ঢাকা, রোববার 05 March 2017, ২১ ফাল্গুন ১৪২৩, ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ফেব্রুয়ারি মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : [দুই]
৯ ফেব্রুয়ারি বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ ও সংঘর্ষে সজিব, সাব্বির, মনির, আরিফ ও রায়হান আহত হয়। মেহেরপুরে একটি চাঁদাবাজির মামলায় চার ছাত্রলীগ নেতাকে দু’বছর কারাদণ্ড এবং পাঁচ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড আদালত। নেতারা হলো- মেহেরপুর শহর সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি মাহফুজুর রহমান পোলেন, মেহেরপুর সরকারি কলেজ শাখা যুগ্ম-সম্পাদক তারিকুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা মাহফুজ ও শহীদুল। গত বছর ৯ সেপ্টেম্বর পাবনার এক ব্যবসায়ীর নিকট দশ হাজার টাকা চাঁদার দাবিতে তাকে মারধর করে। ঐ মামলায় তাদের এই সাজা হয়। সিলেট বিয়ানী বাজার সরকারি কলেজে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত তিনজন। উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক আবুল কাশেম পল্লব ও স্বাধীন গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে জাফর আহমেদসহ আহত তিনজন হয়। পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ছাত্রলীগের দলীয় কোন্দলে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রুবেলের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী তুষখালী বাজার খেয়াঘাটে ধানীসাপা ইউনিয়ন সভাপতি মামুনুর রশীদ পিঞ্জু শাহকে কুপিয়ে জখম করে। ১১ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামের রিয়াজ উদ্দিন বাজারের পাশে গোলাম রসুল মার্কেট এলাকায় সফিনা গলিতে টেন্ডারবাজি ও দলীয় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ছাত্রলীগ সিটি কলেজে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ইয়াসিন নামে এক কর্মী ছুরিকাঘাতে নিহত হয়। ১২ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ সিক্সটি নাইন গ্রুপ ও ভিএক্স গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে নয়জন আহত হয় এবং শাহজালাল হলের দশটি কক্ষ ভাংচুর করা হয়। পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরি বিভাগের সামনে ভিটাবাড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ ও ছাত্র সমাজের মধ্যে সংঘর্ষে সাইদুল ইসলাম, নূর আলম, সুজন হাওলাদার ও রিয়াজ আহত হয়। পুলিশ ঘটনায় অভিযুক্ত সাত জনকে আটক করে। ময়মনসিংহের নান্দাইলে চন্ডীপাশা সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষা কেন্দ্রে জোর করে প্রবেশ করায় নান্দাইল কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাফিজুর রহমান শাহানকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) তামিম আল-ইয়ামিন তাকে এক বছর কারাদ- দেয়।
১৩ ফেব্রুয়ারি পুরানা পল্টনে আওয়ামী লীগ নেতা ও নারায়ণগঞ্জের এমপি গাজী গোলাম দস্তগীরের অফিসে ছাত্রলীগ নেতা মোশাররফ হোসেন গুলীবিদ্ধ হয়। ছাত্রলীগের দলীয় কোন্দল মীমাংসার জন্য আসলে এ ঘটনা ঘটে। উল্লেখ্য, সেখানে ছাত্রলীগ নেতা আশিকের সাথে মোশাররফ গ্রুপের কথা কাটাকাটি হয়। পরে পুলিশ ১৬ ফেব্রুয়ারি মাসুদ রানা আশিককে গ্রেফতার করে। ১৪ ফেব্রুয়ারি কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধা ও প্রতিবন্ধী কোটায় পছন্দের প্রার্থী ভর্তি হতে না পারায় কোটার আহবায়ক এবং হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্যপদ্ধতি বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ডঃ শেলীনা নাসরিনের কক্ষ ভাংচুর করে ছাত্রলীগ। ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে এই হামলা ও ভাংচুর করা হয়। ১৫ ফেব্রুয়ারি ঢাকার সাভারে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি ও বিভিন্ন সময় মারধর করার দায়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এগার ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীসহ বার জনকে বহিষ্কার করে। ৩০ জানুয়ারি সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে বহিষ্কৃতরা হলো- ছাত্রলীগ আ.ফ.ম কামাল উদ্দিন হল শাখা দপ্তর সম্পাদক এস.এম শরীফ আহমেদ, কর্মী নাজমুল হুদা, জহুরুল হক, এস.এম ইমামুজ্জামান শুভ, আশিকুর রহমান, সাইদুল, মিজানুর রহমান, ইসতিয়াক আহমেদ চৌধুরী, দিবেন্দ্র বিশ্বাস দীপ, জাহিদ হাসান শিহাব, ইয়াসিন ও জাহিদুল ইসলাম নামে এক সাধারণ ছাত্রকে পরীক্ষায় নকল করার দায়ে ছাত্রত্ব বাতিল করে কর্তৃপক্ষ। ১৬ ফেব্রুয়ারি সিলেটের মুখ্য মহানগর আদালত এমসি কলেজে ৩০ জানুয়ারি প্রকাশ্যে অস্ত্রসহ ধাওয়াকারী ছয় অস্ত্রধারী ছাত্রলীগ নেতা সৌরভ আচার্য, তারেক আহমেদ, রবিউল হাসান, আলতাফ হোসেন মুরাদ ও সালমান অপু ওরফে শামসুল ইসলামের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাদার বক্স হলে দলীয় কর্মী আব্দুস সালামকে মারধর করে ছাত্রলীগ রাবি শাখা সভাপতি গোলাম কিবরিয়া গ্রুপের সদস্য সাদ্দাম হোসাইন। আব্দুস সালাম কেন্দ্রীয় নেতা সাকিবুল হাসান বাকি গ্রুপের সদস্য। হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে জনাব আলী ডিগ্রী কলেজে শিক্ষা সফরের তালিকায় নাম না রাখায় ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রাজুকে পিটিয়ে আহত করে কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদ মিয়া। পরে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুল হালিম সোহেল এক সাংগঠনিক সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদ মিয়া, শাওন, ইমদাদ, সুমন, মহিউদ্দিন ও মিঠুনকে সংগঠন থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করে।
১৮ ফেব্রুয়ারি বগুড়ার শিবগঞ্জের বন্তেঘরিতে জমি থেকে আলু তোলা নিয়ে একই এলাকার ভুলু মিয়া ও নেছার উদ্দিনের সাথে কঠা কাটাকাটি হয়। তখন ঐ পথ দিয়ে যাওয়ার সময় ছাত্রলীগ কর্মী তানজিদ রহমান প্লাবন, তার সহযোগী শিউল প্রামানিক ও আমিরুল ইসলাম দিন মজুর এমদাদ মিয়ার পথ রোধ করে ছুরিকাঘাত করে। নোয়াখালীর সেনবাগে বীরনারায়ণ গ্রামের চৌধুরীর টেক এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১টি এলজি ও ২রাউন্ড গুলীসহ ছাত্রলীগ কর্মী আফসারকে আটক করে পুলিশ। ১৯ ফেব্রুয়ারি ঝালকাঠির রাজাপুর ডিগ্রি কলেজের পাশে দশ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে ছাত্রলীগ রাজাপুর উপজেলা সভাপতি  আহসান উল্লাহ্ রুবেলের নেতৃত্বে অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ৩০-৪০ জন সন্ত্রাসী ফারুক শিকদারের বাড়ি দখল ও বসতঘর ভাংচুর করে। তাদের হামলায় সাহেরা বেগম, মান্নান হোসেন, কবিতা বেগম, সালেহা বেগম, তাসলিমা বেগম, আম্বিয়া বেগম ও আবু জাফরের স্ত্রী শারমিন বেগম আহত হয়। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত মর্মে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আহসান হাবিব রুবেল, হোসনে আরা, আবু সালেহ হাওলাদার, জামাল খলিফার স্ত্রী শারমিন বেগম ও নজরুল ইসলামকে আটক করে। ২১ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভুলতা এলাকায় ছাত্রলীগের হামলায় উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য শিলা রাণী পালের ছেলে সূর্যসহ আহত পাঁচজন। ছাত্রলীগের কালু, রুবেল, জুয়েল, ইসমাঈল, জহিরুল, ওবায়দুল, রিপন, হাবিবুল্লাহ ও সবুজসহ অন্যান্যদের হামলায় আরো আহতরা হয় রিফাত, সুমন, চঞ্চল ও শুভ। গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ফেরার পথে ছাত্রলীগের একটি অংশের হামলায় সাবেক এমপি ও আওয়াী লীগ নেতা মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের বোন আফরোজা বারীর গাড়ি (ঢাকা-মেট্রো-গ-১৩-৪২৯৪) ভাংচুর করা হয়। পরে ঘটনার সাথে জড়িত উপজেলা ছাত্রলীগ আহবায়ক ছামিউল ইসলাম ছামু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আজম মিয়া, নূর আলম ভুট্টু, সুমন মিয়া, সবুজ মিয়া, বাবলু মিয়া ও পৌর ছাত্রলীগ আহবায়ক মাইদুল ইসলামসহ ৩২ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীর নামে মামলা দায়ের করা হয়। ২২ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম নগর ভবনে কর্ণফুলী নদীর ১৪নং ঘাটের টেন্ডার নিয়ে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে অভি ও লিটনসহ দশজন আহত হয়। নগর ছাত্রলীগ সহ-সম্পাদক মামুন ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ ছাড়াও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীঘটিত পূর্ব শত্রুতার জেরে শহীদুল্লাহ্ কলা  ভবনের সামনে দলীয় কর্মী রাশেদুল ইসলামের মাথা ফাটালো ছাত্রলীগ নেতা সরওয়ারসহ চার-পাঁচজন।
২৪ ফেব্রুয়ারি চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন রাস্তায় যুবলীগ কর্মী নাফিজ আল-মামুন হেলালকে কুপিয়ে জখম করে প্রতিপক্ষ। হেলালের বড় বোন স্কুল শিক্ষিকা শাপলা আক্তার জানান, দলীয় কোন্দলে তার ভাই জখম হয়। ২৬ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ফেসবুকে উস্কানিমূলক স্ট্যাটাস দিয়ে নিজেদের মধ্যে মারামারিতে জড়িত হওয়ার দায়ে পাঁচ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মী  পিয়াস সরকার, নাসির উদ্দিন, মাহমুদুল হাসান, উফরাতুল আলম ও মির্জা খবিরকে বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। রাজশাহী সিটি কলেজে প্রকাশ্যে এক ছাত্রীকে চড় মারে ছাত্রলীগ কর্মী এজাজ ওরফে রিক। ক্লাসে মোবাইল চালালে অন্যদের অসুবিধা হয় এমন অভিযোগ করে মেয়েরা, এর সাথে ঐ মেয়েটিও অভিযোগ করলে তাকে চড় মারে এজাজ। খুলনা পাইকগাছার এমপি ও আওয়ামী লীগ নেতা শেখ নূরুল হকের ছেলে শেখ মনিরুল ইসলামের তৈরি করা দেয়াল ভেঙ্গে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মনিরুল ইসলাম আওয়াী লীগ নেতা আব্দুল আজিজের বাড়ির পাশে দশ ফুট উচ্চতায় দেয়াল তৈরি করে তাকে বাড়ি হতে বের হওয়ার পথ রুদ্ধ করে।
যুব লীগ : ৩ ফেব্রুয়ারি খুলনা জেলার ফুলতলা উপজেলার বেজেরডাঙ্গা রেলস্টেশনের পাশে যুবলীগের দলীয় কোন্দলে গুলী ও বোমা হামলায় ফুলতলা ইউনিয়ন যুবলীগ সহ-সভাপতি জনি মোল্লা খুন এবং পথচারী মাহমুদ মোল্লা আহত হয়। এই ঘটনায় উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এস.কে আলী ইয়াসিন নিহত জনিকে যুবলীগ নেতা দাবি করলেও উপজেলা সাধারণ সম্পাদক এস.এম শহীদুল্লাহ্ প্রিন্স তাকে যুবলীগের কেউ হয় বলে দাবি করে। তবে জানা যায় জনি মোল্লা স্থানীয় সালাম বাহিনীর সেকেন্ড-ইন-কমান্ড এবং বহু মামলার আসামী। ৫ ফেব্রুয়ারি কুষ্টিয়ার এক আদালত অবৈধ অস্ত্র নিজ হেফাজতে রাখায় যুবলীগ কুষ্টিয়া সদর উপজেলা যুগ্ম-আহবায়ক জেড এম সম্রাটকে দশ বছরের সশ্রম কারাদ- দেয়। ৫ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরা সদরের ধুলিহরে মৎস্য ঘেরে চাঁদার দাবিতে ঘের মালিক ছলেমান মালীকে ধুলিহর ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আজহারুল ইসলাম, আরশাদ আলী, জমির আলী, আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য মনিরুল ইসলাম, সাধন সরকার, যুবলীগ নেতা মন্টু, নাজমুল কারিকর, জাকির হোসেন, রাঙ্গা ও সাদ্দামসহ ৮-১০ জন পাঁচ লাখ টাকা চাঁদাদাবি করে, চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তাকে মারপিট, ভাংচুর ও লুটপাট করে। পরে ৬ ফেব্রুয়ারি ছলেমান মালী মামলা করে। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে আমতলা বিলে ঘের মালিক আব্দুর রশীদ ঘের পাহারা দেয়ার সময় অত্র মামলার আসামী জাকির হোসেন, সাদ্দাম ও রাঙ্গাসহ  ৮-১০ সন্ত্রাসী মাছ চুরি করার সময় আব্দুর রশীদকে কুপিয়ে হত্যা করে। ৯ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরার কলারোয়ায় সদরে দেয়াড়া দাখিল মাদরাসার সহকারী সুপার মাওলানা আতাউর রহমানকে পিটিয়ে আহত করে যুবলীগ দেয়াড়া ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক বাপ্পি খান ও তার সহযোগী ওয়াজেদ আলী। তারা আতাউরকে খোরদো বাজারে একটি ক্লাবে নিয়ে মারপিট করে। মাদরাসা পরিচালনা কমিটির নির্বাচনে হেরে গিয়ে ওয়াজেদ আলী এ ঘটনা ঘটায়।
১১ ফেব্রুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিভিন্ন দাবি নিয়ে পথ ও হাট সভা চলাকালে পাশের উপজেলা বাঞ্ছারামপুর যুবলীগ নেতা  ডিকো ও টুটুলের নেতৃত্বে হামলা করে সজিব মিয়াসহ কয়েকজন আহত হয়। ১২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগ যুগ্ম-সম্পাদক আলতাফ হোসেনকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙের দায়ে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করে যুবলীগ। ১৩ ফেব্রুয়ারি পাবনার চাটমোহরে বোঁথড়ঘাটে বড়াল নদীর উপর নির্মানাধীন ব্রিজের ঠিকাদার জাহিদুল ইসলাম মিঠুর দায়ের করা চাঁদাবাজির মামলায় যুবলীগ উপজেলা সভাপতি সাজেদুর রহমান মাস্টার ও হাবিবুর রহমান বিশ্বাস শিমুলকে আটক করে পুলিশ। ২২ ফেব্রুয়ারি কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের অফিসে যুবলীগ সদর থানা আহবায়ক আবু তৈয়ব বাদশা ও কর্মী আব্দুল হান্নানসহ অন্যান্যদের বাধায় সদর ও মিরপুরের হাট-বাজারের ইজারা সংক্রান্ত শিডিউল কিনতে পারেনি সাধারণ ঠিকাদাররা। ২৭ ফেব্রুয়ারি ফেনী সদরের নৈরাজপুর গ্রাম বাচ্চু মিয়া খন্দকারের বাড়ি থেকে যুবলীগ কর্মী জাহাঙ্গীর আলমকে ১টি বিদেশী পিস্তল, ৩ রাউন্ড গুলী, ১টি ম্যাগাজিন, ১টি ওয়ান শুটারগান, ২ রাউন্ড কার্তুজ ও ১টি গুলীসহ উদ্ধারসহ আটক করা হয়। বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে মাঝালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানিজিং কমিটি গঠন নিয়ে যুব লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি সবুজসহ আহত পাঁচজন। স্কুলের দাতা সদস্য নির্বাচন নিয়ে ডোয়াইল ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান সেজনু এবং যুবলীগ নেতা কামাল গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ও প্রধান শিক্ষিকা মাহবুবা আকারের কক্ষ ভাঙচুর করা হয়। ২৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার আশুলিয়ায় গাজীরচট বসুন্ধরা বাগানবাড়ীতে অভিযান চালিয়ে ২৪৮ পিস  ইয়াবা, ইয়াবা সেবনের ইকুইপমেন্ট,  ২টি চাইনিজ কুড়াল, ১টি ছুরি, ১টি রাম দা ও দুই নারী সালমা ও লোপা  আক্তারসহ ডজন খানেক মামলার আসামী যুবলীগ নেতা মুনসুর আলম মাদবর এবং তার সহযোগী মজিদ ও তানভীরকে আটক করে পুলিশ। 
স্বেচ্ছাসেবক লীগ : ১৫ ফেব্রুয়ারি বগুড়ার শাহজানপুরে জোড়াগাড়ী গ্রামে দিন মজুরের স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আব্দুল মজিদ, রাজি না হওয়ায় এদিন বাড়িতে একা পেয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। বিষয়টি প্রকাশ করায় গৃহস্বামীর বাড়িতে হামলা করে তছনছ করে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আব্দুল মজিদ। পরে কৌশলে ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে ইউপি সদস্য আব্দুস সালাম তাকে পুলিশে দেয়।
শ্রমিক লীগ : ২২ ফেব্রুয়ারি সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরীর গাড়িতে হামলার দায়ে সিলেট মহানগর শ্রমিক লীগ যুগ্ম-সম্পাদক মো. জাকারিয়াকে বহিষ্কার করে সংগঠনটি।
মহিলা আওয়ামী লীগ : ১৪ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামে মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে কিং অব চিটাগাং কমিউনিটি সেন্টারে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও হট্টগোল হয়। মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক তপনী সেনগুপ্তা গ্রুপের মধ্যে এই ঘটনা ঘটে। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এ.বিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী সম্মেলনস্থলে ঢুকতে গেলে প্রতিপক্ষ তাকে বাধা দেয়। অন্যদিকে মহিলা আওয়ামী লীগ নগর সাধারণ সম্পাদক তপতি সেনগুপ্তা নগর আওয়াী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ.জ.ম নাছিরের অনুসারী হওয়ায় ডেলিগেট কার্ড না দেয়ায় পুুলিশ তাকে সম্মেলনস্থলে ঢুকতে না দেয়ায় এই চট্টগোল বাধে। ২০ ফেব্রুয়ারি দিনাজপুরে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে কমিটি গঠন নিয়ে বোমাতঙ্ক, হাতাহাতি ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পরে কমিটি গঠন না করেই কাউন্সিলটি মুলতবি করা হয়। 
বিএনপি : ৮ ফেব্রুয়ারি গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও বেলকা ইউপি সদস্য সানোয়ার হোসেন বড় বাবুকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ১০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিমানবন্দর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন ও রূপনগর থানা বিএনপি নেতা মফিজুর রহমানকে আটক করে পুলিশ। ১৪ ফেব্রুয়ারি খুলনা জেলা বিএনপিতে কোন্দলে নগর অফিসে তালা দেয় প্রতিপক্ষ। তৃণমূলের মতামত না শুনে কেন্দ্র থেকে কমিটি ঘোষণা করায় এই ঘটনা ঘটে। কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে উপজেলা বিএনপির পাল্টাপাল্টি কমিটি গঠন। বিএনপি নেতা কর্নেল (অব.) আনোয়ারুল আজীম গ্রুপ ইলিয়াস পাটোয়ারীকে সভাপতি ও শরীফ হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি গঠন করলে অপর অংশ অধ্যাপক আলী মর্তুজা ভূঁইয়াকে আহ্বায়ক ও মহিবুল্লাহ্ মিলনকে সদস্য সচিব ঘোষণা করে। ১৫ ফেব্রুয়ারি ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উত্তর জেলা বিএনপি যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তাইয়েবুর রহমান হিরণকে উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে আটক করে পুলিশ। ২৬ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় থেকে ষোল বিএনপি নেতা-কর্মীকে আটক করে পুলিশ। বিএনপি ভাইস-চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর বাস ভবন থেকে তাদের আটক করা হয়। ২৮ ফেব্রুয়ারি কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে চকঘোগা গ্রাম থেকে বিএনপি কর্মী তুহীন আহমেদ ও আরজ উল্লাহকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
ছাত্র দল : ২ ফেব্রুয়ারি বান্দরবনের মানিকছড়িতে প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করায় ছাত্রলীগ নেতা মতিউর রহমানের দায়ের করা মামলায় মানিকছড়ি উপজেলা ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন কিশোরকে আটক করে পুলিশ। উল্লেখ্য, মহিউদ্দিন কিশোর টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী ভ্যান চালক ইমাম শেখকে বিমান বাহিনীতে চাকুরী দেয়ায় ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করায় এই মামলা দায়ের হয়। ২০ ফেব্রুয়ারি খুলনা জেলা ছাত্রদল সাবেক সভাপতি কামরান হাসানকে টুটপাড়ার নিজ বাসা থেকে আটক করে পুলিশ।
জামায়াত : ২ ফেব্রুয়ারি রাজধানী ঢাকার মোহাম্মদপুরে তাজমহল রোডে একটি বাড়ীতে অনুষ্ঠিত সাংগঠনিক সভা থেকে আঠাশ মহিলা জামায়াত নেতাকর্মী আটক করে পুলিশ। ৮ ফেব্রুয়ারি গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে জামায়াত নেতা ওয়াহিদুজ্জামান এসিড মুন্সীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ১০ ফেব্রুয়ারি খুলনা উত্তর জেলা জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি অধ্যাপক মিয়া গোলাম কুদ্দুস, সহকারী সেক্রেটারি ও ফুলতলা উপজেলা পরিষদ ভাইস-চেয়ারম্যান এ.টি.এম গাউসুল আজম হাদী এবং ফুলতলা সদর ইউনিয়ন জামায়াত সভাপতি আব্দুস সাত্তার গাজীকে আটক করে পুলিশ। ১১ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীর চারঘাটে চামটা গ্রামের শাহানুর আলম ও আব্দুল্লাহ্ আল-মামুন এবং দৌলতপুর গ্রামের শাবলু আলীকে আটক করে পুলিশ। ১৭ ফেব্রুয়ারি যশোর জেলার ঝিকরগাছা থেকে জামায়াতে ইসলামীর তিন কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যক্ষ ইজ্জত উল্লাহ্, মুবারক হোসাইন ও মাওলানা আজিজুর রহমানকে আটক করে পুলিশ। ২০ ফেব্রুয়ারি নওগাঁর রাণীনগরে পরাইল ইউনিয়ন জামায়াত সভাপতি আব্দুল মতিনকে পুলিশ আটক করে। ২১ ফেব্রুয়ারি ঠাকুরগাঁও জেলা জামায়াতের আমীর মাওলানা আব্দুল হাকিমকে আটক করে সাদা পোশাকের পুলিশ। কিন্তু পুলিশ তার আটকের কথা স্বীকার করেনি। কুড়িগামের ভুরুঙ্গামারীর বাউশমারী জামে মসজিদ থেকে পুলিশ তেত্রিশ জামায়াত নেতাকর্মীকে আটক করে। আটককৃতরা হলো- উপজেলা জামায়াত আমীর আজিজুল হক, সেক্রেটারি আব্দুল বারী, ভুরুঙ্গামারী ইউপি জামায়াত সেক্রেটারি আমজাদ হোসেন, পাথরডুবি ইউপি জামায়াত সভাপতি আব্দুল আজিজ, জয়মনিরহাট ইউপি জামায়াত সেক্রেটারি  আবুল কাশেম, নূরুল ইসলাম, আবু সালেহ, গোলাপ উদ্দিন, ফরিজুল হক, আলী আজগর, আইয়ুব আলী, লিয়াকত আলী, নূরুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, রেজাউল করীম, নজরুল ইসলাম (৬০), রফিকুল ইসলাম, হারুনুর রশীদ, মকবুল হোসেন, নূর আলম, নজরুল ইসলাম(৩৫), আব্দুল হামিদ মিয়া, আব্দুল বারী, জালাল উদ্দিন, ইমান আলী, নজরুল ইসলাম (৪০), তাইফুর রহমান, হাবিবর রহমান, নবিবর রহমান, সাইদুর রহমান, আলী আকবর ও আব্দুল করীম। ২২ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ মিজমিজি এলাকা থেকে তিন জামায়াত-শিবির কর্মী আবুল কাশেম, ইরফান ও মফিজুল ইসলামকে আটক করে পুলিশ। দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় মহিলা জামায়াতের সাংগঠনিক সভা থেকে ছয় মহিলা কর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- রাবেয়া সুলতানা, জামেনা বেগম, রহিমা খাতুন, মৌলিদা, রাবেয়া বসরী ও মাসুমা । ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার কদমতলার তুষারধারা আবাসিক এলাকায় মহিলা জামায়াতের একটি সাংগঠনিক সভা থেকে ছয় মহিলা জামায়াত কর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- জান্নাতুল কোবরা জাকিয়া, মাসুমা আক্তার, নাসরিন আক্তার, নুসরাত শারমিন, রওশন জাহান ও ফাতেমাতুজ্জোহরা। ২৭ ফেব্রুয়ারি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোস্তামপুরে উপজেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর মাওলানা আব্দুর রহমানকে তার গ্রামের বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ। ২৮ ফেব্রুয়ারি কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারি  মাওলানা বেলাল হোসেন ও আব্দুল করিমকে আটক করে পুলিশ।
শিবির : ১ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট সাবেক শিবির সভাপতি ইমাম মেহেদী ইসলামকে আটক করে পুলিশ। ১১ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ শিবির সভাপতি শিমন হোসেন, কর্মী শরিফুল ইসলাম ও রেজাউল করীম কামালকে আটক করে পুলিশ। রাজশাহীর বাঘা পুলিশ উপজেলা সাবেক শিবির প্রচার সম্পাদক আশরাফুল ইসলামকে আটক করে। ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার সাভারে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে শিবির মনে করে পাঁচ ছাত্র আব্দুল্লাহ্্ আল-তুষার, আব্দুর রহমান, জাহিদ হাসান, মামুনুর রশীদ ও রিতা আক্তারকে আটক করে র‌্যাবের হাতে সোপর্দ করে কর্তৃপক্ষ। ১৭ ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জ সদরের ষোলঘর পুরাতন জামে মসজিদ থেকে ওয়াজ করে অন্য আরেকটি ওয়াজ মাহফিলে যাওয়ার পথে সাদা পোষাকে পুলিশ সিলেট মহানগর সাবেক শিবির সভাপতি মাওলানা মাহমুদুর রহমান দেলোয়ারকে আটক করে। ২৮ ফেব্রুয়ারি খুলনা মহানগরীর টুটপাড়া থেকে ৯নং ওয়ার্ড শিবির সভাপতি  ইবকাল হোসেন ও কর্মী রহমত আলীকে রামপালের বিদ্যুত কেন্দ্র বাতিলের দাবিতে আয়োজিত মিছিল থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বগুড়া সদর উপজেলার লাহিড়ীপাড়া ইউপির চাঁনপাড়া থেকে পাঁচ শিবির কর্মী মেহেদী হাসান, শফিউল, আতিকুর রহমান, সাব্বির রহমান ও রাব্বিকে একটি সাংগঠনিক বৈঠক চলা কালে আটক করে পুলিশ।
২০ দল : ২৪ ফেব্রুয়ারি নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় ছাত্রদলের সমাবেশে পুলিশ বাধা দিলে সংঘর্ষে পুলিশসহ একুশজন আহত হয়। পরে এ ঘটনার মামলায় ২৫ ফেব্রুয়ারি পুলিশ ২০ দলের অর্ধশত নেতাকর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- নেত্রকোনা পৌর জামায়াতের সাবেক সহকারী সেক্রেটারি কাজী কামাল উদ্দিন, বারহাট্ট উপজেলা জামায়াতের সভাপতি নাজমুল হক ও জেলা যুবদল নেতা শরিফুল ইসলামসহ বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল ও জামায়াতে ইসলামীর বায়ান্ন নেতাকর্মীকে আটক করে।
জাপা : ২১ ফেব্রুয়ারি নোয়াখালীর সেনবাগে প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানানোর সময় উপজেলা জাতীয় পাটির তালেবুজ্জামান গ্রুপের হামলায় পৌর জাপা ও জনসংহতির পাঁচ নেতা আহত হয়। আহতরা হলো- সেনবাগ উপজেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক ময়জুল ইসলাম সবুজ, সেনবাগ পৌর জাপা আহ্বায়ক মো. হারুন ও জনসংহতি যুগ্ম-সম্পাদক ফখর উদ্দিনসহ পাঁচজন। গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে এমপি হওয়ার বাসনা নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনকে হত্যার অভিযোগে আটক হয় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কর্নেল (অব.) ডা. আব্দুল কাদের খান।  চট্টগ্রামের দামপাড়া পুলিশ লাইন মাঠে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন পুলিশের আইজি এ.কে.এম শহিদুল হক। উল্লেখ্য, গত ৩১ ডিসেম্বর এমপি লিটনকে হত্যা করা হয়। বিলম্বে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতা পরিষ্কার হওয়ায় এ মাসে তথ্যটি প্রকাশ হলো।
লেবার পার্টি : ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় বাংলাদেশ লেবার পার্টির মহাসচিব হামদুল্লাহ্্ আল-মাহদীকে আটক করে পুলিশ।
জেএমবি : ২০ ফেব্রুয়ারি নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে জেএমবির তিন সদস্য মোস্তফা, আবু রায়হান ওরফে হিমেল ও শরিফুল ইসলাম শাহীনকে ৭টি ধর্মীয় বই, ৪৬টি লিফলেট, ৫টি চাকু ও চাপাতি, ৫টি ককটেল, বোমা তৈরীর সারঞ্জাম ও ২টি স্কসটেপসহ আটক করে র‌্যাব-১১। ২২ ফেব্রুয়ারি নওগাঁর আত্রাইয়ে আহসানগঞ্জ রেল স্টেশন সংলগ্ন ভরতেঁতুলিয়া এলাকা থেকে জাময়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি)-র সদস্য আইচান আব্দুল্লাহ্কে আটক করে পুলিশ।
হরকাতুল জিহাদ : ২৮ ফেব্রুয়ারি রা রাজশাহী রেল স্টেশন এলাকা থেকে দুই হরকাতুল জিহাদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল-মাসুদ ম-ল ও বুলবুল রহমান বাবুকে আটক করে পুলিশ।
ইসলামী ছাত্র সমাজ : ৪ ফেব্রুয়ারি ইসলামী ছাত্র সমাজের চট্টগ্রাম অঞ্চলের প্রধান রুহুল আমিন ও টঙ্গী অঞ্চলের শীর্ষ নেতা ইউনুস আলীসহ চব্বিশজনকে আটক করে পুলিশ।
ছাত্র মৈত্রী : ৫ ফেব্রুয়ারি নড়াইল ভিক্টরিয়া কলেজ ছাত্র মৈত্রী সভাপতি আরমান সিকদারকে পুলিশ আটক করে।
[সমাপ্ত]

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ