ঢাকা, শুক্রবার 10 March 2017, ২৬ ফাল্গুন ১৪২৩, ১০ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

তরুণরা সুযোগ পেলে অসাধ্য সাধন করতে পারে -চুয়েট ভিসি

চট্টগ্রাম অফিস : চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের উদ্যোগে গতকাল বৃহস্পতিবার চুয়েটে শুরু হয়েছে এনসিপিসি-২০১৭ শীর্ষক জাতীয় পর্যায়ে কম্পিউটার প্রোগামিং প্রতিযোগিতা। প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করেন চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম।

এ উপলক্ষে চুয়েটের কেন্দ্রিয় অডিটোরিয়ামে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের পরিচালক (ট্রনিং) জনাব মোহাম্মদ এনামুল কবির, চুয়েটের তড়িৎ ও কম্পিউটার কৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মাহমুদ আব্দুল মতিন ভূইয়া, রেজিস্ট্রার (অতি:দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী। সভাপতিত্ব করেন চুয়েটের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এনসিপিসি-২০১৭ আয়োজক কমিটির সেক্রেটারি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শামসুল আরেফিন।

প্রধান অতিথি চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, আমাদের দেশের তরুণরা সুযোগ পেলে অসাধ্য সাধন করতে পারে। তরুণদের মেধাকে শক্তিতে পরিণত করতে হবে। আমাদের মেধাবীদের বের করে আনতে হবে। তরুণদেরও অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে নিজেদের সৃষ্টিশীল ও উদ্ভাবনী চিন্তার প্রসার ঘটিয়ে যেতে হবে। বর্তমান সরকার আইসিটি সেক্টরকে গুরুত্বের সঙ্গে হাতে নিয়েছে, বাংলাদেশকে পুরোপুরিভাবে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য সরকার প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে। প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত হয়ে বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আরো উন্নতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের পরিচালক (ট্রনিং) জনাব মোহাম্মদ এনামুল কবির বলেন, তরুণদের নিয়ে আমরা অনেক আশাবাধী। দেশের ৬৫ ভাগ তরুণ তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে উন্নত বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। দেশের দিক্ষণাঞ্চলে চুয়েটে প্রথমবারের মত এ প্রতিযোগিতা হচ্ছে। 

এই ঐতিহ্যবাহী কম্পিউটার প্রোগামিং প্রতিযোগিতা প্রতি বছর দেশের যে কোন একটি বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজন করে থাকে। এতে প্রধান পৃষ্ঠপোষকতা প্রদান করে বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীনে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি)। কম্পিউটার প্রেগ্রামিং প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীদের উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে এটি দেশের সর্ববৃহৎ আয়োজন। পরবর্তী আন্তজার্তিক পর্যায়ে অঈগ-ওঈচঈ এবং ডড়ৎষফ ঋরহধষ প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীদের জন্য জাতীয় পর্যায়ে এই আয়োজন ভিত্তি হিসাবে কাজ করে থাকে। ১০ মার্চ সকাল ১০টা হতে বিকাল ৩ ঘটিকা পর্যন্ত মূল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা এবং সন্ধ্যা ৬টায় নগরীর ইন্সটিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইইবি), চট্টগ্রাম সেন্টারে সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে ২ দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতার সমাপ্তি হবে। জাতীয় পর্যায়ে এই প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতায় দেশের বিভিন্ন সরকারি এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রতিযোগীরা দলগতভাবে অংশগ্রহণ করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ