ঢাকা, বুধবার 29 March 2017, ১৫ চৈত্র ১৪২৩, ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সড়ক দুর্ঘটনায় দৈনিক খুলনাঞ্চলের প্রেস ম্যানেজার নিহত

খুলনা অফিস : খুলনা মহানগরীর রূপসা সেতু বাইপাস সড়কে ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক কামরুল ইসলাম (৩০) নিহত হয়েছে। তিনি দৈনিক খুলনাঞ্চলের প্রেস এন্ড পাবলিকেশন্সে ম্যানেজার হিসেবে কাজ করতেন। সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
খুলনা মহানগরীর লবণচরা থানাধীন দারোগার লিজ এলাকার মেইন রোডের পাশে পড়ে থাকা অবস্থায় খুলনাঞ্চল প্রেস এন্ড পাবলিকেশনের ম্যানেজার মো. কামরুল ইসলামের (৩০) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৭টার দিকে স্থানীয় পথচারীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে। কিছুটা দূর থেকে কামরুলের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটিও উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত কামরুল হরিণটানা থানাস্থ খুলনাঞ্চল প্রেস এন্ড পাবলিকেশনের দীর্ঘদিন কর্মরত ছিলেন। তার পিতার নাম মো. আব্দুস সাত্তার। সে নগরীর দক্ষিণ মোল্লার পাড়ার বাসিন্দা। নিহত কামরুলের চার বছরের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।
মহানগরীর লচনচরা থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) সাইদুর রহমান জানান, সন্ধ্যা ৭টার দিকে রূপসা বাইপাস সড়ক দিয়ে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন কামরুল ইসলাম। তখন বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি মাথায় প্রচণ্ড আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে কোন বাস বা ট্রাকের ধাক্কায় তার মৃত্যু হয়েছে। তবে এখনো নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। কামরুলের লাশ তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।
খুলনার শেখ রাসেল প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের শিশু অগ্নিদগ্ধ : খুলনা মহানগরীর গল্লামারি স্মৃতিসৌধ সংলগ্ন শেখ রাসেল প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের আশ্রয়রত শিশু মিতু খাতুন (১২) অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ঘটনাটিকে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আবার তড়িঘড়ি করে তাকে হাসপাতাল থেকে রিলিজ করিয়ে নেয়া হয় বলেও অভিযোগ উঠেছে।
নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, গত ২৩ মার্চ সকাল ১১টার দিকে গল্লামারি স্মৃতিসৌধ সংলগ্ন শেখ রাসেল প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের আশ্রয়রত শিশু মিতু খাতুন (১২) অগ্নিদগ্ধ হয়। সেন্টারের দায়িত্বরত হাউজ মাদার কাজী তাসনিম তাকে দিয়ে রান্নার কাজ করার সময় চুলার আগুন (গ্যাস) থেকে সে দগ্ধ হয়। আগুনে তার এক পায়ের হাঁটুর ওপরের অংশ পুড়ে যায়। কিন্তু বিষয়টি সেন্টারের অন্য কোন কর্মকর্তাকে না জানিয়ে দ্রুত তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।
এদিকে, বিষয়টি জানাজানি হলে সেন্টারের প্যারামেডিক্স দিলরুবা ২৬ মার্চ বিকেলে হাসপাতালে গিয়ে শিশুটিকে পুরুষ ওয়ার্ডে দেখতে পায়। এ খবর পেয়ে সেন্টারের উপ-পরিচালক আবু জাফর তাকে হাসপাতালে যাওয়ার কারণে শাসায়। এছাড়া সাইকোলজিস্ট আব্দুর রাজ্জাককে দিয়েও তাকে ভয় দেখানো হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। এমনকি বিষয়টি প্রকাশের ভয়ে সোমবার বেলা ৩টার দিকে তড়িঘড়ি করে তাকে হাসপাতাল থেকে রিলিজ করিয়ে নেয়া হয়। শিশুটি এখনও পুরোপুরি সুস্থ নয় বলেও সূত্রটি জানিয়েছে। শিশু মিতু বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলা বিশরীঘাটা গ্রামের মৃত মোফাজ্জেল হোসেন এবং রানু বেগমের মেয়ে।
অপরদিকে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সেন্টারের পক্ষ থেকে গল্লামারি স্মৃতিসৌধে দেয়া ফুলের তোড়ায়ও দুর্নীতির আশ্রয় নেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অন্য একটি সংস্থার দেয়া ফুলের তোড়া সেন্টারের স্টাফ দিয়ে স্মৃতিসৌধ থেকে কুড়িয়ে এনে ওই প্রতিষ্ঠানটির নাম পরিবর্তন করে শেখ রাসেল প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের নাম লাগিয়ে পুনরায় সেটি স্মৃতিসৌধে দেয়া হয়। প্রতিষ্ঠানের উপ-পরিচালক আবু জাফরের আত্মীয় কেয়ার গিভার হেলাল উদ্দিনের নির্দেশে পুষ্পমাল্যটি আনা হয়। এছাড়া সব সংগঠনের পক্ষ থেকে সকালেই পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হলেও রহস্যজনক কারণে সেন্টারের পক্ষ থেকে বিলম্বে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তা অর্পণ করা হয়। এছাড়া অর্পণকৃত পুষ্পস্তবকটি স্মৃতিসৌধ থেকে আবার সেন্টারে ফেরতও নেয়া হয়। পুষ্পমাল্য অর্পণকালে জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তর খুলনার সহকারী পরিচালক ও আঞ্চলিক সমাজসেবা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মো. রফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।
খুলনা জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তর খুলনার উপ-পরিচালক সুকান্ত কুমার সরকার বলেন, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে তিনি ওই সেন্টারের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে শিশুদের খোঁজ খবরও নেন। কিন্তু ওই শিশুটি অগ্নিদগ্ধের বিষয়টি তাকে জানানো হয়নি। এছাড়া অর্পণকৃত পুষ্পস্তবক স্মৃতিসৌধ থেকে তুলে সেন্টারে ফেরত নিয়ে রাখার বিষয়টি তিনি দেখেছেন বলে স্বীকার করেন। তবে পুষ্পস্তবকটি স্মৃতিসৌধ থেকে কুড়িয়ে নেয়ার বিষয়টি তিনি জানেন না বলে উল্লেখ করেন। এ বিষয়ে তিনি পদক্ষেপ নেবেন বলে জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ