ঢাকা, মঙ্গলবার 07 March 2017, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৩, ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

শ্রীলংকার বিপক্ষে এবার ভালো কিছু করা সম্ভব -মুশফিক

স্পোর্টস রিপোর্টার : শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ। কলম্বোর গল স্টেডিয়ামে হবে প্রথম টেস্ট। এই মাঠটি বাংলাদেশের জন্য লাকি ভেন্যূ বলা যায়। কারণ ২০১৩ সালে গলে ৬৩৮ রানের বিশাল স্কোর গড়ে ম্যাচ ড্র করেছিল বাংলাদেশ। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টে দ্বিশতক করা মুশফিক থেমেছিলেন ২০০ রানে। ১৯০ রানের চৎকার এক ইনিংস খেলেছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল। টেস্টে নিজের একমাত্র শতকটি সেই ম্যাচেই পেয়েছিলেন নাসির হোসেন। অনেক পাওয়ার সেই ম্যাচে  চোটের জন্য খেলেননি তামিম ইকবাল। অস্ত্রোপচারের জন্য পুরো সিরিজেই অনুপস্থিত ছিলেন সাকিব আল হাসান। দলের সেরা দুই তারকার উপস্থিতিতে এবার আত্মবিশ্বাস এবার আরও বেশি। তাই এই টেস্টে ভালো করতে চান অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের অধিনায়ক চান আগেরবারের চেয়ে আরো ভালো করতে। সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে তা না হওয়ার কোনো কারণও দেখেন না তিনি। প্রথম টেস্টে মাঠে নামার আগে গতকাল টেস্ট ম্যাচ নিয়ে কথা বলেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশ শ্রীলংকা প্রথম টেস্ট হবে গল স্টেডিয়ামে। শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে টার্গেট নিয়ে জানতে চাইলে মুশফিক বলেন,‘দুই দলেরই ভালো সুযোগ আছে পাঁচ দিনে রেজাল্ট বের করে নেওয়ার। আমাদের অবশ্যই ওদিকে মনযোগী হতে হবে। তারা জানে, তাদের হোম কন্ডিশনে কীভাবে খেলতে হবে, কীভাবে ফল বের করতে হবে। ওরা অস্ট্রেলিয়ার মতো চ্যাম্পিয়ন দলের বিপক্ষে ৩-০ যেটা জিতেছে এবং এটা আমাদের মাথায় রাখতে হবে। সামনে কঠিন সময় অপেক্ষা করছে এবং ইনশাআল্লাহ আমরা সবাই প্রস্তুত এ কঠিন সময়ের মুখোমুখি হওয়ার। আমরা শেষ সিরিজগুলোতে তিন-চারদিন ম্যাচে ছিলাম। আশা করব এ ম্যাচটিতে আমরা যেন পুরোপুরি প্রতিদ্বন্ধীতা গড়ে তুলতে পারি। ম্যাচের ফল আমাদের পক্ষে নিয়ে আসতে পারি সেটা আমাদের চিন্তা করতে হবে।’ গল স্টেডিয়ামে এর আগে ভালো করেছে বাংরাদেশ। ভালো করেছেন মুশফিকও। তাই মুশফিক প্রথম টেস্ট নিয়ে বলেন, ‘ভালো কিছু যখন অর্জন করা যায়, তখন খুব ভালো অনুভূতি কাজ করে। সেটা ব্যক্তিগত সাফল্য হোক বা দলগত সাফল্যই হোক না কেন। দারুণ উপভোগ্য সেই অর্জন। অতীত যদি ভালো থাকে অবশ্যই সেটা অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে। গল স্টেডিয়ামে আমাদের সাফল্য অবশ্যই আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে। ব্যক্তিগতভাবেও আমার বেশ ভালো লাগছে।’ সর্বশেস ২০১৩ সালে শ্রীলংকা সফরে শ্রীলংকা দলে ছিল কুমার সাঙ্গাকারা ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। এবার তারা নেই। এজন্য আত্মবিশ্বাস আরো বেশি থাকার কথা টাইগারদের। এটা নিয়ে জানতে চাইলে অধিনায়ক মুশফিক বলেন,‘অবশ্যই তাদের না থাকাটা বিশেষ কিছু জায়গায় আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে। কুমার সাঙ্গাকারা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস থাকার পর আমরা দলগতভাবে যে সাফল্য পেয়েছিলাম, তা ছিল সত্যিই আমাদের জন্য ইতিবাচক ও ভালো দিক। অবশ্যই  সেই পারফরম্যান্স আমাদের আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে। তবে এখানে এখন নতুন করে শুরু করতে হবে।’ এবার শ্রীলংকার এ দলটি একেবারেই নতুন। এই নতুন দল নিয়ে টাইগার অধিনায়ক বলেন,‘ওদের অ্যাটাক পুরোপুরি চেঞ্জ। রঙ্গনা হেরাথ ছাড়া এই েেটস্টে এখন পর্যন্ত আর কেউ নেই যে আমাদের বিপক্ষে খেলেছে। দলটি একেবারে তরুণ হলে বেশ ভালো করছে। ঘরের মাঠে তারা ভালো করছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় ও অস্ট্রেলিয়াতে টেস্টে না পারলেও অস্ট্রেলিয়ার মতো বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দলকে ৩-০ ব্যবধানে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারিয়েছে। ওদের বিপক্ষে ভালো করতে হবে, আমাদের অবশ্যই চ্যালেঞ্জ করতে হবে। আশা করছি আমরা ভালো করতে পারব। এবং খেলায় পূর্ণ মনোযোগ রাখতে পারব।’ গল স্টেডিয়ামের উইকেট নিয়ে মুশফিক বলেন,‘ উইকেট অবশ্যই ভিন্ন। তবে এ উইকেটেও ভালো ব্যাট করা যাবে। প্রথম দুই দিন হয়তো পেসাররা কিছু সহায়তা পেতে পারে। দিন যতই যাবে উইকেট তত ভাঙবে। স্পিনাররা তখন ভালো কিছু পেতে পারে। তারপরও আমি বলব, ভালো ব্যাটিং করা সম্ভব। বাতাসের কারণে পেসাররা বল মুভমেন্ট করতে পারবে।’ শ্রীলংকায় বাংলাদেশের সমস্যা হতে পারে সেখানকার গরম নিয়ে। মুশফিক এটা নিয়ে বলেন,‘ গতবারের তুলনায় এবার আমার যে জিনিসটি পরিবর্তন মনে হলো, এবার গরম অনেক বেশি। উইকেটে টিকে থাকার থেকেও  বেশি কঠিন হবে এখানকার গরমে টিকে থাকা। আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছি। একটা অনুশীলন ম্যাচও খেলেছি। দুই দলের জন্যই কষ্টকর হবে। তবে আশা করছি মানিয়ে নেওয়া যাবে।’ পাঁচ পেসার আছে বাংলাদেশ স্কোয়াডে। ম্যাচের একাদশ কী রকম হতে পারে? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন,‘ আমরা দুদিন আগেও দেখেছি উইকেটে ঘাস আছে। এখন ততটা নেই। আমাদেরকে যে উইকেট অফার করবে সেখানেই আমাদের  খেলতে হবে। কাল(আজ) সকালেও উইকেট দেখব। তারপর কোন পেসার, কতজন পেসার নিয়ে খেলব, সেটা সিদ্ধান্ত নিব। স্পিনার না পেসাররা বেশি সুবিধা পাবে, সেটা দেখে আমরা একাদশ সাজাব। আমাদের পর্যাপ্ত সোর্স আছে। আমরা সবাই খেলার জন্য প্রস্তুত ও ফিট।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ