ঢাকা, শুক্রবার 24 March 2017, ১০ চৈত্র ১৪২৩, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সুপ্রিম কোর্ট নির্বাচনের  ভোট গ্রহণ শেষ

 

স্টাফ রিপোর্টার : সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের ২০১৭-২০১৮ মেয়াদের নির্বাচনের দু’ দিনব্যাপী ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। দু’দিনে ভোট দিয়েছেন ৩ হাজার ৯২৮ জন আইনজীবী। শেষ দিনে ভোট পড়েছে ১ হাজার ৯৭৮ টি। প্রথম দিনে ভোট পড়ে ১ হাজার ৯৫০টি। মোট ভোটার হলেন-৫ হাজার ৮০ জন। 

নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটির প্রধান এডভোকেট এ ওয়াই মশিহুজ্জামান জানিয়েছেন, এবারের নির্বাচনে ভোটার ছিলেন ৫ হাজার ৮০ জন সদস্য। এর মধ্যে ৩ হাজার ৯২৮ জন সদস্য ভোট দিয়েছেন। ভোটদানের হার ৭৮ শতাংশ। রাত সাড়ে ৯টা থেকে ভোট গণনা শুরু হবে। সে হিসেবে ভোট গণনা শেষে ফল ঘোষণা হবে আজ শুক্রবার ভোরে ।  

গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলে। মাঝে এক ঘন্টার বিরতি ছিল। আগেরদিন বুধবারও একই নিয়মে ভোট গ্রহণ হয়েছিল। 

সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের নির্বাচন ২০১৭-২০১৮ সালের নির্বাচনে ১৪টি পদের বিপরীতে ৩১ জন প্রার্থী হয়েছেন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপি প্যানেল ছাড়াও স্বতন্ত্রভাবে সভাপতি পদে একজন এবং সম্পাদক পদে দু’জন অংশগ্রহণ করছেন।

নীল প্যানেল থেকে সভাপতি পদে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন এবং সম্পাদক পদে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন প্রার্থী হয়েছেন। এর মধ্যে জয়নুল আবেদীন ২০১২-১৩ মেয়াদে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা। আর মাহবুব উদ্দিন খোকন টানা চতুর্থ বার সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে এবার পঞ্চমবারেরর মতো লড়ছেন। তিনি বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নির্বাচিত সদস্য।

এছাড়া সহ-সভাপতি পদে উম্মে কুলসুম বেগম (রেখা) ও ড. মো. গোলাম রহমান ভূঁইয়া, কোষাধ্যক্ষ পদে এ বি এম রফিকুল ইসলাম তালুকদার (রাজা) এবং সহ-সম্পাদক পদে কাজী জয়নাল আবদীন ও শামীমা সুলতানা (দীপ্তি) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সদস্য পদে লড়ছেন শেখ তাহসিন আলী, মো. এমাদুল হক, আয়েশা আক্তার, মো. আহসানউল্লাহ, মো. মুসাব্বির হাসান ভূঁইয়া (রোমান), মোহাম্মদ হাসিবুর রহমান ও মৌসুমী আখতার।

সাদা প্যানেল থেকে সভাপতি পদে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আবদুল মতিন খসরু ও সম্পাদক পদে আইনজীবী রবিউল আলম বুদু প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আবদুল মতিন খসরু ২০০১-২০০৬ মেয়াদের আওয়ামী লীগ সরকারের আইনমন্ত্রী, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচিত আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য ও বার কাউন্সিলের নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান। আর রবিউল আলম বুদু বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদ সুপ্রিম কোর্ট শাখার সাধারণ সম্পাদক। গত বছরের নির্বাচনে সম্পাদক পদে তিনি পরাজিত হয়েছিলেন। অন্যান্য পদের মধ্যে সহ-সভাপতি অজিউল্লাহ ও হোসনে আরা, কোষাধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম হিরু, সহ-সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ও সেলিম আজাদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আর কার্যনির্বাহী সদস্য হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কুমার দেবুল দে, এ বি এম নূরে আলম উজ্জ্বল, হাসিনা মমতাজ, রুহুল আমিন তুহিন, হাবিবুর রহমান হাবিব, মাহমুদুন্নবী উজ্জ্বল ও শেখ  মো. মাজু মিয়া।

এই দুই প্যানেলের বাইরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ইউনুছ আলী আকন্দ, সম্পাদক পদে আছেন অশোক কুমার ঘোষ ও মো. আবু ইয়হিয়া দুলাল।

নির্বাচন পরিচালনা উপ কমিটির আহ্বায়ক হলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ ওয়াই মশিহুজ্জামান। তিনি সাত সদস্যের উপ কমিটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন। কমিটির অপর সদস্যরা হলেন-বর্তমান কমিটির জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ফাহিমা নাসরিন মুন্নী, সহ-সম্পাদক শেখ সিরাজুল ইসলাম, মোকলেসুর রহমান জাহিদ, মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন, মোহাম্মদ ইলিয়াস ভূইয়া (বি এম ইলিয়াস কচি) ও মো. জাহাঙ্গীর আলম। 

নির্বাচন উপ-কমিটির আহবায়ক এ ওয়াই মশিহুজ্জামান জানান, প্রথম দিনে ১৯৫০ ভোট পড়েছে । শেষ দিনে পড়লো ১ হাজার ৯৭৮ ভোট। মোট ভোটার ৫ হাজার ৮০। তিনি বলেন, আইনজীবীরা সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করেছেন। তাদের আন্তরিক ধন্যবাদ। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ