ঢাকা, বুধবার 29 March 2017, ১৫ চৈত্র ১৪২৩, ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অনিরাপদ খাবার পানির কারণে দেশে অনেক মানুষ পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করছে

চট্টগ্রাম অফিস: অনিরাপদ খাবার পানি কারণে দেশে অনেক মানুষ পানি বাহিত রোগ বিশেষ করে ডায়রিয়া, কিডনী, মূত্রনালির প্রদাহ, জন্ডিসসহ নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যৃ বরণ করছে। কিন্তু সকলের জন্য সুপেয় পানি সরবরাহে নিয়োজিত শহরাঞ্চলে ওয়াসা, গ্রামাঞ্চলে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, পৌরসভাগুলির দায়িত্বহীন আচরণের কারণে নিরাপদ পানির অপরিণাম জীবন-এই মূল্যবান মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সরকার সকলের জন্য নিরাপদ পানির প্রাপ্যতা নিশ্চিতে নানামুখী উদ্যোগ নিলেও একাজে জড়িত সংস্থাগুলি বিশেষ করে ওয়াসা, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, সিটিকর্পোরেশন, বিএসটিআই এর মাঝে কার্যকর সমন্বয় না থাকায় ওয়াসার লাইন থেকে জার বা ড্রামে পানি ভরে নিরাপদ পানি বলে চালিয়ে দিচ্ছে একটি চক্র। অন্যদিকে গভীর নলকূপের পানি উত্তোলনে সরকারী বাধা উপেক্ষা করে একশ্রেণীর বাসা বাড়ীর মালিক ও বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠান পানি ব্যবসায় জড়িত যার কারনে ভূগর্ভস্থ পানির প্রাপ্যতা যে রকম হুমকির মুখে পড়ছে, তেমনি জলবায়ু পরিবর্তন ও পরিবেশের দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতির সম্ভাবনা বাড়াচেছ। সেখানে ওয়াসা ভূগর্ভস্থ পানির উত্তোলনের জন্য নলকূপ স্থাপনের অনুমতি দিয়ে আয় বাড়াতে ব্যস্ত। আবার নলকূপ বা ওয়াসার লাইনের পানি জারে বা ড্রামে বিক্রি করে কোটি কোটি হাতিয়ে নেয়া ড্রিংকিং ওয়াটার সাপ্লাই কোম্পানীগুলির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় মান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বিএসটিআই ও ওয়াসা কোন উদ্যোগ না নিয়ে অনিরাপদ পানি বাণিজ্যে পরোক্ষ ভাবে পৃষ্ঠপোষকতা প্রদানে নিয়োজিত। একই সাথে চট্টগ্রাম ওয়াসা রাঙ্গুনিয়া শেখ হাসিনা পানি শোধনাগার উদ্বোধন হলে চট্টগ্রাম নগরী পানি ভাসবে বলে ঘোষণা দিলেও নগরীর অধিকাংশ এলাকায় পানির জন্য এখনও হাহাকার। অধিকন্তু পুরনো ও পাইপ লিকেজের কারনে ওয়াসার সরবরাহকৃত পানি দুষিত হবার সম্ভবাবনার মাত্রা বেড়ে গেছে। ওয়াসা পানির অপচয় ও সুপেয় পানির প্রাপ্যতা নিশ্চিত না করে দাম বাড়ানোর উপর বেশ আগ্রহী। যার কারনে বর্ষায় চট্টগ্রাম নগরীতে জলাবদ্ধা ও পানি ঢুবে গেলেও সুপেয় পানির প্রাপ্যতা নিশ্চিত হয়নি। ফলে জনগনের পানির অধিকার নিশ্চিত হওয়া জরুরী এবং পানি খাতে সুশাসন নিশ্চিত ও পানি গ্রাহকদের ক্ষমতায়ন জরুরী। চট্টগ্রামে বিশ্ব পানি দিবস উযদাপন উপলক্ষে ২২ মার্চ চট্টগ্রাম নগরীর ক্যাব এর চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ে এ উপলক্ষে আলোচনা সভায় উপরোক্ত মন্তব্য করেন।
ক্যাব চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এসএম নাজের হোসাইন সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় ডিপিও জহুরুল ইসলামের সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশনেন ক্যাব চট্টগ্রাম মহানগরের সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ম সম্পাদক এএম তৌহদুল ইসলাম, জানে আলম, চান্দগাঁও থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল ফারুকী, সহ-সভাপতি আবু ্ইউনুছ, জান্নাতুল ফেরদৌস, ফারহানা জসিম, সায়মা হক, শাম্পা কে নাহার ও অধ্যক্ষ কেএম মনিরুজ্জমান প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ