ঢাকা, বুধবার 08 March 2017, ২৪ ফাল্গুন ১৪২৩, ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

দ. কোরিয়ায় মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার স্থাপন শুরু

৭ মার্চ, বিবিসি : চীনের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া উপেক্ষা করে দক্ষিণ কোরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা স্থাপন শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন সামরিক বাহিনী। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হুমকি মোকাবেলা করার উদ্দেশ্যেই স্থাপন করা হচ্ছে টার্মিনাল হাই অ্যালটিচিউড এরিয়া ডিফেন্স সিস্টেম (থাড) নামে ‘বিতর্কিত’ এই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা।
মঙ্গলবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আন্তর্জাতিক অবরোধ লঙ্ঘন করে উত্তর কোরিয়া চারটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের পরই এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হলো।
তবে এই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়াসহ এশিয়ার অনেককেই ক্ষুব্ধ করে তুলেছে। ইতোমধ্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। তারা এটাকে এশীয় অঞ্চলে জোরপূর্বক যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক ক্ষমতা বৃদ্ধির একটি অংশ হিসেবে বিবেচনা করছে।
এমনকি দক্ষিণ কোরিয়ার অনেকেই বিশ্বাস করেন, এই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাই উত্তর কোরিয়ার টার্গেটে পরিণত হবে এবং সামরিক এলাকাগুলোর আশেপাশে থাকা মানুষদের জীবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলবে।
টার্মিনাল হাই অ্যালটিচিউড এরিয়া ডিফেন্স সিস্টেম (থাড) এমন একটি প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা যেখানে ক্ষেপণাস্ত্র আকাশে থাকা অবস্থায়ই সেটিকে ভূপাতিত করতে পারে। মূলত গতির শক্তি ব্যবহার করে ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করা হয়। এটি ২০০ কিলোমিটার দূরত্বে এবং ১৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত উচ্চতায় কাজ করতে পারে।
এর আগে গুয়াম এবং হাওয়াইয়ে থাড স্থাপন করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তখনও উত্তর কোরিয়ার হামলার সম্ভাবনার কারণেই এটি স্থাপন করা হয়েছিল বলে দাবি করে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ