ঢাকা, বুধবার 29 March 2017, ১৫ চৈত্র ১৪২৩, ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিশ্বব্যাপী পরমাণু অস্ত্র নিষিদ্ধ করার বিরোধিতায় আমেরিকা ব্রিটেন ফ্রান্স

২৮ মার্চ, পার্সটুডে : জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি বলেছেন, বিশ্বব্যাপী পরমাণু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা ‘বাস্তবসম্মত’ নয়। জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে পরমাণু অস্ত্র প্রয়োজন, কারণ কিছু খারাপ দেশ আছে যাদের বিশ্বাস করা যায় না। -খবর পার্স টুডের।
এদিকে, জাতিসংঘের উদ্যোগে এ সংক্রান্ত এক আলোচনায় অংশগ্রহণ করতেই অস্বীকৃতি জানিয়েছে প্রায় ৪০টি দেশ। বিশ্বের অন্তত ১২০টি দেশের পক্ষ থেকে পরমাণু অস্ত্র নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়ে সোমবার ওই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছিল। যেসব দেশ এ আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে সেসব দেশের অন্যতম হচ্ছে আমেরিকা, ব্রিটেন ও ফ্রান্স।
নিকি হ্যালি দাবি উত্তর কোরিয়ার কথা উল্লেখ করে দাবি করেন, পিয়ংইয়ং পরমাণু অস্ত্রমুক্ত বিশ্ব গড়তে রাজি হবে বলে কেউ বিশ্বাস করবে না।
আইনগতভাবে পরমাণু অস্ত্র নিষিদ্ধ করার লক্ষ্যে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে একটি সম্মেলনের কথা গত বছরের অক্টোবরে ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু ব্রিটেন, ফ্রান্স, ইহুদিবাদী ইসরাইল, রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তাবিত চুক্তি নিয়ে আলোচনার বিরুদ্ধে ‘না’ ভোট দেয়। অন্যদিকে চীন, ভারত ও পাকিস্তান ভোটদানে বিরত ছিল। পরমাণু অস্ত্র হামলার শিকার বিশ্বের একমাত্র দেশ জাপানও এ সংক্রান্ত আলোচনার বিরোধিতা করে।
আমেরিকা এমন সময় পরমাণু অস্ত্র নিষিদ্ধ করার বিরোধিতা করে আত্মরক্ষার জন্য পরমাণু অস্ত্র প্রয়োজন বলে প্রকাশ্যে ঘোষণা করল যখন এই দেশটিই ইরানের শান্তিপূর্ণ পরমাণু কর্মসূচির বিরোধিতা করছে। নিজে পরমাণু অস্ত্র সংরক্ষণ ও ব্যবহার করলেও অন্য দেশকে বেসামরিক কাজে পরমাণু প্রযুক্তি ব্যবহার করতে দিতে রাজি নয় আমেরিকা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ