ঢাকা, শনিবার 11 March 2017, ২৭ ফাল্গুন ১৪২৩, ১১ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

হাইকোর্ট আঙ্গিনা থেকে মূর্তি অপসারণের দাবি

 

ফেনী সংবাদদাতা : হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর ও হাটহাজারী দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফি বলেছেন, মূর্তি কখনো ন্যায় বিচারের মানদ- হতে পারে না। আদালতের সামনে কেন গ্রিক মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে তা আমার বুঝে আসে না। এটা মুখে আনতেও আমার লজ্জা হয়। যেখানে আমেরিকা-ভারতে নাই সেখানে মুসলমানের দেশে কেন নারী মূর্তি আনা হল। এভাবে থাকলে আমরা বেঈমান হয়ে যাব।

তিনি গতকাল শুক্রবার ফেনী শহরের মিজান ময়দানে শানে রেসালত সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। তিনি অবিলম্বে হাইকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে মূর্তি অপসারণের জোর দাবি জানান।

তিনি আরো বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম, ইসলামে নৈরাজ্যের স্থান নেই। আমাদের দায়িত্ব ইসলামের কথাগুলোকে মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া, যুদ্ধ করা নয়। যুদ্ধ কখনো শান্তির মাধ্যম হেত পারে না। মানুষের কাছে দাওয়াত পৌঁছানই ইসলামের প্রকৃত কাজ।

সংগঠনটির জেলা সভাপতি মাওলানা আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক মাওলানা ওমর ফারুকের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন হেফাজতের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, নায়েবে আমীর ও ঢাকা মহানগরী আমীর মাওলানা নুর হোসাইন কাসেমী, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, লেখক ও গবেষক মাওলানা ওবায়দুর রহমান খান নদভী প্রমুখ।

সম্মেলনে অপরাপর বক্তারা পাঠ্যপুস্তকের সমালেচনা করে বলেছেন, সরকার পাঠ্যপুস্তক প্রণয়নের মাধ্যমে নাস্তিকদের পরামর্শ কাজে লাগিয়েছে। তবে সরকার সংশোধন করছেন এ জন্য ধন্যবাদ জানাই।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ