ঢাকা, মঙ্গলবার 11 March 2017, ২৮ চৈত্র ১৪২৩, ১৩ রজব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

উ. কোরিয়াকে ভয় দেখাতেই ট্রাম্পের সিরীয় যুদ্ধ

১০ এপ্রিল, সিবিএস : ট্রাম্পের সিরীয় যুদ্ধকে উত্তর কোরিয়াসহ আন্তর্জাতিক নীতিমালা লঙ্ঘনকারী দেশগুলোর প্রতি সতর্কবার্তা বলে উল্লেখ করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন। মার্কিন সংবাদমাধ্যম এবিসির ‘দিস উইক’ অনুষ্ঠানকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি মন্তব্য করেন, সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার মধ্য দিয়ে হুমকি সৃষ্টিকারী দেশগুলোকে পাল্টা জবাব দেওয়ার বার্তা দেওয়া হয়েছে।
গত রোববার ‘দিস উইক’কে টিলারসন জানান, উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রের তৎপরতা বন্ধ করা জরুরি বলে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র একমত হয়েছে। তখন দিস উইক থেকে টিলারসনের কাছে জানতে চাওয়া হয়, এ হামলাটি উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সতর্কবার্তা কিনা। জবাবে টিলারসন বলেন, “বার্তাটি যেকোনও দেশের জন্যই, তাহল ‘যদি তোমরা আন্তর্জাতিক নিয়ম লঙ্ঘন কর, আন্তর্জাতিক চুক্তি লঙ্ঘন কর, অঙ্গীকার রক্ষায় ব্যর্থ হও, যদি তোমরা অন্যদের জন্য হুমকি হিসেবে বিবেচিত হও তবে এসব কিছু ক্ষেত্রে জবাব দেওয়া হবে।” উত্তর কোরিয়া প্রুশ্নে টিলারসন বলেন, ‘উত্তর কোরিয়ার বেলায় আমরা খুবই স্পষ্ট যে আমাদের লক্ষ্য হলো কোরিয়া উপদ্বীপকে পারমাণবিক অস্ত্র মুক্ত করা।’সিবিএস-এর ফেস দ্য নেশন অনুষ্ঠানকে আলাদাভাবে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে টিলারসন বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট শি স্পষ্টভাবে বুঝতে পেরেছেন। এবং আমি মনে করি তিনি তাতে একমতও হয়েছেন যে পরিস্থিতি খারাপ হয়েছে এবং হুমকি এমন এক পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছেছে যে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন।’
এদিকে, হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা এইচআর ম্যাকমাস্টার গত রোববার জানান, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হুমকি মোকাবেলায় ট্রাম্প শিগগিরই বিভিন্ন উপায় পর্যালোচনা করবেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ