ঢাকা, মঙ্গলবার 07 March 2017, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৩, ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সেন্ট্রাল জোনের বিপক্ষে দক্ষিণাঞ্চলের রানের পাহাড়

স্পোর্টস রিপোর্টার : তুষার ইমরানের ডাবল সেঞ্চুরি, শাহরীয়ার নাফিস আর মোহাম্মদ মিঠুনের সেঞ্চুরিতে রান পাহাড়ে উঠেছে আবদুর রাজ্জাকের দক্ষিণাঞ্চল (সাউথ জোন)। সেন্ট্রাল জোনের বিপক্ষে চার দিনের ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শেষে ১৮০ ওভার ব্যাট করে ৮ উইকেট হারিয়ে দলটি তুলেছে ৭০১ রান। সেন্ট্রাল জোনের হয়ে সাদমান ইসলাম ছাড়া আর সবাই বোলিং আক্রমণে এসেছিলেন।দলীয় এই স্কোরের মধ্যদিয়ে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে রেকর্ড গড়েছে সাউথ জোন। প্রথম শ্রেণির ম্যাচে এর আগে দলীয় ৫৩৭ রান করে নর্থ জোন সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড ধরে রেখেছিল। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি এই সেন্ট্রাল জোনের বিপক্ষেই ১৩৪.৫ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে দলীয় ৫৩৭ রান তোলে নর্থ জোন।রেকর্ড গড়তে বিকেএসপিতে চলমান বিসিএলের শেষ রাউন্ডের ম্যাচে সেন্ট্রাল জোনের বিপক্ষে ২১৭ রান করেন সাউথ জোনের তুষার ইমরান। ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকাতে তিনি ৩৪০ বল মোকাবিলা করেছেন। হাঁকিয়েছেন ২১টি বাউন্ডারি। ৪৫২ মিনিট উইকেটে থেকে মার্শাল আইয়ুবের বলে সাইফ হাসানের তালুবন্দী হন তিনি।এছাড়া, ১৩১ রানের দারুণ একটি ইনিংস খেলেন মোহাম্মদ মিঠুন। তার ১৮৬ বলের ইনিংসে ১৩টি চারের পাশাপাশি ছিল তিনটি ছক্কা।
১৭০ রানের আরেকটি ঝলমলে ইনিংস খেলেন শাহরীয়ার নাফিস। অপরাজিত থাকা নাফিস ২৩৮ বলে ১৪টি চারের পাশাপাশি ৫টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন।ম্যাচের প্রথম দিন ৫৭ রানে বিদায় নেন ইমরুল কায়েস। আরেক ওপেনার ফজলে মাহমুদ করেন ৩৯ রান।
দ্বিতীয় দিন ৩৪ রান করেন আল আমিন। ১০ রান আসে দলপতি আবদুর রাজ্জাকের ব্যাট থেকে। আর ২৫ রানে নাফিসের সঙ্গী হয়ে অপরাজিত থাকেন নাজমুল ইসলাম।সেন্ট্রাল জোনের হয়ে বল করেছেন ১০ জন। একমাত্র সাদমান ইসলাম ছাড়া বাকি সকলেই বল করেন। এমনকি উইকেটরক্ষক নুরুল হাসান সোহানও প্যাড-গ্লাভস খুলে বোলিং আক্রমণে এসেছিলেন। তিনটি উইকেট নেন শুভাগত হোম। দুটি উইকেট নেন তানবীর।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ