ঢাকা,বুধবার 14 November 2018, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

তৈরি হলো সাগরের পানিকে সুপেয় করার প্রযুক্তি

ছবি- ইউনিভার্সিটি অফ ম্যানচেস্টার, গ্রাফিন

অনলাইন ডেস্ক: নোনাজল থেকে লবণ সরাতে গ্রাফিন-ভিত্তিক ‘ছাঁকুনি’ বানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের একদল গবেষক।

বড় পরিসরে এই প্রযুক্তির প্রয়োগ সম্ভব হলে বিশ্বে সুপেয় পানির অভাব দূর করা যাবে।

২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বের ১৪ শতাংশ মানুষ পানির ঘাটতিতে পড়বেন বলে ইতোমধ্যেই সতর্ক করেছে জাতিসংঘ।

বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ প্রযুক্তির উন্নয়ন হলে তা লাখো মানুষের জন্য পরিষ্কার খাবার পানির ব্যবস্থা করবে। যেসব অঞ্চলের মানুষের কাছে সরাসরি বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা নেই তাদের জন্য এটি দারুণ সহায়ক হতে পারে।

নতুন এই গ্রাফিনভিত্তিক ছাঁকুনি নোনাজল থেকে লবণ আলাদা করতে বেশ কার্যকর হতে পারে। বর্তমান বাজারে রয়েছে এমন প্রযুক্তির সঙ্গে এবার এটি তুলনা করে দেখা হবে বলে জানানো হয়।

এর আগে শিল্প খাতে পানি থেকে লবণ আলাদা করতে গ্রাফিনভিত্তিক প্রতিবন্ধক ব্যবহার করা যেত না। ‘নেচার ন্যানোটেকনোলজি’ জার্নালের প্রতিবেদনে এই প্রকল্পের ফলাফল প্রকাশ করেছেন ইউনিভার্সিটি অফ ম্যানচেস্টার-এর বিজ্ঞানীরা। এই দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন ড. রাহুল নায়ার।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে তারা কীভাবে গ্রাফিন অক্সাইডের মাধ্যমে বেশ কিছু সমস্যার সমাধান করেছেন। এতে শুধু একটি স্তরে গ্রাফিনকে ঘণীভূত করা হয়েছে, যা গ্রাফিনের সাধারণ আচরণের বাইরে। তবে, বর্তমানে রয়েছে এমন ব্যবস্থায় বড় পরিসরে এক স্তরে গ্রাফিন জমানো কষ্টকর বলে জানানো হয়।

এবার নতুন এ উপাদানটি ভবিষ্যতের জন্য আশাব্যঞ্জক একটি উপাদান হতে পারে বলে আশা করছেন বিজ্ঞানীরা। এটির বর্তমান উৎপাদন খরচও বেশি বলে জানিয়েছেন তারা।

অন্যদিকে ড. নায়ার বলেন, “ল্যাবে সাধারণ অক্সিডেশনের মাধ্যমেই গ্রাফিন অক্সাইড উৎপাদন করা যেতে পারে। তবে, উপাদানের কর্মক্ষমতা এবং খরচের দিক থেকে এক স্তরেরে গ্রাফিনের তুলনায় গ্রাফিন অক্সাইডে সুবিধা আছে।”

প্রতিবেদনে আরও বলা হয় পানিতে সাধারণ লবণ ছাড়লে এটি সবসময় লবণের অণুর চারিদিকে পানির অণুর আস্তরণ তৈরি করে। এ কারণে গ্রাফিন-অক্সাইড মেমব্রেন পানির সঙ্গে লবণকে ছাঁকুনি দিয়ে বের হতে বাধা দিতে পারে।

“পানির অণু সহজেই পার হয়ে যেতে পারে, কিন্তু সোডিয়াম ক্লোরাইড পারে না। এটির সব সময় পানির অণুর সাহায়তা দরকার হয়। লবণের চারিদিকে পানির আস্তরণের আকার চ্যানেলের থেকে বড়, তাই এটি পার হয়ে যেতে পারে না।”

পানি বিশুদ্ধকরণের জন্য বর্তমানে পলিমার-ভিত্তিক মেমব্রেন ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আর নতুন গ্রাফিন অক্সাইডের উৎপাদন খরচ কমাতে এখনও অনেক কাজ বাকি রয়েছে বলে জানান বিজ্ঞানীরা।-বিডিনিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ