ঢাকা, সোমবার 03 March 2017, ২০ চৈত্র ১৪২৩, ০৫ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

উত্তপ্ত জম্মু-কাশ্মীরে এশিয়ার সর্ববৃহৎ সুড়ঙ্গ পথ

২ এপ্রিল, টাইমস অব ইন্ডিয়া : ভারতশাসিত কাশ্মীর এলাকায় সম্প্রতি কতগুলো নেতিবাচক খবরের মধ্যে সুরঙ্গের মধ্যে আলোর মুখ দেখার সময় এসেছে। গতকাল উদ্বোধন হওয়ার কথা এশিয়ার সর্ববৃহৎ সুড়ঙ্গ পথ ‘জম্মু-শ্রীনগর ন্যাশনাল হাইওয়ে টানেল’। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এ টানেল উদ্বোধন করার কথা। প্রায় ১১ কিলোমিটার দীর্ঘ এ টানেল নির্মানের ফলে জম্মু থেকে শ্রীনগর যাওয়ার ক্ষেত্রে ৪০ কিলোমিটার পথ বেঁচে যাবে। এ পথ ব্যবহারের ফলে যাত্রীদের দু’ঘণ্টা সময় বেঁচে যাবে এবং যানবাহনের তেল খচর বাঁচবে দৈনিক প্রায় ২৭ লাখ রুপির। এ টানেলের ফলে জম্মুর কিশওয়ার, দোহা ও ভাদেরজা এলাকার লোকজন উপকৃত হবে।
২০১১ সালের মে মাসে হিমালয় পর্বতের নিম্ন এলাকার ২৮৬ কিলোমিটার হাইওয়ে নির্মানের প্রকল্প শুরু হয়। জম্মুর এ টানেলটি তারই একটি অংশ। টানেলটি জম্মুর সঙ্গে শ্রীনগরের সংযোগ করবে। হাইওয়ের অংশ হিসাবে টানেলটি আধুনিক প্রকৌশলে নির্মাণ করা হয়েছে। টানেলে ট্র্যাফিক নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি, যানবাহন প্রবেশে নজরদারী, অগ্নি নির্বাপক ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ সরবরাহ, গ্যাস বহির্গমন ব্যবস্থা নিরবিচ্চিন্ন করতে সব ধরণের আধুনিক ব্যবস্থা স্থাপন করা হয়েছে।
ভারতের প্রকৌশল বিভাগ এ টানেল নির্মানে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছে কারণ এশিয়া মহাদেশে এত দীর্ঘ টানেল আর নেই। এছাড়া জম্মু-কাশ্মির এমনিতেই স্পর্শকাতর এলাকার মধ্যে অন্যতম। নির্মান প্রকৌশলীদের নিরাপত্তার বিষয়টিও গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করতে হয়েছে। টানেলে প্রত্যেক ৮ মিটার পর পর বাতাস প্রবেশের ব্যবস্থা রয়েছে এবং প্রত্যেক ১শ মিটার পর জরুরী বর্হিগমনের পথও রাখা হয়েছে। টানেলকে স্বাভাবিক পরিবেশে রাখার জন্য উন্নতমানের সফটওয়ার ব্যবহার করা হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ