ঢাকা, বুধবার 29 March 2017, ১৫ চৈত্র ১৪২৩, ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সোনারগাঁয়ে ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে নির্যাতন

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় এক ব্যবসায়ীকে অপহৃরণ করে রাতভর নির্যাতন করার অভিযোগে মোশারফ মেম্বার ও তার একজন সহযোগীকে আটক করে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে পুলিশ ভবনাথপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে অপহৃত ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে তাদের আটক করা হয়। 

পুলিশ ও এলাকাবাসীরা জানায়, উপজেলার বারদী ইউনিয়নের আফাজউদ্দিনের ছেলে ব্যবসায়ী বিল্লাল হোসেনকে সোমবার রাতে ফুলদী এলাকা থেকে পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোশারফ হোসেনের নেতৃত্বে দুটি সিএনজি যোগে ৮/১০ জনের একটি দল তাকে জোড় পূর্বক ভাবে সিএনজিতে উঠিয়ে নিয়ে আসে। পরে রাত ১১টা দিকে মোশারফ ও তার সাথে থাকা লোকজন বিল্লাল হোসেনের পায়ে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখে রাতভর নির্যাতন চালায়। মঙ্গলবার সকালে খবর পেয়ে সোনারগাঁ থানার এএসআই আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল মোশারফ মেম্বারের অফিসে অভিযান চালিয়ে অপহৃত ব্যবসায়ী বিল্লাল হোসেনকে উদ্ধার করেন। পরে ভবনাথপুর গ্রামের একটি বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ মোশারফ হোসেনকে থানায় নিয়ে আসার সময় সে পুলিশের কাছ থেকে ছুটে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ তাকে ধাওয়া করে আটক করে। 

এ ব্যাপারে অপহৃত ব্যবসায়ী বিল্লাল হোসেন জানান, ব্যবসায়ীকভাবে লেনদেনের কারণে মোশারফ মেম্বার আমাকে জোরপূর্বক তুলে এনে তার বাড়িতে শিকল দিয়ে বেধে রাতভর মধ্যযুগীয় কায়দা নির্যাতন করে।

এ ব্যাপারে মোশারফ মেম্বার জানান, বিল্লাল হোসেনের কাছ থেকে ব্যবসায়ীকভাবে লেনদেনের টাকা পাওনা থাকায় তার কাছ থেকে আদায় করার চেষ্টা করেছি। 

এ দিকে ভুমিদস্যূ, মাদক স¤্রাট মোশারফ মেম্বারের আটকের খবর পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার পর স্বস্তির নি:শ্বাস ফেলছেন এলাকাবাসী। 

এলাকাবাসীরা জানান, মোশারফ মেম্বার এলাকায় একটি বাহিনী গড়ে তোলে আর এ বাহিনী নিরীহ মানুষের জমি দখল, মাদক ব্যবসা সহ নানা অনিয়ম করে যাচ্ছেন। পুরো এলাকাবাসী তার কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছেন। কেউ তার বিরুদ্ধে মুখ খোলার সাহস পায়না। কেউ মুখ খোলার চেষ্টা করলে তাকে পুলিশ দিয়ে হয়রানী করে মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে হুমকি দিয়ে থাকে। 

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার এএসআই আবুল কালাম আজাদ জানান, বিলাল হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীকে অপহৃরন করে মোশারফ মেম্বার তার অফিসে শিকল দিয়ে বেধে নির্যাতন চালায়। 

খবর পেয়ে মঙ্গলবার সকালে থানা পুলিশের একটি টিম মোশারফ হোসেনের অফিসে অভিযান চালিয়ে শিকল বাঁধা অবস্থায় ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করা হয়। এসময় অভিযুক্ত মোশারফ মেম্বার ও তার সহযোগী ইমান আলীকে আটক করে পুলিশ। মোশারফ হোসেনের বিরুদ্ধে সোনারগাঁ থানায় একাধিক মামলার গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ