ঢাকা, বৃহস্পতিবার 30 March 2017, ১৬ চৈত্র ১৪২৩, ০১ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

দৌলতপুর সীমান্তে বিএসএফ’র হাতে ২ বাংলাদেশী আটকের পর পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ফেরত

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিএসএফ’র হাতে ২ বাংলাদেশী নাগরিক আটক হওয়ার প্রায় ৭ ঘন্টা পর পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাদের ফেরত পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার চিলমারী ইউনিয়নের উদয়নগর সীমান্তের ওপার ভারত ভূ-খন্ড থেকে দু’জন বাংলাদেশী নাগরিককে আটক করা হয়। স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের মুন্সিগঞ্জ গ্রামের বাদলের ছেলে রমজান আলী (২২) ও ফিলিপনগর ইউনিয়নের ফিলিপনগর গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে রাজন (২০) ভারতের কেরালায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে উদয়নগর সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করে। এসময় ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার ফরাজীপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পের টহল দল তাদের আটক করে ক্যাম্পে নেয়। বিএসএফ’র হাতে বাংলাদেশী আটকের খবর পেয়ে ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনস্থ চিলমারী বিজিবি কোম্পানীর অধিনায়ক সুবেদার আলাউদ্দিন তাদের ফেরত চেয়ে বিএসএফ’র নিকট পত্র পাঠায়। পত্র পেয়ে রাত ৮ টার দিকে চল্লিশপাড়া সীমান্তের ৮৫/১০-আর সীমান্ত পিলার সংলগ্ন নোম্যান্স ল্যান্ডে অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে বিজিবি’র পক্ষে নেতৃত্ব দেন ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনস্থ চিলমারী বিজিবি কোম্পানীর অধিনায়ক সুবেদার আলাউদ্দিন এবং বিএসএফ’র পক্ষে নেতৃত্ব দেন ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার চরভদ্রা বিএসএফ ক্যাম্প ইনচার্জ এসআই সঞ্জয় কুমার। পতাকা বৈঠক শেষে বিএিসএফ’র হাতে আটক বাংলাদেশীদের বিজিবি’র নিকট হস্তান্তর করা হলে বিজিবি তাদের দৌলতপুর থানা পুলিশে সোপর্দ করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ