্গলবার কক্সবাজার শহরে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে শহর জামায়াতে। শহর জামায়াতের সেক্রেটারি আবদুল্লাহ আল ফারুকের সভাপতিত্বে মিছিলোত্তর সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা জামায়াতের আমীর ও কেন্দ্রিয় মজলিশে শূরা সদস্য মাওলানা মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জেলা জামায়াতের সাংগঠনিক সেক্রেটারি শামসুল আলম বাহাদুর, অফিস সেক্রেটারি জাহেদুল ইসলাম, শহর সহকারী সেক্রেটারি মুহাম্মদ মুহসিন, ইসলামী ছাত্রশিবির জেলা সভাপতি আজিজুর রহমান, শহর সভাপতি নাছির উদ্দিন, শহর সেক্রেটারি তৈয়ব উদ্দিন, জেলা সেক্রেটারি রবিউল হাসান, জামায়াত নেতা আব্দুর রশিদ, শামসুল হুদা প্রমুখ। সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আমীর মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গ্যাসের মূল্য বাড়ানোর সরকারি সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক ও অগ্রহণযোগ্য। গণবিরোধি এ সিদ্ধান্ত পরিহার করে অবিলম্বে গ্যাসের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারে সরকারের প্রতি জোর আহবান জানান।  

চট্টগ্রাম অফিস : সরকার দফায় দফায় অন্যায় ও অযৌক্তিক ভাবে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির মাধ্যমে দরিদ্র ও সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ বাড়াচ্ছে। দেশের সচেতন মানুষ মনে করেন গ্যাসের দাম বাড়ানোর যৌক্তিকতা নেই। এটা সরকার মানুষের সাথে প্রতারণা করে অর্থনৈতিক দুঃখ-দুর্দশা তৈরির জন্য এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত না হওয়ায় জনগণের স্বার্থ রক্ষা করছে না। নেতৃবৃন্দ গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত অবিলম্বে প্রত্যাহারের জন্য সরকারের প্রতি জোরদাবি জানান।

গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে চট্টগ্রাম মহানগরীর উদ্যোগে থানায় থানায় আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে নেতৃবৃন্দ উপরোক্ত কথা বলেন।

জামায়াতে ইসলামী হালিশহর, ডবলমুরিং, সদরঘাট, চকবাজার, চান্দগাঁও ও বায়েজিদ থানার উদ্যোগে পৃথক পৃথক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ জামায়াত নেতা এ.খালেদুল আনোয়ার,আবু জাওয়াদ, এম.এ. গফুর, আবু গালিব, বেলায়েত হোসেন ও এম.জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জামায়াত নেতা ফজলে এলাহি শাহীন, আখতার, জসিম, আবু তাহের, মুহাম্মদ ইবনে হোসাইন, এস.এম. মাহমুদ ও এম.এ. হান্নান প্রমুখ। সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, দ্রব্যমূল্য আকাশ চুম্বি ও বাসা ভাড়া বৃদ্ধিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষের দাম মানুষের ক্রম ক্ষমতার বাইরে। এরপরও গ্যাসের দাম বৃদ্ধি সাধারণ জনগণের জীবন যাত্রার মানকে আরো কঠিন করে তুলেছে। দুর্নীতি, নিজেদের অপকর্ম, লুটপাট হওয়া অর্থ জনগণের কাছ থেকে বাধ্যতামূলক ভাবে আদায় করে নিজের অপকর্ম আড়াল করতে চায় সরকার। জামায়াত নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণা প্রত্যাহার করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ