ঢাকা, শনিবার 25 March 2017, ১১ চৈত্র ১৪২৩, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খুলনায় পিটিআই প্রশিক্ষককে গুলী করে হত্যার চেষ্টা!

খুলনা অফিস : খুলনায় প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের (পিটিআই) ইন্সট্রাক্টর মো. মাহবুব মোস্তফাকে (৩৬) হত্যার চেষ্টায় গুলী করে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দুপুর সোয়া ২টার দিকে জুমার নামায পড়ে বাসায় ফেরার পথে নগরীর পিটিআই মোড়ের সুলতানা হামিদ আলী স্কুলের বিপরীতের গলির মধ্যে এ ঘটনাটি ঘটে। দুর্বৃত্তদের একটি গুলী তার কোমরে বিদ্ধ হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি চিকিৎসকদের নিবির পর্যবেক্ষণে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশের সূত্র জানান, পিটিআই জামে মসজিদে জুমার নামায আদায় শেষে খানজাহান আলী রোডের ৭০/১নং মোঃ ওয়াহিদ হোসেনের বাড়িতে ফিরছিলেন তিনি। ওই বাড়ির দ্বিতীয় তলায় স্ত্রী আসমা উল হুসনা (বিএল কলেজের অধ্যাপক) ও একমাত্র কণ্যা শিশুকে নিয়ে বসবাস করতে তিনি। সেন্ট মার্টিনস প্যাথলজিক্যাল ল্যাবরটরির গেট দিয়ে ঢুকে গলি দিয়ে বাসায় যাওয়ার পথে সুলতানা হামিদ আলী স্কুলের বিপরীতে পৌঁছালে আচনক শব্দ শুনে পিছনে ফিরেই দুর্বৃত্তদের অভিসন্ধি বুঝতে পেরে দৌড় দেন তিনি। এ অবস্থায় দুর্বৃত্তরা পিছন দিক থেকে গুলীবর্ষণ করে। গুলীটি তার কোমরের বাম পাশে বিদ্ধ হলে ঘটনাস্থলেই ঢলে পড়েন তিনি।
আহতের ডাক-চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মোটরসাইকেলে দু’জন সন্ত্রাসী তাকে লক্ষ্য করে গুলী চালিয়েই পালিয়ে যায়।
খুলনা সদর থানার ওসি তদন্ত মো. হুমায়ুন কবির বলেন, গুলীবিদ্ধ মাহবুব মোস্তফাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার শরীরের পেছনে গুলীটি লেগেছে। ঘটনার পরপরই জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।
খুলনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম বলেন, মাহবুবকে পেছন দিক থেকে গুলী করা হয়েছে। গুলীটি তার উরুতে বিদ্ধ হয়েছে। তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি গুলীর খোসা উদ্ধার করেছে।
এদিকে খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য মুহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুলীবিদ্ধ পিটিআই প্রশিক্ষককে দেখতে যান। এসময় তিনি বলেন, ‘পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) খুলনায় অবস্থানকালীন এ ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। ঘটনাটি যারা ঘটিয়েছে তারা স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি। খুলনার সুষ্ঠু পরিবেশ অশান্ত করার অপচেষ্টা করছে তারা।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ