ঢাকা, বৃহস্পতিবার 30 March 2017, ১৬ চৈত্র ১৪২৩, ০১ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

যোগীর দেখানো পথে ভারতে আরো ৪ রাজ্যে কসাইখানা বন্ধ হলো

২৯ মার্চ, পার্স টুডে : উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের দেখানো পথে ঝাড়খ-ের পর এবার বে আইনি কসাইখানার উপর লাগাম টানল আরও চার বিজেপি শাসিত রাজ্য। জানা গিয়েছে, গত মঙ্গলবার থেকে রাজস্থান, উত্তরাখণ্ড, ছত্তিসগড় ও মধ্যপ্রদেশের অবৈধ কসাইখানাগুলি বন্ধ করে দিচ্ছে প্রশাসন। এপর্যন্ত হরিদ্বারে ৩টি ও রায়পুরে ১১টি গোশতের দোকান সিল করে দিয়েছে পুলিশ। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, জয়পুরে প্রায় ৪ হাজার বে আইনি গোশতের দোকানে তালা ঝুলিয়েছে প্রশাসন। যদিও গোশত বিক্রেতাদের অভিযোগ জয়পুর পুরসভা ২০১৬ সাল থেকেই তাদের লাইসেন্স পুনর্নবীকরণ করছে না। এছাড়াও তাদের দাবি বেশ কিছু বৈধ গোশতের দোকানও জোর করে বন্ধ করে দেয়া হয়েছ।
নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণ করে উত্তরপ্রদেশে ক্ষমতায় এসেই অবৈধ কসাইখানা বন্ধ করেছেন যোগী আদিত্যনাথ। তবে ওই বন্ধের জেরে প্রভাব পড়েছে গোশতের জোগানে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী উত্তরপ্রদেশ জুড়ে প্রায় ১৪০টি বে আইনি কসাইখানা ও প্রায় ৫০ হাজার অবৈধ মাংসের দোকান রয়েছে। এছাড়াও, এই পদক্ষেপের জেরে রাজ্যের গোশত ব্যবসা ক্ষতির মুখে পড়েছে বলে দাবি জানিয়েছেন বিরোধীরা। এ নিয়ে লোকসভায় যোগী সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছিলেন কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী। ইউপি সরকারকে কটাক্ষ করে তিনি বলেছিলেন এবার চিড়িয়াখানার বাঘ, সিংহদের পালক-পনির খেয়ে থাকতে হবে। তবে দেশজুড়ে গোশত বিরোধী অভিযানে নামলেও, উত্তরপূর্বাঞ্চলের রাজ্য-মিজোরাম, মেঘালয় ও নাগাল্যান্ডে গোমাংসে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে না বলে জানিয়েছে গেরুয়া দলটি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ