ঢাকা, বৃহস্পতিবার 30 March 2017, ১৬ চৈত্র ১৪২৩, ০১ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

প্রথমবারের মতো ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনায় হিলারি

২৯ মার্চ, সিএনএন/এবিসি নিউজ : মার্কিন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন মঙ্গলবার রাতে সান ফ্রান্সিসকোতে পেশাগত নারী ব্যবসায়ীদের বার্ষিক সম্মেলনে বক্তৃতা রাখেন। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয়ের পর প্রথমবারের মতো রাজনৈতিক বক্তৃতা দেন হিলারি। ট্রাম্প প্রশাসনের স্বাস্থ্যবিমা থেকে শুরু করে প্রশাসনের উর্দ্ধতন পর্যায়ে নারীদের অপর্যাপ্ত নিয়োগ, সবকিছু নিয়ে কথা বলেন হিলারি।
সম্মেলনে কয়েক হাজার নারী সমেবেত হন। হিলারি ওই সম্মেলনে যোগ দিতে পেরে আনন্দিত বলে জানান। বলেন, হোয়াইট হাউসের পর এটি অন্যতম স্থান যেখানে  নারীদের সঙ্গে সবকিছু শেয়ার করা যায়। বক্তব্যে জোরালোভাবে রিপাবলিকান সরকারের সমালোচনা করেন হিলারি।
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নাম উল্লেখ না করে হিলারি বলেন, প্রশাসনের শীর্ষস্থানগুলোতে নারীদের কম নিয়োগ এই প্রজন্মের ক্ষেত্রে প্রথম ঘটনা। নাম উল্লেখ না করে  তিনি  হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসারেরও সমালোচনা করেন। মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সময় এক কৃষাঙ্গ নারী সাংবাদিকের সঙ্গে রুঢ় আচরণ করেন হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র শন স্পাইসার। বক্তব্যে হিলারি গত সপ্তায় রিপাবলিকানদের স্বাস্থ্যবিমা ব্যর্থতাকে ‘মার্কিনীদের জয়’ বলে অভিহিত করেন। এ সময় তিনি আরো বলেন, নির্বাচনের জন্য যে পরিশ্রম করেছি তার আশানুরূপ ফলাফল আমি অবশ্যই পাইনি, তবে সমাজে নারী পুরুষের সমান মর্যাদা বিশেষ করে কর্মক্ষেত্রে উভয়ের সহ-অবস্থান নিয়ে সবসময়ই কথা বলবো।
২০১৬ সালের  প্রেসিডেন্টে নির্বাচনে পপুলার ভোটে জয়ী হলেও ইলেকটোরাল ভোটে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে হেরে যান ডেমোক্রেট নেতা হিলারি ক্লিনটন। তারপর থেকে জনসমক্ষে তাকে খুব একটা দেখা যায়নি। তবে মঙ্গলবারের নারী সম্মেলনে তাঁর স্বতস্ফূর্ত বক্তব্য রাজনীতিতে ফিরে আসার পূর্বাভাস বলে মনে করা হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ