ঢাকা, মঙ্গলবার 11 March 2017, ২৮ চৈত্র ১৪২৩, ১৩ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাশিয়ার তীব্র সমালোচনায় মস্কোপন্থী মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

১০ এপ্রিল, বিবিসি/সিবিএস : বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শহর ইদিলবের রাসায়নিক হামলা প্রতিহত করতে ‘ব্যর্থ’ হওয়ায় রাশিয়ার তীব্র সমালোচনা করেছেন ‘মস্কোপন্থী’ বলে পরিচিত মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে টিলারসনের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে খবরটি জানানো হয়েছে। রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের একজন ঘনিষ্ঠ বন্ধু টিলারসনেরও বন্ধু। একটি রুশ-মার্কিন যৌথ উদ্যোগের তেল কোম্পানিতে মালিকানাও ছিল তার। তবে সিরীয় সরকারকে লক্ষ্য করে চালানো মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর থেকে বদলে যেতে থাকে সমীকরণ। স্বয়ং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প থেকে শুরু করে জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন দূত নিকি হ্যালি সবাই তীব্র রুশবিরোধী হয়ে ওঠেন। রাসায়নিক হামলার বিরুদ্ধে জবাব দেওয়ার কথা বলে সিরীয় সেনাঘাঁটিতে ৫৯ টি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। রাশিয়া সিরিয়ার সরকারের অন্যতম মিত্র। সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করতে ২০১৩ সালে একটি সমঝোতা চুক্তির ব্যাপারে সহযোগিতা করেছিল রাশিয়া। রাশিয়া বলছে, সিরিয়ার যে রাসায়নিক অস্ত্র রয়েছে সে ব্যাপারে প্রমাণ হাজির করতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র। তা সত্ত্বেও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন বলেছেন, সিরীয় সরকারের রাসায়নিক অস্ত্রের মজুদ ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে রাশিয়া। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিবিএস-এর ফেস দ্য নেশন অনুষ্ঠানকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে টিলারসন বলেন, সিরিয়ায় সংঘটিত সাম্প্রতিক রাসায়নিক হামলায় রাশিয়ার জড়িত থাকার কোনও প্রমাণ মেলেনি। তবে সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্রের মজুদ ধ্বংস করা নিয়ে দেশটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে যে অঙ্গীকার করেছে তা পুরণে ব্যর্থ হয়েছে।
টিলারসন বলেন, ‘সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্রের মজুদ ধ্বংসের বিষয়টি নিশ্চিত করতে একমত হয়েছিল রাশিয়া কিন্তু এক্ষেত্রে দেশটির ব্যর্থতার কারণে অনেক শিশু ও নিষ্পাপ মানুষদের প্রাণ ঝরেছে।’
এদিকে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় ইতালিতে বৈঠকে বসার প্রস্তুতি নেন জি সেভেন নেতারা।সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের কাছ থেকে রাশিয়াকে দূরে রাখতে দেশটির ওপর চাপ জোরালো করার বিষয়টিকে আলোচনায় প্রাধান্য দেওয়া হবে। জি সেভেন-এর বৈঠক শেষ করে আজ মঙ্গলবার মস্কোতে যাবেন টিলারসন। সেখানে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।
নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দেশটির পরবর্তী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বপালনের জন্য ব্যবসায়ী রেক্স টিলারসনকে নির্বাচন করেছেন। তেল কোম্পানি এক্সনমোবিল-এর প্রধান নির্বাহী এ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আগে থেকেই রুশ ও পুতিন ঘনিষ্ঠতার অভিযোগ ছিল। এবার একটি নথি ফাঁস হয়েছে যাতে দেখা যায়, তিনি ট্যাক্স হ্যাভেন বলে পরিচিত বাহামাভিত্তিক একটি রুশ-মার্কিন তেল কোম্পানির পরিচালকও ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ