ঢাকা, বুধবার 01 March 2017, ১৭ ফাল্গুন ১৪২৩, ০১ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

তারল্য সংকট না থাকায় আমানত সংগ্রহে ব্যাংকের আগ্রহ কমছে

স্টাফ রিপোর্টার : ব্যাংকগুলোর আমানত সংগ্রহের আগ্রহ আরো কমছে। বিশেষ করে প্রতিটি ব্যাংকেরই তারল্য সংকট না থাকায় এই আমানত সংগ্রহের আগ্রহ নিতান্তই কম। গ্রাহকরা এখন তাদের সঞ্চয় আমানতের উপর শতকরা ৫ ভাগেরও কম সুদ বা লাভ পাচ্ছে। 

অবশ্য সংশ্লিষ্টরা জানান, ব্যাংকে অতিরিক্ত তারল্য থাকায় আমানত সংগ্রহে আগ্রহ নেই ব্যাংকগুলোর। তাই ব্যাংকে টাকা রেখে সরকার নির্ধারিত হারের চেয়েও কম হারে সুদ পাচ্ছেন আমানতকারী। মাত্র পাঁচ শতাংশ সুদের টাকা রাখতে হচ্ছে আমানতকারীদের। এতে সঞ্চয়পত্রে চাপ বাড়ছে। তাদের স্বার্থ রক্ষায় ব্যাংকের খরচ কমাতে খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশ্লেষকরা।

এদিকে অনেকেই সুদের হার কমার ফলে স্থায়ী আমানত ভাঙ্গার কথা ভাবছেন। পাঁচ বছর আগেও, এক লাখ টাকা ব্যাংকে রেখে মাসে সুদ পাওয়া যেত ১২শ’ টাকা। আর এখন তা নেমে এসেছে ৫শ’ টাকায়। তবে এবিষয়ে চিন্তিত নয় বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো। কারণ ঋণ দিতে অতিরিক্ত তারল্য আছে সোয়া এক লাখ কোটি টাকা।

চলতি অর্থবছরে সরকার মূল্যস্ফীতির লক্ষ্য ধরেছে পাঁচ দশমিক আট শতাংশ। এই হার সেবা ও নিত্যপণ্য কিনতে ব্যক্তির যে ব্যয় হবে, তা আমানতের সুদের চেয়েও কম। ব্যাংকের অপ্রয়োজনীয় ব্যয় ও খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনা গেলে আমানতকারী সুফল পাবে বলে আশা করছেন বিশ্লেষকরা।

অন্যদিকে, বেশি সুদের কারণে সঞ্চয়পত্র কেনার দিকে ঝুঁকছে সাধারণ গ্রাহক। এতে অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসেই নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে। নিট বিক্রি হয়েছে ২৩ হাজার ৪৭৩ কোটি ৫৬ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ