ঢাকা, শুক্রবার 10 March 2017, ২৬ ফাল্গুন ১৪২৩, ১০ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

গ্রিক মূর্তি অপসারণে বিলম্ব করলে সরকারকে ভয়াবহ পরিণতির মুখোমুখি হতে হবে  -আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী

 

 হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগরী সভাপতি আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী বলেন, দেশের ৯০% মানুষ সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে স্থাপিত গ্রিক দেবীর মূর্তি বিরোধী অবস্থানে প্রতিবাদরত। তৌহিদী জনতার স্মারকলিপি, প্রতিবাদ, বিক্ষোভ সমাবেশসহ বিভিন্ন আঙ্গিকে স্বাধীন ও শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের ভাষা না বুঝে গ্রিক মূর্তি অপসারণ করতে বিলম্ব করলে সরকারকে ভয়াবহ পরিণতির মুখোমুখি হতে হবে। তৌহিদী প্রিয় জনতা দেশব্যাপী আরো কঠিন থেকে কঠিনতর আন্দোলন করতে বর্তমানে প্রস্তুত রয়েছে। ইসলামপ্রিয় জনতা মনে করে, বুকের তাজা রক্ত রাজপথে ঢেলে দিয়ে হলেও ইসলামী তাহযীব-তামদ্দুন ও ঈমান বিরোধী গ্রিক মূর্তি অপসারণ করতে হবে। সুতরাং দেশের জনগণকে কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি না করে অবিলম্বে গ্রিক মূর্তি অপসারণ করে সরকারকে ভয়াবহ পরিণতি থেকে পরিত্রাণের পথ খুঁজতে হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, এ দেশের মুসলিম জনতার আন্দোলনের ইতিহাস বাংলাদেশের বর্তমান ও অতীতের সকল সরকারের জানা আছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলনকারীরা কখনো ঘরে ফিরে যায়নি। জীবন বাজি রেখে বরাবরই মুসলমানরা রাজপথে অটল ও অবিচল ছিল। ভয়াবহ নির্যাতনের মুখেও আন্দোলনের নেতা-কর্মীরা কখনো আপোষ করেনি। হামলা-মামলা, গ্রেফতারি পরোয়ানা রাসূলপ্রেমিক জনতা কখনো পরোয়া করে না। কোনো পুরাতন মামলাকে নতুন করে জাগিয়ে তুলে গ্রিক দেবী অপসারণের আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না। মামলা ও হুলিয়া কাঁধে নিয়ে নেতারা ময়দানে ছিল আছে এবং থাকবে। গ্রিক দেবী অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন থামবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ