ঢাকা, সোমবার 10 March 2017, ২৭ চৈত্র ১৪২৩, ১২ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

শিমুলিয়া ঘাটের পদ্মায় পবিত্র মক্কা ও মদিনা শরীফের ইমাম ও তাদের সফর সঙ্গীদের নৌ-ভ্রমণ

 

লৌহজং (মুন্সিগঞ্জ) সংবাদদাতা : গতকাল রোববার দুপুরে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বিআইডব্লিউটিসির এমভি মধুমতি জাহাজে পবিত্র মসজিদুল হারামাইন শরীফের ভাইস প্রেসিডেন্ট জেনারেল শয়খ ড. মুহাম্মদ বিন নাসির ইবন মুহাম্মদ আল খুযাইম এবং মসজিদের নববীর ইমাম ও খতিব ড. আবদুল মুহসিন ইবন মোহাম্মদ ইবন আব্দুর রহমান আল কাসিম ও তার সফর সঙ্গীসহ নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী শাজাহান খান, ধর্ম মন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. রফিকুল ইসলাম, নৌ পুলিশের ডি আইজি মো: মনিরুজ্জান, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর এম মোজাম্মেল হক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষায়ক সম্পাদক শেখ মো: আব্দুল্লাহ্, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল, জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানা, জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলমসহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে শিমুলিয়া ঘাটের পদ্মায় নৌ ভ্রমণ অনুষ্ঠিত হয়। 

এ সময় বিভিন্ন্ ইসলামী সঙ্গীত পরিবেশন করেন আল হাসান শিল্পীগোষ্ঠী। অনুষ্ঠানের শুরুতে কুরআন তিলাওয়াত করেন আন্তর্জাতিক ক্বারি সাইদুল ইসলাম আসাদ। 

উক্ত অনুষ্ঠানে নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, নদীমাতৃক এ বাংলাদেশে সৌদির মেহমান ও তাদের সফর সঙ্গীদের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। তিনি এ সময় বলেন, সাতশতাধিক নদী আমাদের এ বাংলাদেশে রয়েছে। এ নদী প্রতিবছর আমাদের খনন করতে হয়। বঙ্গবন্ধু সাতটি ড্রেজার ক্রয় করেছিল। আমরা প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার এ সময়ে চৌদ্দটি ড্রেজার নির্মাণ করেছি। আমরা বিশ হাজার মিটার নদী পথ খনন করেছি। আমরা এ ক্ষেত্রে সৌদি সরকারের সহযোগিতা কামনা করছি।

অনুষ্ঠান শেষে নৌ মন্ত্রী বাংলাদেশের ঐতিহ্য নকশি কাঁথা উপস্থিত মেহমানদের উপহার দেন। উপস্থিত মেহমানরা এ সময় বাংলাদেশের বৃহত্তর পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজের অগ্রগতি কার্যক্রম পরিদর্শন এবং রূপসী বাংলার নদী প্রকৃতির রূপ অবলোকন করে মুগ্ধ হন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ