ঢাকা, বুধবার 08 March 2017, ২৪ ফাল্গুন ১৪২৩, ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

প্রতিবন্ধীর জমি দখলের অভিযোগ

আমতলী (বরগুনা) সংবাদদাতা: বরগুনার আমতলী উপজেলার গাজীপুর বন্দরে শারীরিক প্রতিবন্ধী ফরিদ মোল্লার বসত জমি দখল করেছে ওই এলাকার প্রভাবশালী আশ্রাফ তালুকদার। এ অভিযোগ করেছেন প্রতিবন্ধির স্ত্রী নূপুর বেগম।
জানা গেছে, উপজেলার গাজীপুর মৌজার ১৩৪৩ নং দাগে ২৫ শতাংশ পৈতৃক জমিতে বসত ঘর নির্মাণ করে বহু বছর ধরে বসবাস করে আসছে প্রতিবন্ধী ফরিদ মোল্লা। ওই জমি সংলগ্ন খাস খতিয়ানের অকৃষি জমি রয়েছে। প্রতিবন্ধির স্ত্রী নূপুর বেগম অভিযোগ করেন, তাদের দখলীয় জমিতে ভূমি অফিসের এক শ্রেণীর দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের যোগসাজশে ২০০১ সালে আশ্রাফ তালুকদার নিজেকে ভূমিহীন সাজিয়ে এক একর জমি বন্দোবস্ত নেয়।
২০১১ সালে এ বন্দোবস্ত কেস বাতিলের জন্য প্রতিবন্ধী ফরিদ  মোল্লার বোন মাকসুদা বেগম উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে আবেদন করে। এ বিষয়টি ২০১১ সালের ২   সেপ্টেম্বর উপজেলা কৃষি খাস জমি বন্দোবস্ত কমিটির সভায় উপাস্থাপন করা হয়। ওই সভায় কেসটি বাতিল করার সুপারিশ করে। ২০১২ সালের ১৫ এপ্রিল জেলা কৃষি খাস জমি  ব্যবস্থপনা ও বন্দোবস্ত কমিটির সভায় বন্দোবস্ত কেসটি বাতিল করা হয়। ঘটনাটি দীর্ঘ ধামাচাপা থাকলেও অতি সম্প্রতি আশ্রাফ তালুকদার তার লোকজন নিয়ে ওই খাস জমিসহ প্রতিবন্ধীর রেকর্ডীয় জমিতে ঘর নির্মাণ শুরু করে। অসহায় পরিবার বিষয়টি নিয়ে এ বছর ৭ ফেব্রুয়ারি  উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে আবেদন করে। নির্বাহী অফিসার মোঃ মুশফিকুর রহমান তাৎক্ষণিক ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন।
স্থানীয় বাসিন্দা হোসেন মোল্লা ও মহিউদ্দিন জানান, ওই জমি প্রতিবন্ধী ফরিদ মোল্লাদের পৈতৃক সম্পত্তি। তার জমি ভোগ দখল করে আসছে।
নূপুর বেগম বলেন, আশ্রাফ তালুকদার জমিতে নির্মাণ করা ঘর এখনো সরিয়ে নেয়নি। উপরন্তু আমাদের জীবন নাশের হুমকি দিচ্ছে। তিনি আরো জানান, হুমকির বিষয়টি গাজীপুর পুলিশ ফাঁড়িতে জানানো হয়েছে।
অভিযুক্ত আশ্রাফ তালুকদারের ছেলে রিপন তালুকদার মুঠোফোনে, এ বিষয় কোন কথা বলবেন না বলে জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ