ঢাকা, শুক্রবার 17 March 2017, ০৩ চৈত্র ১৪২৩, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

স্মিথ-ম্যাক্সওয়েল জুটিতে ভালো অবস্থানে অস্ট্রেলিয়া

চার ম্যাচ টেস্ট সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া প্রথম দিন শেষে তুলেছে ২৯৯ রান। অজিরা দলীয় ১৪০ রানের মাথায় চতুর্থ উইকেট হারালেও বিরাট কোহলির নেতৃত্বে থাকা স্বাগতিক ভারতের বিপক্ষে নিজেদের ইনিংস লম্বা করার লক্ষ্যে এগুচ্ছে অজিরা। ১৯তম সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে উইকেটে থেকে দলকে টেনেছেন দলপতি স্টিভেন স্মিথ (১১৭) আর মাত্রই চতুর্থ টেস্টে নামা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (৮২)। স্মিথ-ম্যাক্সওয়েল জুটিতে আসে অবিচ্ছিন্ন ১৫৯ রান। 

রাঁচিতে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন অজি দলপতি স্মিথ। দুই ওপেনার ম্যাট রেনশ আর ডেভিড ওয়ার্নার শুরুটা ভালো করলেও দলীয় ৫০ রানের মাথায় বিদায় নেন ওয়ার্নার। ব্যক্তিগত ১৯ রানে তাকে সাজঘরে পাঠান জাদেজা। ৪৪ রানে বিদায় নেন রেনশ। দলীয় ৮০ রানের মাথায় দুই ওপেনারকে হারায় অজিরা।এরপর দ্রুতই বিদায় নেন শন মার্শ (২)। দলীয় ৮৯ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেট হারানোর পর দলকে টানতে থাকেন পিটার হ্যান্ডসকম্ব এবং স্মিথ। ১৪০ রানের মাথায় হ্যান্ডসকম্বের (১৯) বিদায়ে চতুর্থ উইকেট হারায় সফরকারীরা। এরপর জুটি গড়ে দলকে টানতে থাকেন স্মিথ আর ম্যাক্সওয়েল। ২০১৪ সালের পর আবারো জাতীয় দলের হয়ে সাদা পোশাকে নেমেছেন ম্যাক্সওয়েল। এর আগে আরব আমিরাতে একটি আর বাকি দুটি ম্যাচ ভারতের বিপক্ষেই খেলেছিলেন। চার ম্যাচের চারটিতেই ম্যাক্সওয়েল প্রতিপক্ষ হিসেবে এশিয়ার কোনো দেশকে পেয়েছে। যার তিনটিই টিম ইন্ডিয়া। স্মিথ ক্যারিয়ারের ১৯তম সেঞ্চুরির দিন সাদা পোশাকে ৫ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন। ৯৭ ইনিংস খেলে তিনি ৫ হাজারি ক্লাবে প্রবেশ করেন, যা টেস্ট ইতিহাসে সপ্তম দ্রুততম। আর ৫৩ টেস্ট খেলতে নেমে এমন কীর্তি গড়ে স্মিথ তৃতীয় দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে রেকর্ডের বুকে নাম লেখান। স্মিথ অপরাজিত ১১৭ রানের ইনিংসটি সাজান ২৪৪ বল মোকাবেলা করে, যেখানে ছিল ১৩টি চারের মার।চতুর্থ টেস্ট খেলতে নেমে দারুণ পারফর্ম করেছেন ম্যাক্সওয়েল। ক্যারিয়ারের প্রথম অর্ধশতক হাঁকিয়ে অপরাজিত থাকেন ৮২ রান নিয়ে। তার ১৪৭ বলের ইনিংসে ছিল ৫টি চার আর ২টি ছক্কার মার। ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ