ঢাকা, বুধবার 15 March 2017, ০১ চৈত্র ১৪২৩, ১৫ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সৌদিতে ওমরাহ করতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের ২৭ ব্যক্তি নিখোঁজ

১৪ মার্চ, পার্সটুডে : ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে সৌদি আরবে ওমরাহ করতে গিয়ে ২৭ ব্যক্তি নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে মহারাষ্ট্রের সন্ত্রাসবিরোধী বাহিনী এটিএস। মুম্বাই ও মুর্শিদাবাদের দুই ট্রাভেল এজেন্সি যৌথভাবে ওই যাত্রীদের সৌদিতে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থাপনা করেছিল। নিখোঁজদের মধ্যে শেখ নুরুজ্জামান (৪৪) নামে এক ব্যক্তির পরিবার বলছে, উনি মুর্শিদাবাদ থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি জেদ্দার উদ্দেশে বেরিয়েছিলেন। কর্মসূচি অনুসারে তার ২২ ফেব্রুয়ারি বাসায় ফিরে আসার কথা। কিন্তু এখনো পর্যন্ত তার কোনো খোঁজ নেই।   
মুর্শিদাবাদের ট্রাভেল এজেন্সির মতে, শেখ নুরুজ্জামান ওমরাহ'র জন্য গিয়েছিলেন। কিন্তু তার পরিবারের মতে, তিনি সেখানে গিয়ে কাজ করছেন। মহারাষ্ট্র এটিএস অবশ্য এখনো পর্যন্ত এসব লোকের কোনো হদিস করতে পারেনি।
গতকাল (মঙ্গলবার) গণমাধ্যমে প্রকাশ, নিখোঁজ হওয়া ২৭ ব্যক্তি মুর্শিদাবাদের হাটপাড়া এবং ডোমকল এলাকার বাসিন্দা। ট্রাভেল এজেন্সির পক্ষ থেকে ওই ব্যক্তিদের নেতার ভিসার বিস্তারিত তথ্য, পাসপোর্টের তথ্য এটিএসকে জানিয়ে দেয়ার পরে এ নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।
যদিও ওই বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের কোনো থানায় সংশ্লিষ্ট পরিবারের পক্ষ থেকে নিখোঁজ হওয়া সম্পর্কে কোনো অভিযোগ জানানো হয়নি।  নুরুজ্জামানের স্ত্রীর দাবি, তার স্বামী জেদ্দায় কাজ করছেন এবং নিয়মিত তিনি ফোন করেন। যখন শেষবার তিনি কথা বলেছিলেন ভালো থাকার কথা জানিয়েছিলেন। তার বিশ্বাস, তার স্বামী কোনো অন্যায় কাজে লিপ্ত থাকতে পারেন না।
মুর্শিদাবাদের স্থানীয় পুলিশ সূত্রে প্রকাশ, এই এলাকা থেকে বহু মানুষ মজুরির কাজ করার জন্য সৌদি আরবের বিভিন্ন জায়গায় যায়। এদের মধ্যে অনেকেই ফিরে আসেন না।
অন্য একটি সূত্রে প্রকাশ, মুম্বাইয়ের ট্রাভেল এজেন্টদের পক্ষ থেকে এটিএসের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ ব্যাপারে তথ্য দেয়া হয় এবং ওই গ্রুপটি জেদ্দায় নির্ধারিত হোটেলে পৌঁছায়নি বলে জানানো হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ