ঢাকা, শনিবার 08 March 2017, ২৫ চৈত্র ১৪২৩, ১০ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সুন্দরগঞ্জে বৈশাখ আসার আগেই কালবৈশাখী ঝড় ব্যাপক ক্ষতি

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় অসময়ে কালবৈশাখী শিলাবৃষ্টি ঝড়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ উঠতি ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
বৈশাখী আসতে আরও এক সপ্তাহ বাকি অথচ তার আগেই সোমবার দিবাগত রাতে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শিলাবৃষ্টি ঝড়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ঘর-বাড়ি, গাছপালাসহ নানাবিধ উঠতি ফসল গম, বোরো ধান, ভুট্টা, কড়লা, পটল, পানের বরজসহ বিভিন্ন সবজি ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি সাধন হয়েছে। বিশেষ করে ইরি বোরো ধানের থোড়ের মুখে শিলাবৃষ্টির আঘাত হানায় ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। শান্তিরাম ইউনিয়নের কৃষক তারা মিয়া জানান- আমি ৫ বিঘা জমিতে ব্রি-২৮ ধান চাষাবাদ করেছি। ধানের থোড় এসেছে কিন্তু হঠাৎ শিলাবৃষ্টি হওয়ায় ধানের অনেক মার হতে পারে বলে আশঙ্কা করছি। এর আগে এ সময় কখনো শিলাবৃষ্টি হতে দেখি নাই। চলতি মৌসুমে উপজেলায় ২৬ হাজার ৭৫০ হেক্টর জমিতে ইরি বোরো ধান চাষাবাদ করা হয়েছে। এছাড়া উপজেলার বাগানের ঘাট মহিলা দাখিল মাদ্রাসা, পঞ্চানন্দ পলাশতলা বে-সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিলাবৃষ্টি ও ঝড় হাওয়ায় দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রাশেদুল ইসলাম জানান- ইরি বোরো ধানের তেমন ক্ষতির সম্ভাবনা নেই। তবে গম, ভুট্টাসহ তাল-তরকারির ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ