ঢাকা, শনিবার 08 March 2017, ২৫ চৈত্র ১৪২৩, ১০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

তিস্তা চুক্তি এখন সময়ের ব্যাপার -ওবায়দুল কাদের

 

গাজীপুর সংবাদদাতা : সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ভারতের সঙ্গে গঙ্গা চুক্তি হয়েছে, তিস্তা চুক্তিও হবে। তিস্তা চুক্তি এখন সময়ের ব্যাপার। এতে যেহেতু রাজ্যের বিষয় রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী দিল্লী সফরে গেছেন। দিল্লীতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও থাকছেন। সেখানে তিস্তা ও অভিন্ন নদী নিয়ে আলোচনার আরও অগ্রগতি হবে। ভারতের সাথে শান্তিপূর্ণ ছিটমহল বিনিময় হয়েছে। ছিটমহল শুধু বিনিময়ই হয়নি। আমাদের ৩৫টি ছিটমহলে ইউপি নির্বাচনও হয়েছে।

মন্ত্রী শুক্রবার দুপুরে গাজীপুর সদর উপজেলার রাজেন্দ্রপুর এলাকায় সড়ক ও জনপথের পরিদর্শন বাংলো ‘বন বিলাস’ উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে ওইসব কথা বলেন। এসময় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ার ইন চিফ মেজর জেনারেল মো. ছিদ্দিকুর রহমান সরকার, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইফতেখার আনিস, সওজ-এর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, ঢাকা-গাজীপুর বিআরটি প্রকল্পের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার ছানাউল হক, জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক লে. ক. নিজাম উদ্দিন আহমদ, প্রকল্প কর্মকর্তা মেজর মো. মিজানুর রহমান ফকির, গাজীপুর সওজের উপ-সহকারী প্রকৌশলী খায়রুল বাশার মো. সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, ভারত আমাদের দুঃসময়ের বন্ধু। ভারত বিদ্বেষী প্রচারণা করে, ভারত বিরোধী প্রপাগান্ডা করে ভারতের কাছ থেকে প্রতিবেশি হিসেবে আমাদের ন্যায্য পাওনা পাওয়া যাবে না। ভারতের সঙ্গে আমাদের মাঝে ২১বছর সম্পর্কটা খারাপ পর্যায়ে ছিল। অবিশ্বাস আর সন্দেহের দেয়াল উঠেছিল। সম্পর্ক খারাপ রেখে কোন ন্যায্য পাওনা পাওয়া যায় না। আমরা মনে করি সুসম্পর্কটা বজায় রেখেই আমাদের ন্যায্য পাওনা বুঝে নিতে হবে। ভারতের সঙ্গে যুদ্ধ করে, ভারতের সঙ্গে বৈরিতা করে আমরা আমাদের ন্যায্য কিছু পাব না। আমরা যেহেতু আমাদের বন্ধুতের হাত বাড়িয়ে দিয়েছি। যে কারণে ৪১বছরে ভারতের সঙ্গে আমাদের সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়ন হয়েছে। এটা একটা কঠিন কাজ ছিল, চ্যালেঞ্জিং বিষয় ছিল।

বিএনপি’র মহাসচিবের র‌্যাব বিলুপ্তির বক্তব্যের সমালোচনা করে সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, র‌্যাব বিএনপি’র সৃষ্টি। স্বার্থে লাগলে নিজেদের সৃষ্ট সন্তানদের প্রতিও মায়া থাকছে না। আমার কাছে মনে হয়, সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে র‌্যাবের কিছু সাহসী অভিযান এবং ভূমিকা বিএনপি’র গাত্রদাহের কারণ।

মহাসড়কে লাশ ফেলে পালিয়েছে দুর্বৃত্তরা : গাজীপুরের কালিয়াকৈরে শুক্রবার চলন্ত মাইক্রোবাস থেকে এক গার্মেন্টস কর্মীর লাশ মহাসড়কে ফেলে পালিয়ে গেছে দুর্দৃত্তরা। নিহতের নাম সাহেদুল ইসলাম (৩৫)। রংপুরের উত্তরখলিয়া পূর্বপাড়া এলাকার মৃত আছিম উদ্দিনের ছেলে সাহেদুল কালিয়াকৈরের পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় ভাড়া থেকে স্থানীয় ইন্টারস্টপ কারখানায় চাকরি করতেন।

কালিয়াকৈর থানার এসআই মো. ওসমান গনি ও স্থানীয়রা জানান, কালিয়াকৈরের চন্দ্রা ফরেস্ট অফিসের সামনে একটি মাইক্রোবাস থেকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে এক ব্যক্তির লাশ ফেলে চন্দ্রার দিকে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। স্থানীয়রা ওই লাশ উদ্ধার করে চন্দ্রা মোড় এলাকার হাইওয়ে পুলিশের কাছে নিয়ে যায়। এ সময় লাশের সঙ্গে থাকা মোবাইলের সূত্র ধরে তার পরিচয় পাওয়া যায়। নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার নাকে ও মুখে রক্তের চিহ্ন রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ