ঢাকা, শনিবার 08 March 2017, ২৫ চৈত্র ১৪২৩, ১০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

দুর্গাপুরের স্কুলে আ’লীগের হামলায় দুই শিক্ষক আহত : পুলিশ মোতায়েন

রাজশাহী অফিস: রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার কালিগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি গঠন করাকে কেন্দ্র করে প্রধান শিক্ষক ও এক সহকারী শিক্ষককে পিটিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসলে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা পালিয়ে যায়।
আহত এক শিক্ষককে হাসপাতালে নেয়া হয়।
সম্প্রতি দাওকান্দির কালিগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহতরা হলেন, প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন ও ক্রীড়া শিক্ষক সাইফুল ইসলাম।
অন্যদিকে শিক্ষকদের পেটানোর দৃশ্য দেখে দুই শিক্ষার্থী আতঙ্কে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে।
পুঠিয়া-দুর্গাপুরের এমপি আবদুল ওয়াদদু দারার গ্রুপের লোকজনের সঙ্গে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ গ্রুপের লোকজনের মধ্যে ধাওয়াপাল্টা ধাওয়ার জেরে এই ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।
এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।
এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। শিক্ষার্থীরা জানায়, অনেক লোকজন, লাঠি হাসুয়া নিয়ে স্কুলে ঢুকে পড়ে। তারা প্রধান শিক্ষকের রুমে ঢুকে মারধর করে। ফলে তারা আতঙ্কে চিৎকার করতে থাকে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।
হোটেলে আপত্তিকর
অবস্থায় ১১ জন আটক
রাজশাহীর পুঠিয়ায় অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায়  একটি আবাসিক হোটেল থেকে ৪ নারীসহ ১১ জনকে আটক করেছে পুলিশ। উপজেলার বানেশ্বর বাজারের গ্রীণ ইন্টারন্যাশনাল নামক আবাসিক হোটেল থেকে মঙ্গলবার রাতে তাদের আটক করে পুঠিয়া থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।
পুঠিয়া থানার পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হোটেলে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় হোটেল ম্যানেজারসহ ১১ জনকে আটক করা হয়।
পরে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) শফিকুর আলম তাদের প্রত্যেককে ১ মাস করে কারাদ- প্রদান করেন।
তবে স্থানীয় একাধিক সুত্র জানায়, হোটেল থেকে স্থানীয় এক যুবলীগের নেতার ছেলেসহ মোট ১৪ জনকে আটক করে পুলিশ। কিন্তু স্থানীয় আওয়ামী লীগের আরেক নেতার কারণে পরে তাদের মধ্যে ৩ জনকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ