ঢাকা, বৃহস্পতিবার 09 March 2017, ২৫ ফাল্গুন ১৪২৩, ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আগ্রাসী ভারত চায় চুক্তি বাংলাদেশের মানুষ চায় মুক্তি -শফিউল আলম প্রধান

দিনাজপুর অফিস : জাগপা সভাপতি ও ২০ দলীয়জোটের শীর্ষ নেতা শফিউল আলম প্রধান বলেছেন, আগ্রাসী ভারত চায় সামরিক চুক্তি আর বাংলাদেশের মানুষ চায় মুক্তি। পিলখানায় নির্র্মম সেনা হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে অগণিত দেশপ্রেমিক সেনা অফিসারকে বাধ্যতামূলক অবসর দিয়ে এখন দিল্লি আমাদের জাতীয় প্রতিরক্ষাকে শৃঙ্খলিত করতে চায়। ভারত কখনো চায়নি আমাদের সেনাবাহিনী স্বাধীনভাবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াক। এ কারণে স্বাধীনতার পর পর সেনাবাহিনীর বিকল্প হিসেবে রক্ষীবাহিনী গড়ে তোলা হয়। ভারত-বাংলাদেশ প্রতিরক্ষা চুক্তির নামে এ গোলামী চুক্তির বিরুদ্ধে তিনি দেশপ্রেকি জনগণকে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান। অবৈধ সরকারকে হুশিয়ার করে দিয়ে শফিউল আলম প্রধান আরো বলেন, পিয়ারে হিন্দুস্তানের সাথে এ ধরনের চুক্তি হলে পরিণতি হবে ভয়াবহ।

গতকাল বুধবার শফিউল আলম প্রধান দিনাজপুর সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ও শশরা ইউনিয়নে পৃথক কয়েকটি স্থানে গণসংযোগ ও ২০ দলীয়জোটের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাগপা কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব রকিব উদ্দীন চৌধুরী মুন্না, যুব জাগপার কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ উদ্দীন, জেলা জাগপার সভাপতি এ্যাড. মো. নুরুন নবী, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান খোকন, শশরা ইউপি চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, আউলিয়াপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রাজ্জাক, জেলা জাগপা নেতা মাহবুব আলম ননী, মাসুদ রানা, খলিলুর রহমান, মানিক চন্দ্র রায়, জেলা যুবনেতা মো. পারভেজ, মো. আবিদ হোসেন চুন্নু, ছাত্র নেতা আলআমিন প্রমুখ। এর আগে জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান আউলিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদে পৌঁছলে সদ্য কারামুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা মো. আব্দুল রাজ্জাককে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ